২৫ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৪ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

কাঁচা আমের রকমারি আচার


আম-পেঁয়াজের ঝুরি আচার

যা লাগবে : কাঁচা আমের ঝুরি এক কাপ, পেঁয়াজ কুচি এক কাপ, জিরা গুঁড়া দুই চা-চামচ, কালো জিরা গুঁড়া আধা চা-চামচ, সরষের গুঁড়া এক টেবিল-চামচ, মরিচের গুঁড়া দুই চা-চামচ, সরিষার তেল আধা কাপ ও লবণ পরিমাণমতো।

যেভাবে করবেন : আমের ঝুরি এবং পেঁয়াজের কুচি আলাদাভাবে একদিন রোদে ভালভাবে শুকিয়ে নিতে হবে। পরেরদিন বাকি সব উপকরণগুলো দিয়ে, ভালভাবে হাত দিয়ে মাখিয়ে বোতলে ভরে কযয়েক দিন রোদে দিতে হবে।

আম-রসুনের আচার

যা লাগবে : খোসা ছাড়া কাঁচা আমের টুকরা দুই কাপ, সরিষার তেল এক কাপ, রসুনছেঁচা এক কাপ, মেথি এক টেবিল-চামচ, মৌরি এক টেবিল-চামচ, জিরা এক টেবিল-চামচ, কালো জিরা দুই চা-চামচ, সিরকা আধা কাপ, হলুদ গুঁড়া দুই চা-চামচ, শুকনা মরিচ ১০-১২টি, চিনি দুই টেবিল-চামচ ও লবণ পরিমাণমতো।

যেভাবে করবেন : আমের টুকরোগুলোতে লবণ মাখিয়ে একরাত রেখে দিতে হবে। পরের দিন ধুয়ে কয়েক ঘণ্টা রোদে দিতে হবে। রেসিপির সব মসলা মিহি করে বেটে নিতে হবে। এরপর চুলায় সসপ্যানে তেল দিয়ে বসাতে হবে। তেল গরম হলে রসুন দিয়ে কিছুক্ষণ নাড়িয়ে, তারপর বাটা মসলা দিয়ে নাড়তে হবে। এবার আম দিয়ে নাড়িয়ে নিতে হবে। কিছুক্ষণ রান্না করার পর আম নরম হলে, চিনি দিয়ে নাড়িয়ে নামাতে হবে। এরপর আচার ঠাণ্ডা হলে বোতলে ভরে, বোতলের মুখ পর্যন্ত তেল দিয়ে ঢাকতে হবে। এরপর কয়েকদিন রোদে দিতে হবে।

টক-ঝাল-মিষ্টি আমের আচার

যা লাগবে : কাঁচা আম ১ কেজি, সিরকা আধা কাপ, সরিষার তেল এক কাপ, রসুন বাটা দুই চা-চামচ, আদা বাটা দুই চা-চামচ, হলুদ গুঁড়া দুই চা-চামচ, চিনি তিন টেবিল-চামচ ও লবণ পরিমাণমতো।

মসলার জন্য, মেথি গুঁড়া এক চা-চামচ, জিরা গুঁড়া দুই চা-চামচ, মৌরি গুঁড়া এক চা-চামচ, রাঁধুনি গুঁড়া দুই চা-চামচ, সরষে বাটা তিন টেবিল-চামচ, শুকনা মরিচ গুঁড়া দুই টেবিল-চামচ, কালো জিরা গুঁড়া এক চা-চামচ।

যেভাবে করবেন : খোসাসহ কাঁচা আম টুকরো করে লবণ দিয়ে মেখে একরাত রেখে দিতে হবে। পরের দিন ধুয়ে আদা, হলুদ, রসুন মাখিয়ে কিছুক্ষণ রোদে রাখুন। এরপর সসপ্যানে আধা কাপ তেল দিয়ে আমগুলো নাড়া-চাড়া করতে থাকুন, গলে গেলে নামিয়ে ফেলুন। অন্য একটি সসপ্যানে বাকি তেল দিয়ে চিনিটা গলিয়ে ফেলুন। কম আঁচে চিনি গলে গেলে সব মসলা দিয়ে (মৌরি, মেথি গুঁড়া ছাড়া) আম কষিয়ে নিতে হবে। আম গলে গেলে মৌরি গুঁড়া, মেথি গুঁড়া দিয়ে নামিয়ে ফেলতে হবে।

কাশ্মীরি আচার

যা লাগবে : কাচাঁ আম ১ কেজি ( আটি বাধা ), ভিনেগার আধ কাপ, চিনি ১ কেজি, আদা সøাইস ১ চা চামচ, শুকনা মরিচ কুচি ৮-১০ টি

যেভাবে করবেন : আম খোসা ছাড়িয়ে লম্বা ফালি করে পানিতে ৫-৬ ঘন্টা ভিজিয়ে রাখতে হবে। এরপর পানি ঝড়িয়ে ফেলতে হবে। প্যানে চিনি, সিরকা, আদা, মরিচ, লবন জাল দিতে হবে। সিরা ঘন হয়ে এলে এবং আম সিদ্ধ হয়ে গেলে নামিয়ে নিতে হবে। ঠান্ডা করে নিয়ে পরিস্কার বয়ামে রাখতে হবে।

খোসাসহ আমের আচার

যা লাগবে : দুই বাটি টুকরো কাঁচা আম। হলুদ গুঁড়া এক চা চামচ, লংকা গুঁড়া এক চা চামচ, সরষে বাটা এক চা চামচ, চিনি আধা কাপ, লবণ দুই চা চামচ, পাঁচফোড়ন এক চা চামচ, রসুন বাটা এক চা চামচ, সিরকা দুই টেবিল চামচ, সরষের তেল এক কাপ।

যেভাবে করবেন : একটি কড়াইয়ে তেল দিয়ে পাঁচফোড়ন ভেজে তাতে একে একে রসুন বাটা, লঙ্কা, হলুদ, লবণ ও একটু সিরকা দিয়ে কষিয়ে নিন। কাঁচা আমগুলো ঢেলে ৫ মিনিট কষিয়ে চিনি দিয়ে অল্প আঁচে ৩০ মিনিট সিদ্ধ হতে দিন। আমগুলো সিদ্ধ হয়ে তেল ওপরে উঠে এলে তা নামিয়ে ঠাণ্ডা করে বয়ামে তুলে রাখুন।

আমের মোরব্বা

যা লাগবে : কাঁচা আম ১ কেজি, চিনি দেড় কেজি, পানি ১ লিটার, ছোট এলাচ গুঁড়া ১ চা চামচ, হলুদ পরিমাণমতো।

যেভাবে করবেন : আমের খোসা ছাড়িয়ে মাঝখান থেকে লম্বাভাবে অর্ধেক করে কাটুন। তারপর কাটা চামচ দিয়ে ফুটো করে নিন। আমের টুকরোগুলো অল্প পানি দিয়ে সিদ্ধ করে নরম করে নিন। পানি একেবারে ঝরিয়ে নিন। আরেকটি পাত্রে চিনি ও এক লিটার পানি ফুটিয়ে ঘন করে সিরা তৈরি করুন। সিরা নামিয়ে সেই গরম সিরা সিদ্ধ আমের টুকরোগুলোতে ঢেলে দিন। তিন দিন আমগুলোকে এভাবে রেখে দিন। তিন দিন পর আমের টুকরোগুলো সিরা থেকে বের করে নিন। এরপর সিরাটা আবার ১০ মিনিট ধরে ফোঁটাবেন। সিরা একেবারে ঘন করে আগুন থেকে নামিয়ে আবার আমের টুকরোগুলোর ওপর সিরা দিয়ে দিন। ব্যাস হয়ে গেল আমের মোরব্বা। এবার ঠা-া করে বয়ামে ভরে রোদে রেখে দিন অথবা ফ্রিজে রাখুন। অনেক দিন পর্যন্ত ভাল থাকবে মজাদার আমের মোরব্বা।