২৫ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

বাউফলে সরকারী পুকুরের মাছ বিক্রি, জানেন না ইউএনও!


নিজস্ব সংবাদদাতা, বাউফল ॥ বাউফল উপজেলা ভূমি অফিসের বড় পুকুর থেকে মাছ ধরে নেয়া হয়েছে। আজ সোমবার ভোর রাতে ওই অফিসের সহকারী কমিশনার নাজমুল হোসাইন খানের (এসিল্যান্ড) নির্দেশে জাল টেনে মাছ ধরা হয়। সংশ্লিষ্ট একটি সূত্রজানায়, ঘটনার দিন ভোর রাত ৪টায় স্থানীয় সহিদ সিকদারের মাধ্যেমে ওই পুকুর থেকে জাল টেনে রুই, কাতল ও সিলভারকাপসহ বিভিন্ন প্রজাতির আড়াই লাখ টাকার ১৯ মন ধরা হয়েছে। এর মধ্যে ১৭ মন মাছ কালাইয়া বন্দরের একটি আড়তে বিক্রি করে দেয়া হয়েছে। বাকি তিন মন বড় সাইজের মাছ কালাইয়া ইউনিয়ন ভূমি অফিসের সহকারী তহসিলদার কামরুল ইসলামকে দিয়ে ককসিটের বাক্স ভরে সহকারী কমিশনারের ঢাকার বাসায় পাঠানো হয়েছে। এ ভাবে রাতের অন্ধকারে সরকারী পুকুর থেকে মাছ ধরার ঘটনাটি এলাকার মানুষের মধ্যে নেতিবাচক প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। এ ব্যাপারে উপজেলা সহকারী কমিশনারের (ভূমি) সাথে স্থানীয় সাংবাদিকরা যোগাযোগ করলে তিনি মাছ ধরার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ইউএনওর সম্মতি নিয়ে নিজেদের খাবারের জন্য মাছ ধরা হয়েছে। আর এ জন্য সরকারের এলআইসি তহবিলে টাকা জমা দেয়া হয়েছে। তবে রাতের অন্ধকারে মাছ কেন ধরা হয়েছে সে প্রশ্নের কোন উত্তর তিনি দেননি। ইউএনও আবদুল্লাহ আল মাহমুদ বলেন, মাছ ধরার বিষয়টি অদৌও অবহিত নন তিনি।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: