১৯ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট পূর্বের ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

পুঁজিবাজার উন্নয়নে সুশাসন নিশ্চিত করতে হবে


অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ পুঁজিবাজারের উন্নয়ন করতে হলে তালিকাভুক্ত কোম্পানি, মার্চেন্ট ব্যাংক, ব্রোকার হাউস, এ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানিসহ সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোর সুশাসন শতভাগ নিশ্চিত করতে হবে। একই সঙ্গে নিয়ন্ত্রক সংস্থাগুলোকে একত্রে কাজ করতে হবে। তা না হলে পুঁজিবাজারে বিনিয়োগকারীদের আস্থা ফিরে আসবে না। সোমবার বেসরকারী মেঘনা ব্যাংকের তৃতীয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় ব্যাংকটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ নূরুল আমিন এসব কথা বলেন।

নূরল আমিন বলেন, বর্তমানে পুঁজিবাজারে একটি মন্দা অবস্থা বিরাজ করছে। এ কারণে নতুন প্রজন্মের ব্যাংকগুলো বাজারে আসতে সাহস পাচ্ছে না। পুঁজিবাজারে শতভাগ সুশাসন নিশ্চিত করা গেলে এটি মানুষের বিনিয়োগের বিকল্প হতে পারবে।

অন্যদিকে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের পরিচালক শাকিল রিজভী মনে করেন, পুঁজিবাজারকে স্বাধীনভাবে চলতে দেয়া উচিত। বাজার তার আপন শক্তিতেই টিকে থাকবে। কারণ অতি তৎপরতার দরকার নেই। শুধুমাত্র বিনিয়োগকারীদের বোঝাতে হবে, বাজারে বিনিয়োগ করলেও ভাল মুনাফা পাওয়া সম্ভব। কারণ ব্যাংকের আমানতের সুদের হারের চেয়ে তালিকাভুক্ত অনেক প্রতিষ্ঠানেরই অর্জিত লভ্যাংশ বিতরণের হার বেশি। সেই হিসাবে শুধুমাত্র পরিবেশ থাকলেই বিনিয়োগকারীরা আসবে।

তিনি মনে করেন, কিছু প্রতিষ্ঠানের হয়ত বাড়তি কিছু বিনিয়োগ রয়েছে। তবে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে আরও বেশি তারল্য রয়েছে। তাই আস্থা ফিরিয়ে আনলেই বাজারে আবারও বিনিয়োগকারী আসতে শুরু করবে। তিনি বাজারে গতিশীলতা বাড়াতে ভাল কিছু কোম্পানির তালিকাভুক্তির প্রয়োজনীয়তার কথা তুলে ধরেন। শাকিল রিজভী বলেন, গত কয়েক বছরে নানা টানাপোড়েন থাকলেও তালিকাভুক্ত বহুজাতিক কোম্পানিগুলোর দর ও লভ্যাংশ প্রদানের হার বাড়ছে। সেই সঙ্গে কোম্পানির টার্নওভারও বাড়ছে। তিনি বলেন, বাজারে কোম্পানিগুলোকে তালিকাভুক্ত করতে

সরকারের উদ্যোগ নেয়া উচিত। সেই সঙ্গে বীমা খাতের সরকারী কোম্পানি জীবন ও সাধারণ বীমা কর্পোরেশনের শেয়ার ছাড়ারও আহ্বান জানান তিনি।