১৯ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

গাইবান্ধায় সংঘর্ষে নিহত এক ॥ ইউএনওসহ আহত ৩০


নিজস্ব সংবাদদাতা, গাইবান্ধা, ৮ মে ॥ সাদুল্যাপুর উপজেলার ধাপেরহাট ইউনিয়নে আ’লীগের বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী রফিকুল ইসলাম নওশার কর্মী-সমর্থকদের সঙ্গে পুলিশ, বিজিপি আনসারের সংঘর্ষে এক জন নিহত ও ইউএনও, এএসপি এবং ওসিসহ ৩০ জন আহত হয়েছে। ধাপেরহাট বন্দরের ফাইভ স্টার মোড় এলাকায় শনিবার রাত ৯টায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত লেবু ম-ল (৩২) স্থানীয় রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের ৪র্থ শ্রেণীর কর্মচারী ও পার্শ্ববর্তী রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলা জামদানি গ্রামের ওদুল কাদের ম-লের ছেলে। আহতরা হলেন, ভারপ্রাপ্ত ইউএনও আবু রায়হান দোলন, এএসপি রবিউল ইসলাম, ওসি ফরহাদ ইমরুল কায়েসসহ কমপক্ষে ৩০ জন। এ ব্যাপারে ১৫০ জনকে আসামি করে ৩টি মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং ১৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়।

কুমিল্লায় কর্মী নিহত

নিজস্ব সংবাদদাতা, চাঁদপুর থেকে জানান, শাহরাস্তি উপজেলার রায়শ্রী দক্ষিণ ইউনিয়নে মেম্বার প্রার্থীর পক্ষে কাজ করতে গিয়ে প্রতিপক্ষের হামলায় গুরুতর আহত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পৌর এলাকার জামাল হোসেন (২৪) নিহত হয়েছেন। রবিবার সকাল ১০টায় কুমিল্লা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। জামাল হোসেন শাহরাস্তি পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের নিজ মেহের কাজির কামতা এলাকার শহীদ উল্যাহ মিজির ছেলে।

কুড়িগ্রাম

স্টাফ রিপোর্টার, কুড়িগ্রাম থেকে জানান, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় চার ইউনিয়নে ১০ জন আহত হয়েছে। এদের মধ্যে ২ জনকে গুরুতর অবস্থায় রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ জানায়, ফলাফল প্রকাশের পর রাতে সদরের যাত্রাপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডে সদস্যপদে পরাজিত প্রার্থীরা নির্বাচিত প্রার্থী ও সমর্থকদের বাড়িতে হামলা চালিয়ে চারজনকে গুরুতর আহত করে।

নরসিংদী

নিজস্ব সংবাদদাতা, নরসিংদী থেকে জানান, নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় রায়পুরা উপজেলার দুর্গম চর এলাকা নিলক্ষা ইউনিয়নের বীরগাঁও ও চরআড়ালিয়া ইউনিয়নের বাঘাইকান্দি গ্রামে পৃথক ঘটনায় চারজন আহত এবং ১০ বাড়িঘর ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে। এলাকাবাসী জানায়, রবিবার সকাল ১০টায় বীরগাঁও পশ্চিমপাড়ায় পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী আবদুল হক সরকারের সমর্থক আনোয়ার হোসেন সরকার, মোস্তফা মিয়া ও সোহরাবকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুতর জখম করেছে আওয়ামী লীগ সমর্থিত বিজয়ী চেয়ারম্যান প্রার্থী তাজুল ইসলামের সমর্থকরা।

নড়াইল

নিজস্ব সংবাদদাতা নড়াইল থেকে জানান, সিঙ্গাশোলপুর ইউনিয়নে স্বতন্ত্র পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী খায়রুজ্জামান খায়ের সমর্থকদের হামলায় অপর পরাজিত নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর কমপক্ষে ২০ সমর্থক আহত হয়েছে। আহতদের নড়াইল ও খুলনা মেডিক্যাল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

কালকিনি

নিজস্ব সংবাদদাতা, কালকিনি (মাদারীপুর) থেকে জানান, কয়ারিয়া এলাকায় বিজয়ী বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী কামরুল হাসান নুরমোহাম্মদের সমর্থকরা পরাজিত আওয়ামী লীগ প্রার্থীর সমর্থকদের ওপর হামলা ও বাড়িঘড় ভাংচুর করেছে।