মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৮ আশ্বিন ১৪২৪, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

টাকা নেয়ায় অভিযোগে আওয়ামী লীগের ১২ নেতা বহিস্কার!

প্রকাশিত : ২৮ মার্চ ২০১৬, ০৭:০৬ পি. এম.

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ মুন্সীগঞ্জে আওয়ামীলীগ প্রার্থী বাছাইয়ে টাকা নেয়ার অভিযোগে কাঠাদিয়া-শিমুলিয়া ইউনিয়নের ৫ ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ ১২ নেতাকে বহিস্কারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে উপজেলা ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ। টঙ্গিবাড়ী উপজেলার কাঠাদিয়া-শিমুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ের সামনে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সভায় উপস্থিত ছিলেন, টঙ্গিবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জগলুল হাওলাদার ভূতু, কাঠাদিয়া শিমুলিয়া ইউনিয়নের সভাপতি শাহ আলম মাদবর, সাধারণ সম্পাদক মোতালেব হোসেন মেম্বারসহ স্থানীয় আওয়ামীলীগ ও এর অংগসংগঠনের নেতা কর্মীরা।

বহিস্কারের বিয়য়টি নিশ্চিত করে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জগলুল হাওলাদার ভূতু বলেন, সুযোগ নিয়ে ৫টি ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি সাধারণ সম্পাদকরা প্রার্থী নির্বাচনে অংশ নেয়া ৫ প্রার্থীর নিকট থেকে বিপুল পরিমান টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। তার প্রমান পাওয়ায় দূর্নীতির দায়ে তাদের বহিস্কারের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। পরবতী সভায় তাদের বহিস্কার আদেশ পেরন করা হবে।

আওয়ামীলীগের একাধিক নেতাকর্মী বলেন, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী নির্বাচনে বিপুল পরিমান টাকার বিনিময়ে ভোট কেনা বেচা হয়েছে। ইউনিয়নটির ২,৩,৫,৭ ও ৮ নং ওযার্ডের আওয়ামীলীগ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকরা প্রার্থী নির্বাচনে অংশ নেয়া ৫ প্রার্থীকে ভোট দেয়ার কথা বলে তাদের নিকট থেকে প্রায় ৪০/৫০ লাখ টাকা আদায় করেছেন। এর প্রমান পাওয়ায় ওই ওয়ার্ড গুলোর সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের বহিস্কার করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

বহিস্কারের সিদ্ধান্ত নেয়া আওয়ামীলীগ নেতারা হলেন, ২ নং ওয়ার্ড সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রব,৩ নং ওয়ার্ড সভাপতি শাহ আলম লাকুড়িয়া, সাধারণ সম্পাদক মস্তফা মেম্বার, ৫নং ওয়ার্ড সভাপতি মালেক মেম্বার, সাধারণ সম্পাদক জামাল সিকদার,৭ নং ওয়ার্ড সভাপতি আব্দুর রব হাওলাদার, সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম বেপারি, ৮নং ওয়ার্ড সভাপতি আবু কালাম হাওলাদার, সাধারণ সম্পাদক গনি ঢালীসহ মোট ১২ জন। বর্ধিত সভার পরে ইউনিয়নটির আওয়ামীলীগের সকল অংগসংগঠন প্রার্থী নির্বাচনে ষড়যন্ত্রের শিকার টাকার কাছে পরাজিত উপজেলা আওয়ামীলীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক মোঃ নূর হোসেন বেপারীকে বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) প্রার্থীর পক্ষে কাজ করার ঘোষনা দেন।

উল্লেখ্য গত ২৪ মার্চ বৃহস্পতিবার নির্বাচনের মাধ্যমে ৬ টি ইউনিয়নের মননোয়ন দেয়া হয়। নির্বাচনে কাঠাদিয়া-শিমুলিয়ার ২০ ভোটের মধ্যে ৫ প্রার্থী প্রতিদন্ধিতা করেন। অংশনেয়া প্রাথীদের মধ্যে মোঃ আনিস ৬ ভোট পেয়ে প্রার্থী নির্বাচিত হয়। অপর ৪ জনের মধ্যে মোঃ নূর হোসেন বেপারী (৫), মোতালেব মেম্বার (৩) শাহ আলম মাদবর (৩) ও এ্যাড. ফিরোজ (৩) ভোট পান।

প্রকাশিত : ২৮ মার্চ ২০১৬, ০৭:০৬ পি. এম.

২৮/০৩/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



শীর্ষ সংবাদ: