মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১০ আশ্বিন ১৪২৪, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

এবার সেমির দিকে তাকিয়ে সবাই

প্রকাশিত : ২৯ মার্চ ২০১৬

মিথুন আশরাফ, কলকাতা থেকে ॥ ‘বিরাট কোহলি জাত ব্যাটসম্যান।’ -বিশ্বের সেরা ক্রিকেটারদের মধ্যে কোহলিকে নিয়ে এ কথা বলেননি, এমন কেউ নেই। পাকিস্তানের বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক ইমরান খান এ বিশ্বকাপেই পাকিস্তানের বিপক্ষে ভারতের ম্যাচ শেষে বলেছেন, ‘ওর (কোহলির) দুর্বলতা বের করা কঠিন!’ সঙ্গে যোগ করেছেন, ‘উইকেটের দুই দিকেই সে দারুণ। ফ্রন্ট ফুটে যেমন, ব্যাক ফুটেও একইরকম স্বাচ্ছন্দ্য। তার টেম্পেরামেন্ট, টেকনিকও দারুণ।’ সেই কোহলি যে আসলেই জাত ব্যাটসম্যান তা অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করার ম্যাচেই বুঝিয়ে দিয়েছেন। কী ব্যাটিংই না করলেন কোহলি! ১৬১ রান করে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৬ উইকেটে জেতে ভারত। এরমধ্যে অপরাজিত ৮২ রানই তার! পুরো দল করে ৭৯ রান। কোহলির চেয়েও ৩ রান কম। শুধু কী তাই, ৫১ বলে ৯ চার ও ২ ছক্কায় যে ইনিংসটি সাজিয়েছেন কোহলি; তাতে অসাধারণ সব স্ট্রোক, কবজির কারুকাজ, ব্যাট বলের মিস টাইমিং হওয়ার পরও বাউন্ডারির বাইরে বল যাওয়া, গেপ বের করে বাউন্ডারি হাঁকানো, স্কুপ মারা, সুইচ হিট করা ছিল। সব ধরনের নান্দনিক শটই খেলেছেন কোহলি। সবাইকে মুগ্ধ করে দিয়েছেন। কোহলির ইনিংসে ভর করেইতো ভারত সেমিফাইনালে উঠে গেল। এবার ভারতের শেষ চারে লড়াই করার পালা। বৃহস্পতিবার মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় সেমিফাইনালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে লড়াই করবে ভারত। ঠিক তার আগেরদিন বুধবার দিল্লীর ফিরোজ শাহ কোটলা স্টেডিয়ামে প্রথম সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি হবে ইংল্যান্ড। প্রথম সেমিফাইনাল বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে সাতটায় এবং দ্বিতীয় সেমিফাইনাল রাত আটটায় শুরু হবে।

এবার টি২০ বিশ্বকাপ হচ্ছে ভারতে। আর তাই সবাই ভারতকে চ্যাম্পিয়ন দল ধরে নিয়েছে। ‘কাগজ-কলমে’ই শুধু নয়, টি২০ সেরা দল এখন ভারত বলেই সেই আশা করা হয়েছে। কিন্তু শুরুতেই ধাক্কা খেয়েছে ভারত। তাও আবার এমন এক দলের কাছে, তারা বিশ্বকাপের আগে ‘কাগজ-কলমে’ বিদায় তালিকায় ছিল। সেই দলটি হচ্ছে নিউজিল্যান্ড। ‘সুপার টেনে’র প্রথম ম্যাচেই ধাক্কা খায় ভারত। নিউজিল্যান্ডের কাছে ৪৭ রানে হেরে যায়। এরপর থেকেই ভারতকে নিয়ে সবার ভেতর ভয় ঢুকে যায়। তাহলে কী সেমিফাইনালেও খেলতে পারবে না ভারত! পরের ম্যাচেই দলটি ঘুরে দাঁড়ায়। চির প্রতিদ্বন্দ্বী দল পাকিস্তানকে সামনে পেয়ে যেন আগ্রাসী হয়ে ওঠে। পাকিস্তানকে ৬ উইকেটে হারিয়ে দিয়ে এবার বিশ্বকাপে প্রথম জয় পায় ২০০৭ সালের প্রথম বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়নরা। তৃতীয় ম্যাচে এসে হারতে হারতে জিতে। বাংলাদেশের কাছে ১ রানের জয়টি তাদের জন্য যেন আশীর্বাদ হয়ে আসে। রবিবার অসিদেরও হারিয়ে দেয়। ‘গ্রুপ-২’ থেকে দ্বিতীয় সেরা দল হয়েই সেমিফাইনালে খেলা নিশ্চিত করে নেয়।

ভারতের প্রতিপক্ষ দল এবার ওয়েস্ট ইন্ডিজ। যে দলটিতে আছেন ক্রিস গেইলের মতো দানব ব্যাটসম্যান। যিনি দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে শুধু কবজির জোরে ছক্কা হাঁকাতে পটু। সেই গেইলের দল অবশ্য নিজেদের শেষ ম্যাচটিতে হোঁচট খায়। ২০১২ সালের চ্যাম্পিয়ন দলটি প্রথম ম্যাচেই ইংল্যান্ডকে ৬ উইকেটে হারিয়ে দেয়। এরপর শ্রীলঙ্কাকেও উড়িয়ে দেয়। ৭ উইকেটে জয় তুলে নেয়। দক্ষিণ আফ্রিকাকেও পাত্তা দেয়নি ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ৩ উইকেটে জিতে ‘গ্রুপ-১’ থেকে সবার আগে সেমিফাইনালে খেলা নিশ্চিত করে নেয়। কিন্তু শেষ ম্যাচে এসে আফগানিস্তানের কাছে ধরাশায়ী হয়। শেষ চারে খেলা নিশ্চিত করায় শেষ ম্যাচে হারানোর কিছু ছিল না ক্যারিবীয়দের। তাই বলে আফগানদের কাছে ৬ রানে হারবে দলটি! এ বিশ্বকাপের চমকই হয়ে থাকে এটি। যেখানে ইংল্যান্ড, শ্রীলঙ্কা, দক্ষিণ আফ্রিকার মতো দলকে পাত্তা দেয়নি; সেখানে এসে দুর্বল আফগানিস্তানের কাছে হার হয় ওয়েস্ট ইন্ডিজের। অনেকের মতে, এ হারটি প্রাপ্য ছিল। না হলে যে উড়ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। হুঁশ থাকত না সেমিফাইনালে। হোঁচট যা খাওয়ার খেয়ে নিয়েছে ক্যারিবীয়রা। আসলেই কী তাই? তা প্রমাণ হবে বৃহস্পতিবারই। স্বাগতিক দলের বিপক্ষে লড়াই। হুঁশ হলেও ঢুঁসও যে খাওয়ার ভয় আছে!

ওয়েস্ট ইন্ডিজ যে ইংল্যান্ডকে হারিয়ে শুভ সূচনা করেছে, সেই ইংল্যান্ডই ‘গ্রুপ-১’ থেকে দ্বিতীয় দল হিসেবে সেমিফাইনালে উঠেছে। তাও আবার ৬ পয়েন্ট নিয়ে। শুধু ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছেই হেরেছে ইংল্যান্ড। এছাড়া দক্ষিণ আফ্রিকাকে ২ উইকেটে, আফগানিস্তানকে ১৫ রানে ও শ্রীলঙ্কাকে ১০ রানে হারিয়ে সেমিফাইনালে খেলা নিশ্চিত করেছে ২০১০ সালের চ্যাম্পিয়ন দল ইংল্যান্ড।

এবার ইংল্যান্ডের সামনে আরও কঠিন প্রতিপক্ষ। গ্রুপ পর্বে একমাত্র দল তারা, যারা একটি ম্যাচেও হারেনি। ‘গ্রুপ অব ডেথ’ থেকে অপরাজিত থেকেই সেমিফাইনালে খেলতে নামবে। সেই দলটি হচ্ছে নিউজিল্যান্ড। এখন পর্যন্ত ২০০৭ সাল থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত যে ৫ বার টি২০ বিশ্বকাপ হয়েছে, একবারও ফাইনালে উঠতে পারেনি। সেই দলটি এবার কী দুর্দান্তই না খেলছে। ভারতকে হারানোর পর অস্ট্রেলিয়াকেও পাত্তা দেয়নি নিউজিল্যান্ড। ৮ রানে হারিয়ে দিয়েছে। এরপর পাকিস্তানকে ২২ রানে হারিয়ে বিশ্বকাপে সবার আগে শেষ চারে খেলা নিশ্চিত করেছে। শেষ ম্যাচে বাংলাদেশকেতো ৭০ রানে অলআউট করে লজ্জা দিয়েই গ্রুপ সেরা হয়েছে। অপরাজিত থেকেছে। সেই নিউজিল্যান্ড বুধবার প্রথম সেমিফাইনালে খেলবে। প্রথমবারের মতো টি২০ বিশ্বকাপে ফাইনালে ওঠার আশা কী পূরণ করতে পারবে কিউইরা। সেমিফাইনালে উঠতে শুধু চার দলের মধ্যে নিউজিল্যান্ডকে বলতে গেলে বেগ পেতে হয়নি। গ্রুপ পর্বের চারটি ম্যাচই জিতেছে। কিন্তু নিউজিল্যান্ডের গাঁয়ে যে সেঁটে আছে, সেমিফাইনালে দল; সেটি কী এবার সরিয়ে দিতে পারবে তারা? ওয়েস্ট ইন্ডিজকে নিয়ে যেমন বলাবলি হচ্ছে, যা হোঁচট খাওয়ার খেয়ে ফেলেছে। নিউজিল্যান্ডকে নিয়ে সবাই বলছে, তাদের হোঁচট বাকি। সেই হোঁচটই না আবার সেমিফাইনালে খেয়ে বসে নিউজিল্যান্ড। আপাতত আর একদিন বিরতি আছে। এরপর থেকেই শুরু হয়ে যাবে সেমিফাইনালের লড়াই। যে লড়াইয়ে নিউজিল্যান্ড না ইংল্যান্ড, ভারত না ওয়েস্ট ইন্ডিজ জিতে ফাইনালের টিকেট নিশ্চিত করবে; সেই আলোচনাই চতুর্দিকে।

প্রকাশিত : ২৯ মার্চ ২০১৬

২৯/০৩/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



শীর্ষ সংবাদ: