২০ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৪ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

নিজামীর লাশ সাঁথিয়ায় কবর দিতে দেব না ॥ শহীদ সন্তানদের হুঁশিয়ারি


নিজামীর লাশ সাঁথিয়ায় কবর দিতে দেব না ॥ শহীদ সন্তানদের  হুঁশিয়ারি

নিজস্ব সংবাদদাতা, পাবনা, ১০ মে ॥ একাত্তরের নরঘাতক, আলবদর প্রধান মতিউর রহমান নিজামীর নিজ এলাকা সাঁথিয়ার মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পরিবারের সন্তানরা এই কুখ্যাত যুদ্ধাপরাধীর লাশ সেখানকার মাটিতে কবর না দেয়ার জোর দাবি জানিয়েছেন। এই দাবি উপেক্ষা করে নিজামীর লাশ সাঁথিয়ায় আনা হলে তা প্রতিহত করা হবে বলেও তারা হুঁশিয়ারি দিয়েছেন।

মুক্তিযোদ্ধা জহুরুল ইসলাম মাস্টার এ বিষয়ে জানিয়েছেন, নিজামীর লাশ সাঁথিয়ায় দাফন করতে দেয়া হবে না। সাঁথিয়া প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মানিক মিয়া রানা একই দাবি তুলে বলেন, মানবতার শত্রু নিজামীর লাশ সাঁথিয়ায় দাফন করার সিদ্ধান্ত প্রতিহত করা হবে। এলাকার মুক্তিযোদ্ধা ও মামলার সাক্ষী আবু সামা ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়ে নিজামীর লাশ সাঁথিয়ায় কবর দিতে বাধা দেয়ার জন্য সবার কাছে আহ্বান জানান। তিনি আারও বলেন, নরঘাতক নিজামীর লাশ সাঁথিয়ায় কবর দেয়া হলে শহীদদের আত্মা শান্তি পাবে না।

মামলার অপর সাক্ষী জামাল উদ্দিনও নিজামীর লাশ সাঁথিয়ায় না আনার দাবি জানান। মুক্তিযোদ্ধা তোফাজ্জল হোসেন মাস্টার জানান, নিজামীর একাত্তরের কুকর্মের কথা বলতে গেলে আজও তাদের গা শিউরে ওঠে! তিনিও নিজামীর লাশ সাঁথিয়ায় কবর না দেয়ার দাবি জানান। ধুলাউরি গ্রামের শহীদ আবুল কাশেম ফকিরের ছেলে আব্দুর রউফ মন্টু জানিয়েছেন, তার বাবাকে হত্যার সঙ্গে সরাসরি জড়িত ছিল এই নিজামী। বাবা না থাকায় তারা ঠিকমতো লেখাপড়াও করতে পারেনি। তাই নিজামীর লাশ সাঁথিয়ায় কবর দেয়া হলে তার বাবার মতো শত শত শহীদের আত্মা শান্তি পাবে না বলে তিনি জানান।

পাবনা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিব নরঘাতক নিজামীর লাশ পাবনার মাটিতে দাফন না করার হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে জানিয়েছেন, গণমানুষের দাবি উপেক্ষা করে নরঘাতক মতিউর রহমান নিজামীর লাশ পাবনায় দাফন করার সিদ্ধান্ত নেয়া হলে যে কোন অপ্রীতিকর পরিস্থিতির জন্য সংশ্লিষ্টারা দায়ী থাকবেন।

এদিকে, যে কোন অনাকাক্সিক্ষত পরিস্থিতি মোকাবেলায় পাবনা পুলিশ প্রশাসন ব্যাপক তৎপর রয়েছে। মঙ্গলবার বিশেষ অভিযান চালিয়ে পুলিশ জামায়াত-শিবিরের ৬৩ নেতাকর্মীকে আটক করেছে। সূত্র জানায়, নাশকতার আশঙ্কায় চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও বিভিন্ন মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামিদের আটক করা হয়েছে। এছাড়া জেলার বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

চট্টগ্রামে নিরাপত্তা জোরদার ॥ স্টাফ রিপোর্টার চট্টগ্রাম অফিস থেকে জানান, যুদ্ধাপরাধী মতিউর রহমান নিজামীর ফাঁসি কার্যকরকে কেন্দ্র করে চট্টগ্রামে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। নগরীর দুটি প্রবেশদ্বারসহ প্রায় ৮০ স্পর্শকাতর স্থানে পুলিশী নিরাপত্তা বলয় গড়ে তোলা হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল থেকেই এসব স্পটে গাড়িসহ দেহ তল্লাশি চালায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: