২১ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

চীনাদের ব্যবহার খুব খারাপ॥ রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ


চীনাদের ব্যবহার খুব খারাপ॥ রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ

অনলাইন ডেস্ক॥ বাকিংহাম প্যালেসে মঙ্গলবার চলছিল গার্ডেন পার্টি। আর সেই পার্টিতেই চীনাদের সম্পর্কে কড়া মন্তব্য করতে শোনা গেল রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথকে। এক পুলিশকর্তার সঙ্গে আলাপকালে চীনা অফিসারদের ‘অত্যন্ত রূঢ়’ বলেন রানি। গোটা ঘটনাটি ধরা পড়েছে এক সাংবাদিকের ক্যামেরায়। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

সূত্রের বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মঙ্গলবার পুলিশের এক কর্তার সঙ্গে কথাবার্তা বলছিলেন রানি এলিজাবেথ। তখনই গত বছর চীনা প্রেসিডেন্ট শি চিনফিংয়ের সফরের প্রসঙ্গ তুলে চীনা অফিসারদের কড়া নিন্দা করেন তিনি। ওই আলোচনায় রানি ক্ষোভের সঙ্গে জানিয়েছেন, চীনে ব্রিটেনের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে চীনা অফিসাররা অত্যন্ত দুর্ব্যবহার করেছেন।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, অন্যান্য রাষ্ট্র সম্পর্কে এ ধরনের মন্তব্য অবশ্য ব্রিটেন আগেও করেছে। কারণ এই ঘটনা সামনে আসার কয়কদিন আগেই দেশটির প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরনের বেফাঁস মন্তব্যকে কেন্দ্র করে তৈরি হয়েছিল বিতর্ক। রানির সামনেই ক্যামেরনকে বলতে শোনা গিয়েছিল, আফগানিস্তান আর নাইজেরিয়া— এই দুই দেশই বিশ্বের সবচেয়ে দুর্নীতিগ্রস্ত দেশ। আর ব্রিটেনে দুর্নীতি বিষয়ক সম্মেলনে বিশ্বের বেশ কিছু দুর্নীতিগ্রস্ত দেশকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

পরে অবশ্য ব্রিটিশ সরকার এক বিবৃতি দিয়ে জানায়, আফগানিস্তান ও নাইজেরিয়ার রাষ্ট্রনেতারা দুর্নীতি দমনে উল্লেখযোগ্য কাজ করেছেন। তাই তাঁদের এই সম্মেলনে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

কিন্তু মঙ্গলবার ঠিক কী ঘটেছিল? মেট্রোপলিটান পুলিশ কম্যান্ডার লুসি ডি’ওর্সির সঙ্গে রানির পরিচয় করিয়ে দিয়েছিলেন এক পুলিশকর্তা। পুলিশকর্তা লুসির প্রশংসা করে রানিকে জানিয়েছিলেন, গত অক্টোবরে চীনা প্রেসিডেন্ট শি চিনফিংয়ের ব্রিটেন সফরের সময় এই লুসিই কড়া হাতে নিরাপত্তা ব্যবস্থা সামলেছিলেন। তখন লুসিই বলেন, ‘‘চীনা অফিসাররা আমাকে বিন্দুমাত্র পাত্তা দিচ্ছিলেন না।’’ তার জবাবে রানি বলেন, ‘‘ওহ্‌! এটা খুবই দুর্ভাগ্যজনক।’’ এ ছাড়াও রানিকে বলতে শোনা যায়, চীনে ব্রিটেনের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গেও অত্যন্ত দুর্ব্যবহার করা হয়েছে।

রানির ওই মন্তব্য অবশ্য ধামাচাপা দিতে চাইছে বাকিংহাম প্যালেস। জানানো হয়েছে, চীনাদের রাষ্ট্রীয় সফর নির্বিঘ্নেই হয়েছে।

বেজিংয়ে চীনা সরকারের তরফে প্রথমে জানানো হয়েছিল, চীনা প্রেসিডেন্টের রাষ্ট্রীয় সফর সফল এবং ব্রিটেনের সঙ্গে ভাল সম্পর্কও তৈরি হয়েছে। তবে মঙ্গলবারের ঘটনার পর থেকে সেই সম্পর্কে কোন প্রভাব পড়বে কি না, সে বিষয়ে অবশ্য কোন জবাব মেলেনি। আর রানির যে মন্তব্যে এত বিতর্ক, তা কাটছাঁট করেই চীনে সম্প্রচারিত হচ্ছে বলে খবর।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: