২৫ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৮ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

নিজামীর ফাঁসির রায় পুনর্বিবেচনায় আজ রিভিউ আবেদন


স্টাফ রিপোর্টার ॥ একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে মৃত্যুদ-প্রাপ্ত জামায়াতের নায়েবে আমির মতিউর রহমান নিজামী আপীল বিভাগের ফাঁসির রায় পুনর্বিবেচনা চেয়ে আজ মঙ্গলবার রিভিউ আবেদন করবেন। সোমবার সাংবাদিকদের এ কথা জানান নিজামীর ছেলে ব্যারিস্টার নাজীব মোমেন। এদিকে একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় গ্রেফতারকৃত হবিগঞ্জের দুই সহোদর মহিবুর রহমান ওরফে বড় মিয়া, মুজিবুর রহমান ওরফে আঙ্গুর মিয়া ও আব্দুর রাজ্জাকের বিরুদ্ধে প্রসিকিউশনের ১২ নম্বর সাক্ষী মামলার তদন্ত কর্মকর্তা নুর হোসেন জবানবন্দী প্রদান করেছেন। আসামি পক্ষের আইনজীবীর জেরার জন্য আজ মঙ্গলবার দিন নির্ধারণ করা হয়েছে। চেয়ারম্যান বিচারপতি আনোয়ারুল হকের নেতৃত্বে তিন সদস্যবিশিষ্ট আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ সোমবার এ আদেশ প্রদান করেছেন।

মতিউর রহমান নিজামী আপীল বিভাগের ফাঁসির রায় পুনর্বিবেচনা চেয়ে আজ মঙ্গলবার রিভিউ আবেদন করবেন। আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের দেয়া মৃত্যুদ- বহাল রেখে গত ৬ জানুয়ারি নিজামীর মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলার সংক্ষিপ্ত আকারে চূড়ান্ত রায় দেয় আপীল বিভাগ। রায়ে বুদ্ধিজীবী হত্যাসহ একাত্তরে গণহত্যা ও ধর্ষণের দায়ে আলবদর বাহিনীর শীর্ষনেতা নিজামীর সর্বোচ্চ সাজা বহাল রাখা হয়। গত ১৫ মার্চ ১৫৩ পৃষ্ঠার পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ করে সর্বোচ্চ আদালত। রায়টি রাতেই বিচারিক আদালতে গেলে মৃত্যু পরোয়ানা জারি করেন চেয়ারম্যান বিচারপতি মোহাম্মদ আনোয়ার উল হক এবং বিচারিক প্যানেলের সদস্য বিচারপতি শাহিনুর ইসলাম ও বিচারপতি মোহাম্মদ সোহরাওয়ার্দীর সমন্বয়ে গঠিত তিন সদস্যের ট্রাইব্যুনাল। এর পরপরই মৃত্যু পরোয়ানাসহ পূর্ণাঙ্গ রায় ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারসহ স্বরাষ্ট্র ও আইন মন্ত্রণালয়, ঢাকার ডিস্ট্রিক্ট ম্যাজিস্ট্রেট (জেলা প্রশাসক) কার্যালয়সহ সংশ্লিষ্টদের কাছে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে।

গত ১৬ মার্চ নিজামীর আইনজীবীরা কারাগারে তার সঙ্গে দেখা করেন। ওই দিন আপীল বিভাগের রায়ের বিরুদ্ধে রিভিউ (পুনর্বিবেচনার) আবেদন করার পরামর্শ দিয়েছেন।

তদন্ত কর্মকর্তার জবানবন্দী ॥ একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় গ্রেফতারকৃত হবিগঞ্জের দুই সহোদর মহিবুর রহমান ওরফে বড় মিয়া, মুজিবুর রহমান ওরফে আঙ্গুর মিয়া ও আব্দুর রাজ্জাকের বিরুদ্ধে প্রসিকিউশনের ১২ নম্বর সাক্ষী মামলার তদন্ত কর্মকর্তা নুর হোসেন জবানবন্দী প্রদান করেছেন। আসামি পক্ষের আইনজীবী তাকে জেরা করার জন্য মঙ্গলবার দিন নির্ধারণ করা হয়েছে। চেয়ারম্যান বিচারপতি আনোয়ারুল হকের নেতৃত্বে তিন সদস্যবিশিষ্ট আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ সোমবার এ আদেশ প্রদান করেছেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা জেরায় বলেন, আমি পুলিশ পরিদর্শক মোঃ নুর হোসেন। আমার বর্তমান বয়স আনুমানিক ৫০ বছর। আমি আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে তদন্ত সংস্থায় ২০১০ সাল থেকে তদন্তকারী কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত আছি। আমি এ মামলার তদন্ত করেছি।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: