১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

টেকনাফে ধর্ষিতা মহিলার কান্না শুনেছেনা কেউ ॥ তিনদিনেও ব্যবস্থা নেয়নি পুলিশ


স্টাফ রিপোর্টার, কক্সবাজার ॥ টেকনাফে শামলাপুর উত্তরপাড়ায় এক বিধবা মহিলাকে ধর্ষণ করার অপরাধে ধর্ষকের বিরুদ্ধে তিন দিনেও কোন ব্যবস্থা নেয়নি পুলিশ। ধর্ষিতা মহিলার পক্ষে আইনী লড়াই করার মতো পাশে কেউ না থাকায় তিমিরে যাচ্ছে জঘন্যতম এ ঘটনা। ধর্ষক মোহাম্মদ হোসাইনের পুত্র জাফর উল্লাহ দাপটে ঘুরে বেড়াচ্ছে এলাকায়। শুক্রবার দিবাগত রাতে টেকনাফে শামলাপুর উত্তরপাড়ায় হত দরিদ্র বিধবা মহিলাকে জোর পূর্বক ধর্ষণ করেছে ওই লম্পট। গত তিনদিন ধরে লোক লজ্জায় ওই মহিলা আর বনে যাচ্ছে না। নিজ কুড়ে ঘরে কেঁদে কেঁদে খেয়ে-না খেয়ে বুক ভাসাচ্ছে বলে জানা গেছে।

জানা যায় ধর্ষিতা মহিলার (২২) স্বামী আবুল হাশিম সাগর পথে মালয়েশিয়া যাওয়ার পথে মারা যায়। এর পর থেকে বনে লাকড়ি কুড়িয়ে বিক্রি করে দু:খ কষ্টে সন্তান-সন্ততিদের ভরন পোষণ চালাচ্ছে হতদরিদ্র ওই মহিলা। ঘটনার দিনও বাজারে লাকড়ি বিক্রি করে রাতে ডাল-ভাত খেয়ে যথারিতী ঘুমিয়ে পড়ে নিজ বাড়িতে। ঘরের দরজা ভাঙ্গা হওয়ার সুযোগে জাফর উল্লাহ বাড়িতে প্রবেশ করে মহিলার মুখ চেপে রেখে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে। মা’র পাশে ঘুমিয়ে থাকা শিশু পুত্র ওই নরপশুর ঘৃন্যতম অবস্থা দেখে চিৎকার দেয়। এলাকাবাসী ঘটনাস্থলে জড়ো হয়ে ধর্ষণকারী জাফর উল্লাহকে ধরে উত্তম মাধ্যম দেয়। বাহারছড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ শনিবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে বিহিত ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিলেও এ পর্যন্ত কাজের কাজ কিছুই হয়নি। অভিযোগ উঠেছে, স্থানীয় কতিপয় নেতা ঘটনা ভিন্ন দিকে চালিয়ে দিয়ে লম্পট জাফরকে রক্ষায় তদ্বির চালিয়ে যাচ্ছে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: