২১ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

নিজামীর গায়েবানা জানাজা কেন্দ্র করে চট্টগ্রামে ধাওয়া পাল্টাধাওয়া


নিজামীর গায়েবানা জানাজা কেন্দ্র করে চট্টগ্রামে ধাওয়া পাল্টাধাওয়া

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ মানবতাবিরোধী অপরাধে ফাঁসি হওয়া যুদ্ধাপরাধী মতিউর রহমান নিজামীর গায়েবানা জানাজা ঘিরে চট্টগ্রামে জামায়াত-শিবির, ছাত্রলীগ ও পুলিশের মধ্যে ত্রিমুখী সংঘর্ষ হয়েছে। বুধবার দুপুরে চট্টগ্রাম কলেজের প্যারেড গ্রাউন্ড এলাকায় জানাজা পড়া এবং বাধা দেয়াকে কেন্দ্র করে এ সংঘর্ষ হয়। তবে সংঘর্ষে হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। পুলিশ ফাঁকা গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এদিকে রাজশাহীতে নিজামীর গায়েবানা জানাজা ও নাশকতার চেষ্টা পুলিশী ধাওয়ায় প- হয়ে গেছে। তবে জামায়াত-শিবিরকর্মীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। এ সময় শিবিরের চারকর্মীকে আটক করা হয়।

বুধবার বেলা দুটার দিকে যুদ্ধাপরাাধী নিজামীর গায়েবানা জানাজার সিদ্ধান্ত নেয় জামায়াত-শিবির। চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগ জানাজা প্রতিহতের ঘোষণা দিয়ে সকালেই অবস্থান নেয় প্যারেড গ্রাউন্ড ও সংলগ্ন চকবাজার এলাকায়। সেখানে কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটলে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। বন্ধ হয়ে যায় চকবাজার এলাকার দোকানপাট। ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা অবস্থান নেয় চট্টগ্রাম কলেজের পশ্চিম ফটকে। দুপুর পৌনে দুটার দিকে জানাজায় অংশ নিতে আসা জামায়াত শিবিরের নেতাকর্মীরা জড়ো হয় চন্দনপুরা এলাকার সড়কে। উভয়পক্ষ মুখোমুখি অবস্থানে চলে আসায় পুলিশ প্যারেড গ্রাউন্ডের দুদিকের গেট বন্ধ করে দেয়। জামায়াত-শিবিরের কর্মী সমর্থকরা সড়কেই প্রথম দফা জানাজা নামাজ পড়েন। এরপর ছাত্রলীগের কর্মী-সমর্থকদের দিকে ইটপাটকেল ছুড়তে থাকে। প্রথমদিকে ছাত্রলীগ পিছু হটলেও কিছুক্ষণের মধ্যে সংঘটিত হয়ে পাল্টা ধাওয়া দেয়। এ সময় পুলিশও পরিস্থিতি সামাল দিতে সক্রিয় হয়। পুলিশকে লক্ষ্য করেও ছোড়া হয় ইটপাটকেল। পিছু হটলেও জামায়াত-শিবির প্যারেড গ্রাউন্ডে অবস্থান নেয়। সেখানে দ্বিতীয় দফা জানাজা সম্পন্ন হয়। জানাজায় ইমামতি করেন চট্টগ্রাম মহানগর জামায়াতের আমির আ ন ম শামসুল ইসলাম। জানাজার পর জামায়াতের কর্মী-সমর্থকরা চট্টগ্রাম কলেজ চত্বরে ঢুকে তিনটি মোটরসাইকেল ভাংচুর করে। তখন ছাত্রলীগও তাদের রুখতে তেড়ে আসে। শেষ পর্যন্ত পুলিশের তৎপরতায় পরিস্থিতি সামাল দেয়া সম্ভব হয়। তখন বেশ কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলিও ছুড়তে হয়।

রাজশাহীতে আটক ৪ ॥ স্টাফ রিপোর্টার জানান, রাজশাহীতে নিজামীর গায়েবানা জানাজা ও নাশকতার চেষ্টা পুলিশী ধাওয়ায় প- হয়ে গেছে। তবে জামায়াত-শিবিরকর্মীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। এ সময় পুলিশও বেশ কয়েক রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। সেখান থেকে শিবিরের চার কর্মীকে আটক করা হয়।

রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) মুখপাত্র ও রাজপাড়া জোনের সহকারী কমিশনার ইফতে খায়ের আলম জানান, বুধবার দুপুর দুটার দিকে জামায়াত-শিবিরকর্মীরা কোন অনুমতি ছাড়াই হেতেমখাঁ এলাকায় জড়ো হয়ে স্থানীয় গোরস্তানে নিজামীর গায়েবানা জানাজার চেষ্টা করছিল। সেখান থেকে তারা বিক্ষোভ মিছিল ও নাশকতার চেষ্টা করে। তবে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাদের ধাওয়া দিয়ে ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

এ সময় শিবিরকর্মীরা বিভিন্ন সড়ক দিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ শুরু করে। এ সময় নগরীর বর্ণালী মোড় এলাকায় বেশ কয়েক রাউন্ড রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে পুলিশ। ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে জামায়াত-শিবিরের চার কর্মীকে আটক করা হয়।