২০ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

বাগমারায় সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ আরো একজনের মৃত্যু


স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ রাজশাহীর বাগমারায় আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপ ও পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় গুলিবিদ্ধ আরো একজনের মৃত্যু হয়েছে। রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে তার মৃত্যু হয়। তার নাম মোনতাজ আলী (৪৫)। তিনি বাগমারার সারন্দি গ্রামের মৃত সাবের আলীর ছেলে। ওই সংঘর্ষের ঘটনায় এ নিয়ে চারজনের মৃত্যু হলো। এরমধ্যে দু’জন ঘটনাস্থলেই নিহত হন। আর গত ৯ মে রাজশাহীর একটি বেসরকারি ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জাহিদুল ইসলাম বুলু (৪০) নামে একজনের মৃত্যু হয়। ঘটনাস্থলে নিহতরা হলেন, সিদ্দিকুর রহমান ওরফে সিদ্দিক (৩৭) ও রমজান আলী ওরফে রঞ্জু (২৭)।

রক্তক্ষয়ি সংঘর্ষের ঘটনায় আওয়ামী লীগের ১২০০ নেতাকর্মীকে আসামী করে বাগমারা থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। এ মামলায় ৭ জনকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আটক করেছিল পুলিশ। তাদের পুলিশি হেফাজতে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছিল। ৭ জনের মধ্যে বৃহস্পতিবার সকালে মারা যাওয়া মোনতাজ আলীও আসামীর তালিকায় ছিলেন।

প্রসঙ্গত, গত ৭ মে বাগমারা উপজেলার ১৬টি ইউনিয়নের নির্বাচন হওয়ার কথা ছিল। এর দুই দিন আগে নির্বাচন কমিশন থেকে উপজেলার সবগুলো ইউনিয়নের নির্বাচন স্থাগিত করা হয়। নির্বাচন স্থগিত করা হলেও ওই দিন ভোটের মাঠের প্রভাব নিজেদের নিয়ন্ত্রণে রাখতে এলাকায় মিছিল বের করে আউচপাড়া ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ মনোনিত চেয়ারম্যান প্রার্থী সরদার জান মোহাম্মদ ও বিদ্রোহী প্রার্থী শহিদুল ইসলাম শহীদের সমর্থকেরা। ফলে হাটগাঙ্গোপাড়া বাজারে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। এসময় পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করলে পুলিশের উপরও হামলা চালানো হয়। এক পর্যায়ে ত্রিমুখি সংঘর্ষ শুরু হলে পুলিশ গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: