মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
১৯ আগস্ট ২০১৭, ৪ ভাদ্র ১৪২৪, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

মিরপুরে অগ্নিদগ্ধ রোকনুজ্জামানের মৃত্যু ॥ অগ্নিদগ্ধ স্ত্রী এখনও হাসপাতালে

প্রকাশিত : ১০ মে ২০১৬, ০৫:০৬ পি. এম.

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীর মিরপুরে দাম্পত্য কলহের জের ধরে অগ্নিদগ্ধ শেখ রোকনুজ্জামান (৪৭) অবশেষে মারা গেছে। সোমবার রাত ১২টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এর এ ঘটনায় অগ্নিদগ্ধ তার স্ত্রী আকলিমা (২৪) অবস্থা উন্নতির দিকে। বার্ন ইউনিটের আবাসিক সার্জন ডাঃ পার্থ শংকর পাল জানান, রোকনুজ্জামানের শরীর ৫০ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল। আর তার স্ত্রী আকলিমার শরীরের ৪ শতাংশ পুড়েছে।

নিহত রোকনুজ্জামানের বাবার নাম শেখ হারেস উদ্দিন। গ্রামের বাড়ি খুলনা জেলার রূপসা উপজেলায়। আর তার স্ত্রী আকলিমার বাবার নাম খলিলুর রহমান। গ্রামের বাড়ি টাঙ্গাইল সদরে।

পুলিশ জানান, রবিবার সকালে সাড়ে ৭টার দিকে মিরপুরের শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে দিয়াবাড়ি এলাকার বাসিন্দা শেখ রোকনুজ্জামান স্ত্রীর গায়ে আগুন দেয়ার পর নিজের গায়েও আগুন লাগিয়ে আত্মত্যার চেষ্টা চালায়। পরে স্থানীয় লোকজন আগুন নিভিয়ে তাদেরকে অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। দু’দিন মৃত্যুর সঙ্গে লড়ে সোমবার রাত ১২টার দিকে রোকনুজ্জামানের মৃত্যু হয়। নিহতের আকলিমা খাতুন জানান, সাড়ে তিন বছর আগে তাদের বিয়ে হয়। তাদের দুই বছর বয়সী একটা ছেলে সন্তান রয়েছে। তারা মিরপুর ১ নম্বর সেকশনের দিয়াবাড়ি সিটি কলোনির ভেতরে ভাড়া থাকেন। তিনি জানান, ৪-৫ মাস ধরে তার স্বামী কোন কাজকর্ম করেন না। আকলিমা একটা গার্মেন্টসে চাকরি করেন। তার আয়ে সংসার চলে। কাজকর্ম নিয়ে তার স্বামীর সঙ্গে প্রায়ই ঝগড়া হতো। এরই জের ধরে সেদিন রবিবার সকালে তিনি (আকলিমা) যখন বুদ্ধিজীবী কবরস্থানের ভেতর দিয়ে কাজে যাচ্ছিলেন। এ সময় স্বামী বোতলে থাকা পেট্রোল তার গায়ে ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন। এরপর নিজের গায়ে আগুন দেন রোকনুজ্জামান। এ সময় আশপাশের লোকজন ছুটে এসে পানি দিয়ে আগুন নিভিয়ে তাদের ঢামেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে নিয়ে আসেন।

এদিকে মৃত্যুর আগে রোকনুজ্জামানের অভিযোগ করেন, তার স্ত্রীর অন্য কারও সঙ্গে সম্পর্ক আছে। তিনি তাকে ভাল হতে বললেও আকলিমা ভাল হয়নি। এ কারণে আত্মহত্যার জন্য নিজের গায়ে আগুন দিয়ে তার স্ত্রীকে জড়িয়ে ধরেন তিনি। তিনি আকলিমার গায়ে আগুন দেননি। তার আরও একটা স্ত্রী আছে। তিনি নারায়ণগঞ্জে থাকেন। দারুস সালাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেলিমুজ্জামান জানান, দাম্পত্য কলহের জেরে এ ঘটনা ঘটেছে। আতœহত্যা চেষ্টাকারী অগ্নিদগ্ধ রোকুজ্জামান মারা গেছে।

প্রকাশিত : ১০ মে ২০১৬, ০৫:০৬ পি. এম.

১০/০৫/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

জাতীয়



শীর্ষ সংবাদ: