মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১১ আশ্বিন ১৪২৪, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

মা দিবসে মাকে খুন

প্রকাশিত : ৯ মে ২০১৬

স্টাফ রিপোর্টার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ॥ আন্তর্জাতিক মা দিবসের দিনে এক হতভাগী গর্ভধারিণীকে খুন হতে হলো তারই ছেলের হাতে! রবিবার সকালে পৌর এলাকার উত্তর পৈরতলায় এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা জানান, পৈরতলা গ্রামের জোনাব আলীর ছেলে ওয়াস্করনি মিয়ার ৩ স্ত্রী। এদের মধ্যে ছোট স্ত্রী শনিবার বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। ছেলের ধারণা, মায়ের কারণে তার স্ত্রী পালিয়েছে। এনিয়ে সকালে মায়ের সঙ্গে ছেলে ওয়াস্করনি বাগ্বিত-ায় লিপ্ত হয়। এক পর্যায়ে উত্তেজিত পাষ- ছেলে মায়ের ওপর হামলা চালায়। এতে মা আনোয়ারা বেগমের মৃত্যু ঘটে। ঘটনার পর পরই ছেলে পালিয়ে যায়। সদর থানার পুলিশ জানায়, তদন্তসাপেক্ষে বিষয়টি উদঘাটন করা হবে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

সন্তান হত্যার বিচার চাইলেন এক মা ॥ স্টাফ রিপোর্টার জানান, মা দিবসে সন্তান হত্যার বিচার চাইতে এক বুক আশা নিয়ে যশোর থেকে ঢাকায় এসেছেন এক হতভাগী মা। তার দৃঢ় বিশ্বাস গ্রামে বসে থাকলে বিচার মিলবে না। তাই ঢাকায় জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজন করেন এক সংবাদ সন্মেলনের। সাংবাদিকদের সামনে অশ্রুসিক্ত নয়নে তিনি বলেন, ‘কেন আমার কলিজার টুকরো সবুজকে হারালাম? কি দোষ ছিল তার? কোন অপরাধে তাকে খুন করা হলো। এখনও কিভাবে ঘুরে বেড়ায় খুনীরা?

যশোর মনিরামপুর বাঁকড়া কলেজের ছাত্র সবুজ হোসেনের হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও বিচার চেয়ে এভাবেই প্রশ্নের পর প্রশ্ন রাখেন হতভাগী মা মর্জিনা বেগম। রবিবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

এ সময় মর্জিনা বেগম বলেন, হত্যাকা-ের ৫ মাস পেরিয়ে গেলেও পুলিশ আমার বুকের ধন সবুজ হত্যায় জড়িতদের গ্রেফতার করেনি। যদিও হত্যাকারীরা প্রকাশ্যেই ঘুরে বেড়াচ্ছে। হত্যার ষড়যন্ত্রের সঙ্গে জড়িতদের আড়াল করতেই পুলিশ হত্যাকারীদের গ্রেফতার করছে না।

প্রকাশিত : ৯ মে ২০১৬

০৯/০৫/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



শীর্ষ সংবাদ: