১৭ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

পুঁজিবাজারে সূচক বেড়েছে


অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ বড় ধরনের দরপতনের পরদিনই মঙ্গলবার দেশের উভয় স্টক এক্সচেঞ্জে সূচক উত্থানের মধ্য দিয়ে লেনদেন শেষ হয়েছে। এদিন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) প্রধান সূচক বেড়েছে ৯ পয়েন্ট। ৩০৩ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আর চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) প্রধান সূচক বেড়েছে ৩৪ পয়েন্ট। উভয় স্টক এক্সচেঞ্জ সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।

বাজার সংশ্লিষ্টদের মতে, গত কিছুদিন ধরেই পুঁজিবাজারে তারল্য প্রবাহ কমতে থাকে। এছাড়া টানা দরপতনও ঘটেছে। এই কারণে মঙ্গলবারে বিকেলে শীর্ষ ব্রোকারেজ হাউসদের সঙ্গে জরুরি বৈঠক করে প্রধান বাজার ঢাকা স্টক একচেঞ্জ (ডিএসই)। এই বৈঠকের ভিত্তিতেই আগামীতে বাজারে আস্থা ফেরাতে পদক্ষেপ নেবে সংস্থাটি। এমন আশাবাদ ছড়িয়ে পড়ার কারণেই দিনটিতে বেশিরভাগ কোম্পানির দর ও সূচক বাড়ে।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, সকালে দরবৃদ্ধির প্রবণতা দিয়ে শুরুর পরে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৩০৩ কোটি ১ লাখ টাকার শেয়ার। আগের কার্যদিবসে এ বাজারে লেনদেন হয়েছিল ২৯৭ কোটি ৯১ লাখ টাকার শেয়ার। সকালে বেশিরভাগ কোম্পানির দর বাড়ার কারণে সূচকেরও উর্ধগতি দেখা গিয়েছিল। কিন্তু কিছুক্ষণ পরেই সূচক কিছুটা কমে যায়। এরপরও আবার সূচক কিছুটা বাড়ে। দিনশেষেও যা অব্যাহত থাকে। দিনশেষে ডিএসইর সার্বিক সূচক বা ডিএসই এক্স সূচক ৯ পয়েন্ট বেড়ে ৪ হাজার ৩১২ পয়েন্টে অবস্থান করছে। ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ১ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে এক হাজার ৪৬ পয়েন্টে। আর ডিএস৩০ সূচক ৪ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৬৩২ পয়েন্টে।

ডিএসইতে মোট লেনদেনে অংশ নিয়েছে ৩১৭টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৬৬টি কোম্পানির। আর দর কমেছে ৯১ টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৬০টির। এদিকে ঢাকার বাজারে সূচক ও লেনদেন বাড়ার দিনে পিছিয়ে ছিল না অপর বাজারও। দিনশেষে সিএসইতে ২০ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এদিন সিএসই সার্বিক সূচক ৩৪ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১৩ হাজার ৩০২ পয়েন্টে। সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২৩৫টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ড। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১০১টির, কমেছে ৯৪টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪০টির।