১৯ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার


জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদান করা হয় গতকাল ১১ তারিখে। অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন জনপ্রিয় চিত্রনায়ক রিয়াজ ও নওশীন। জমকালো আয়োজনে বসেছিল তারার মেলা। দেশের জনপ্রিয় তারকারা পুরস্কার মঞ্চে বিভিন্ন পরিবেশনায় অংশ নেন। বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

গত আসরে রিয়াজের সঙ্গে উপস্থাপনা করেছিলেন শমী কায়সার।বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।অনুষ্ঠানটি সরাসরি সম্প্রচার করে বাংলাদেশ টেলিভিশন। এবারের অনুষ্ঠান বিভিন্ন পরিবেশনায় অংশ নেয় ওমর সানী, পরী মনি, ইমন, নিরব, আইরিন, তমা মির্জাসহ অনেকের। অনুষ্ঠানে গান পরিবেশন করে ফাহমিদা নবী, মমতাজ ও চন্দন সিনহা। এছাড়া মডেল অভিনেত্রী মৌ তার দল নিয়ে একটি নৃত্য পরিবেশন করে।

এদিকে এ বছর সরকারী অনুদানে নির্মিত ‘বৃহন্নলা’ চলচ্চিত্রের পুরস্কার বাতিল হওয়ায় দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা মাসুদ পথিকের ‘নেক্কাবরের মহাপ্রয়াণ’ নির্বাচিত হয়েছে সেরা চলচ্চিত্র। সেরা কাহিনীকার হয়েছেন ‘মেঘমল্লা’র চলচ্চিত্রের জন্য আখতারুজ্জামান ইলিয়াস। একই ছবির জন্য সেরা চিত্রনাট্যকার ও সেরা পরিচালকের পুরস্কার পেয়েছেন জাহিদুর রহিম অঞ্জন। সেরা অভিনেতা হয়েছেন ফেরদৌস ও সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার জিতেছেন যৌথভাবে মৌসুমী ও মিম।

প্রথমবারের মতো জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেলেন ব্যান্ড তারকা জেমস। ‘নেকাব্বরের মহাপ্রয়াণ’ ছবিতে ‘নিশি পক্ষী’ গানের জন্য সেরা গায়িকার পুরস্কার পেয়েছেন মমতাজ। একই ছবির জন্য সেরা সঙ্গীত পরিচালক ড. সাইম রানা ও সেরা সুরকার হয়েছেন বেলাল খান।

খলচরিত্রে তারিক আনাম খান, সেরা কৌতুক অভিনেতা মিশা সওদাগর পুরস্কার গ্রহণ করেন। সেরা পার্শ্ব অভিনেতা ডা. এজাজ এবং ‘৭১-এর মা জননী’ ছবির জন্য পার্শ্ব অভিনেত্রীর পুরস্কার নেন চিত্রলেখা গুহ। আজীবন সম্মাননা দেওয়া হয় যৌথভাবে সৈয়দ হাসান ইমাম ও রানী সরকারকে।

মোট ২৫টি বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদান করা হয়। এর মধ্যে রয়েছে গীতিকার, শিশুশিল্পী, কাহিনীকার, সংলাপ রচয়িতা, সুরকার, চিত্রনাট্যকার, নৃত্য পরিচালক, শিল্প নির্দেশক, সম্পাদক, চিত্রগ্রাহক, শব্দগ্রাহক, সাজসজ্জা ও রূপসজ্জাকর।