২১ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট পূর্বের ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

সীতাকুণ্ডে গাড়ি চাপায় শ্রমিক নিহত॥ দিনভর আন্দোলন ॥ গুলিবিদ্ধ ৪ গ্রামবাসি


সীতাকুণ্ডে গাড়ি চাপায় শ্রমিক নিহত॥ দিনভর আন্দোলন ॥ গুলিবিদ্ধ ৪ গ্রামবাসি

নিজস্ব সংবাদদাতা, সীতাকুণ্ড (চট্টগ্রাম) ॥ চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে গাড়ি চাপায় মোঃ সুমন(২৮)নামে এক শ্রমিক নিহতের জের ধরে ইয়ার্ডের সামনে বিক্ষুদ্ধ গ্রামবাসি প্রতিবাদ জানাতে গেলে ইয়ার্ডের সেলিম বাবুচির গুলিতে মহিলাসহ ৪ জন গুলিবিদ্ধ হয়েছে। বিক্ষুদ্ধ গ্রামবাসির হামলায় পুলিশের উপ-পরিদর্শক সাইফুল্ল্যাহ আহত হয়। এ সময় বিক্ষুদ্ধ জনতা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক ৩ ঘন্টা অবরোধ করে রাখে। এ ঘটনায় পুলিশ সেলিম বাবুচিকে আটক করতে না পারলেও জড়িত থাকায় দায়ে ইয়ার্ডের ৬ জনকে আটক করে। জানায়ায়, উপজেলাধীন সোনাইছড়ি ইউনিয়নের গামারিতল এলাকায় সকাল সাড়ে ৭টায় মোঃ সুমন (২৮) ও তার ভাই দেলোয়ার প্রবেশ করছিল কবির ষ্টীল শীপ ব্রেকিং ইয়াডে। পিছন থেকে ইয়ার্ডে দুইটি লরি প্রবেশ করার সময় ২ জনকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলে সুমন নিহত হয়। আহত হয় তার ভাই মোঃ দেলোয়ার । এক ঘন্টা পর গ্রামবাসি দূর্ঘটনার প্রতিবাদ করতে গেলে গ্রামবাসির উপর গুলি ছুড়েঁ ইয়ার্ডের বাবুচি সেলিম। এতে নজরুল ইসলামে পুত্র ওসমান হোসেন (২২), ইসলামের পুত্র দেলোয়ার (২৩),সুমন(২০)ও নিহত সুমনের শাশুড়ি শাহানা বেগম গুলিবিদ্ধ হয় এবং গ্রামবাসির হামলায় আহত হয় সীতাকুণ্ড থানার উপ-পরিদর্শক সাইফুল্লা। গুলিবিদ্ধ গ্রামবাসিকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হচ্ছে। তবে গুলিবিদ্ধ ওসমান হোসেনের অবস্থা আশংকাজনক বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়।

এ ঘটনা শত শত বিক্ষুদ্ধ গ্রামবাসির ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক ৩ ঘন্টা অবরোধ করে রাখে। এতে দীর্ঘ ২০ কিঃমিঃ রাস্তা জানযটের সৃষ্টি হয়। পরে পুলিশ গ্রামবাসিকে বিচারের আশ্বাস প্রদান করলে মহাসড়ক অবরোধ তুলে নেয়।

চট্টগ্রাম উত্তর অতিরিক্ত পুলিশ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘সকালে সামান্য দূর্ঘটনা থেকে ইয়ার্ডের গাফিলতির কারণে এত বড় ঘটনা। আমরা মহাসড়ক সচল রেখেছি এবং সুনিদিষ্টভাবে আসামী ও অস্ত্র উদ্ধারে অভিযান পরিচালনা করছি। গুলিবিদ্ধ গ্রামবাসি চট্টগ্রাম মেডিকেলে চিকিৎসাধীন রয়েছে বলে তিনি জানান।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: