১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

শিষ্যদের সতর্কবার্তা রানিয়েরির


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ গত সপ্তাহেই শিরোপা নিশ্চিত হয়ে যায়। তবে শনিবার এভারটনকে হারিয়ে স্পর্শ পায় তার। ক্লাব ইতিহাসের ১৩২ বছরের মধ্যে প্রথমবারের মতো প্রিমিয়ার লীগ শিরোপা জয়ের পর উচ্ছ্বাসের জুয়ারে ভাসছে এখন পুরো লিচেস্টার শিবির। এই মহূর্তে তারকা ফুটবলার জেমি ভার্ডি-রিয়াদ মাহরেজদের দলে রাখাটাই এখন বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে লিচেস্টার সিটির জন্য। তবে আশাবাদী ক্লাবটির অভিজ্ঞ কোচ ক্লদিও রানিয়েরি। এখনই ক্লাব না ছাড়তে সতর্কবার্তাও দিয়ে দিয়েছেন তিনি।

এ বিষয়ে এক সাক্ষাতকারে লিচেস্টার সিটির কোচ ক্লদিও রানিয়েরি বলেন, ‘আমি উপভোগ করতে চাই। তবে আমার পক্ষে এটাও সম্ভব বলে মনে হয় যে, দলের সব খেলোয়াড়কেই রাখতে পারবো। এটা আমাদের জন্য যেমন গুরুত্বপূর্ণ তেমনি খেলোয়াড়দের জন্যও। কেননা তারা এর আগে তো চ্যাম্পিয়ন্স লীগ সম্পর্কে জানতো না। তাই তারা যদি চলে যায় তাহলে তাদের জন্যই বিষয়টি ভাল হবে না। বরং এখানে থেকেই যদি আরও এক বছর নিজেদের উন্নতি করে সেটাই হবে তাদের জন্য ভাল খবর। তবে আমি এটা অনেকবারই বলেছি যে, তোমরা আমার কাছে আস এবং চলে যাওয়ার কথা বল কোন সমস্যা নেই।’

ক্লদিও রানিয়েরি যে পারেন তা আর নতুন করে বলার কিছু নেই। লিচেস্টার সিটির দায়িত্ব নিয়েই রানিয়েরি ঘোষণা করেছিলেন দলকে নিয়ে যেতে চান ইপিএলের সেরা ৫ ক্লাবের তালিকায়। অভিজ্ঞ ইতালিয়ান কোচের এই বক্তব্য তখন হাসির খোরাক জুগিয়েছিল অনেক ফুটবলবোদ্ধার। কিন্তু এসব কিছ্ইু এখন ইতিহাস। কারণ শীর্ষ ৫ নয়, ইপিএলের শ্রেষ্ঠত্বের শিরোপা এখন লিচেস্টার সিটির ঘরে। তবে ইতিহাস রচনা করলেও পা মাটিতেই রাখতে চান রানিয়েরি। ইতিহাস গড়তে সব সময়ই পাশে থাকার জন্য সমর্থকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন তিনি। এ বিষয়ে রানিয়েরি বলেন, ‘খারাপ সময়ও আমাদের সাথে থাকার জন্য সমর্থকদের অনেক ধন্যবাদ। তাদের নিঃস্বার্থ সমর্থন আমাদের শিরোপা জিততে প্রেরণা দিয়েছে। সেই সাথে কর্ণধারকেও ধন্যবাদ আমাদের ওপর আস্থা রাখার জন্য। তিনি সব সময় জয়ের জন্য সব ধরনের সাহায্য ও স্বাধীনতা দিয়েছিলেন।’ শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে, ডাকআউটে কিভাবে এতটা নির্ভার থাকেন রানিয়েরি? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমি অনুভূতির উর্ধে নই।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: