মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১০ আশ্বিন ১৪২৪, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

৪৪ বছরেও বাঘইলের বদ্ধভুমিতে স্মৃতি সৌধ নির্মাণ করা হয়নি

প্রকাশিত : ২৯ মার্চ ২০১৬, ০২:২৩ পি. এম.

স্টাফ রির্পোটার, ঈশ^রদী ॥ আগামিকাল (বুধবার) ঈশ^রদীর পাকশী ইউনিয়নের বাঘইল পূর্বপাড়ায় কিয়ামউদ্দিন মুক্ত দিবস পালিত হবে । বাঘইলের কৃতি সন্তান,মৃদুভাষি ও সমাজসেবক মরহুম কিয়ামউদ্দিনের যোগ্য ছেলে বিশিষ্ঠ ব্যবসায়ী রবিউল ইসলামের পক্ষ থেকে নিজ বাড়িতে মিলাদ ও দোওয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে । প্রতি বছর এইদিনে মরহুমের বাড়িতে মিলাদ ও দোওয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয় ।

কিয়ামউদ্দিনের ছেলে ব্যবসায়ী রবিউল ইসলাম ও প্রত্যক্ষদর্শী এলাকাবাসীরা জানান, মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে ১৯৭১ সালের মার্চ মাসের ৩০ তারিখ (বুধবার) বিকালে কয়েকজন রাজাকারের সহায়তায় পাকবাহিনীর একটি দল ট্রেনযোগে ঈশ^রদী-পাকশী রুটে রওনা দেয় । মাঝপথে শহীদ এলাহী বক্সের(স্বর্ণকার) বাড়ির সামনে হঠাৎ করে ট্রেনটি থামিয়ে দেয় । পাকবাহিনী ও রাজাকাররা ট্রেন থেকে ঝুপঝুপ করে নেমে বাঘইল পূর্ব পাড়ায় ঢুকে পড়ে । নিজ নিজ বাড়ি ও বাড়ির আসপাশ থেকে মৃত সৈয়দ আলী সরদারের বড় ছেলে শহীদ উম্মেদ আলী ওরফে বড় গেদু, হাবিবুর রহমান হাবু ও আব্দুস সাত্তার আলীসহ ৭ জনকে এলাকার সমাজ সেবক মরহুম মোহাম্মদ আলী সরদারের কৃষি জমিতে লাইনে দাঁড় করে ব্রাশ ফায়ারে হত্যা করে পাকবাহিনীর সদস্যরা । একই সময় মাত্র পাঁচ ফুট দুরে রেলওয়ে পাকশী বিভাগীয় ডিসিও অফিসের উচ্চমান সহকারী ,বাঘইলের কৃতি সন্তান,মৃদুভাষি ও সমাজসেবক মরহুম কিয়ামউদ্দিনকে পাকবাহিনীর মেজর আলাদা করে দাঁড় করিয়ে স্টেনগানের ট্রেগারে চাপ দেয় । কিন্তু বিধি বাম ! স্টেনগানের ট্রেগার নষ্ট হওয়ায় গুলি ফোটেনা । মৃত্যু নিশ্চিত ভেবে কিয়ামউদ্দিন তখন মারাতœক ঝুঁকি নিয়ে সর্বোচ্চ গতিতে দৌঁড় দিয়ে পালাতে গিয়ে সবুর মিস্ত্রীর বাড়ির পাঠখড়ির বেড়াতে পড়ে যান । এসময় পাকবাহিনী আবারও তাকে লক্ষ্য করে এলোপাথারী গুলি ছুঁড়তে থাকে । কিন্তু তার গায়ে গুলি না লাগায় সে আবারও দৌঁড়ে পালিয়ে গিয়ে প্রাণে রক্ষা পেলেও মারাতœক অসুস্থ হয়ে পড়েন । দীর্ঘদিন অসুস্থ থাকার পর তিনি গত ২০০৮ সালের ৩ আগস্ট তারিখে মৃত্যু বরণ করেন । এদিকে স্বাধীনতার ৪৪ বছর পার হলেও বাঘইলের ঐ বদ্ধ ভুমি চি‎িন্নত করণ এবং ঐ বদ্ধভুমিতে কোন স্মৃতি সৌধ নির্মাণ না করায় কিয়ামউদ্দিনের পরিবার ও এলাকাবাসীর মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্ঠি হয়েছে । এবিষয়ে মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রনালয় ও প্রধানমন্ত্রীর আশু হস্তক্ষেপ কামনা করা কেরেছে এলাকাবাসি।

প্রকাশিত : ২৯ মার্চ ২০১৬, ০২:২৩ পি. এম.

২৯/০৩/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



শীর্ষ সংবাদ: