১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

হবিগঞ্জের তিন রাজাকারের রায় যে কোন দিন


স্টাফ রিপোর্টার ॥ একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় গ্রেফতারকৃত হবিগঞ্জের দুই সহোদর মহিবুর রহমান ওরফে বড় মিয়া, মুজিবুর রহমান ওরফে আঙ্গুর মিয়া ও চাচাত ভাই আব্দুর রাজ্জাকের বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধের মামলা উভয় পক্ষের যুক্তিতর্ক শেষ হয়েছে। যুক্তিতর্ক শেষে রায় ঘোষণার জন্য অপেক্ষমাণ (সিএভি) রাখা হয়েছে। অর্থাৎ যে কোন দিন রায় ঘোষণা করা হবে। চেয়ারম্যান বিচারপতি আনোয়ারুল হকের নেতৃত্বে তিন সদস্য বিশিষ্ট আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ বুধবার এ আদেশ প্রদান করেছেন। প্রসিকিউশনপক্ষে যুক্তিতর্ক করেন প্রসিকিউটর সুলতান মাহমুদ সীমন ও প্রসিকিউটর রেজিয়া সুলতানা চমন। আসামিপক্ষে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করেন আইনজীবী গোলাম কিবরিয়া, পারভেজ হোসেন ও এম. মাসুদ রানা।

দুই সহোদরের বিরুদ্ধে অভিযোগগুলোর মধ্যে রয়েছে ২টি হত্যা, ১টি ধর্ষণ, ১টি অপহরণ, আটক ও ১টি অগ্নিসংযোগ, ভাংচুর। প্রসিকিউশন সূত্রে জানা গেছে, ১৯৭১ সালের ২৬ অক্টোবর সকাল আনুমানিক ১০টার সময় আসামি মহিবুর রহমান ওরফে বড় মিয়া ও মুজিবুর রহমান ওরফে আঙ্গুর মিয়াসহ তাদের সঙ্গীয় রাজাকার বাহিনী ও ১০/১৫ জন পাকিস্তানী আর্মি নিয়ে তিনটি নৌকাযোগে হবিগঞ্জ জেলার বানিয়াচং থানার মুক্তিযুদ্ধের উপ-সর্বাধিনায়ক মেজর জেনারেল (অব) এম এ রব সাহেবের খাগাউড়া গ্রামের বাড়িতে হামলা চালায়। আসামীদ্বয় ঐ বাড়িতে পাঁচটি বড় টিনের ঘরে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়। একই দিন রাজাকাররা হিন্দুপাড়ায় মনীন্দ্র চন্দ্র দেব, রমাকান্ত দেব, শম্ভুদেব, করুণা দেবের বাড়িঘরে লুটপাট চালিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। এই ঘটনার পর হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন প্রাণ ভয়ে ভারতে আশ্রয় গ্রহণ করেন।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: