মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২০ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৫ আশ্বিন ১৪২৪, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের হারিয়ে ইংলিশদের উচ্ছ্বাস

প্রকাশিত : ২৮ মার্চ ২০১৬

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ অসাধ্য সাধনই বলতে হবে! বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানির বিরুদ্ধে তাদেরই মাঠে দুই গোলে পিছিয়ে পড়ে জয় পেয়েছে অতিথি ইংল্যান্ড। শনিবার রাতে আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে জার্মানির বার্লিনে মুখোমুখি হয়েছিল দু’দল। তাতে ৩-২ গোলের দুর্দান্ত জয় তুলে নিয়েছে ফুটবলের জনকরা। এই জয়ে যেন উচ্ছ্বাসে ভাসছে ইংলিশরা।

পরশুর অন্যান্য প্রীতি ম্যাচে রাশিয়া ৩-০ গোলে লিথুনিয়াকে, অস্ট্রিয়া ২-১ গোলে আলবেনিয়াকে, পোল্যান্ড ৫-০ গোলে ফিনল্যান্ডকে পরাজিত করে। হাঙ্গেরি ও ক্রোয়েশিয়ার ম্যাচটি ১-১ গোলে অমীমাংিসত থাকে।

জার্মানি-ইংল্যান্ড ম্যাচটি শুরু থেকেই উত্তেজনা ছড়ায়। আক্রমণ পাল্টা আক্রমণে জমজমাট হয়ে ওঠে ম্যাচটি। তবে প্রথম গোলের জন্য অপেক্ষা করতে হয় ৪৩ মিনিট পর্যন্ত। ইংলিশ গোলরক্ষক জ্যাক বাটল্যান্ডকে বোকা বানিয়ে জার্মানিকে এগিয়ে নেন রিয়াল মাদ্রিদের মিডফিল্ডার টনি ক্রুস। ১-০ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় জোয়াকিম লোর দল।

বিরতির পরও শুরুটা ভাল হয় জার্মানির। ৫৭ মিনিটে মারিও গোমেজের দারুণ গোলে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে যায় ইউরোপের পাওয়ার হাউসরা। ৩০ বছর বয়সী এই স্ট্রাইকারের গোলে জয়ের স্বপ্ন দেখতে থাকে স্বাগতিকরা। কিন্তু শেষটা তাদের ভাল হয়নি। খেসারত দিতে হয়েছে খেই হারিয়ে ফেলার। দ্বিতীয় গোল হজমের চতুর্থ মিনিটেই ব্যবধান কমিয়ে ম্যাচে ফেরে ইংল্যান্ড। ফরোয়ার্ড হ্যারি কেনের গোলে ব্যবধান হয় ২-১। ৭৪ মিনিটে ইংল্যান্ডকে সমতায় ফেরান জিমি ভার্ডি। চলতি মৌসুমে উড়ন্ত লিচেস্টার সিটির হয়ে দুর্দান্ত ফর্মে থাকা ইংলিশ স্ট্রাইকার স্বাগতিকদের জাল কাঁপিয়ে দেন। ন্যাথ্যানিয়েল ক্লাইনের ক্রসে অসাধারণ ফ্লিকে গোল করেন ভার্ডি। এটি তার প্রথম আন্তর্জাতিক গোল।

সমতাবস্থায় ম্যাচ শেষ হতে যাচ্ছে এমনই আভাস মিলছিল। নির্ধারিত ৯০ মিনিটের খেলা শেষে চলছে যোগ করা সময়ের খেলা। এ সময়ই জার্মানির কফিনে শেষ পেরেকটা ঠুকে দেন এরিক ডিয়ের। জর্ডান হেন্ডারসনের কর্নারে হেডে গোল করেন তিনি। ম্যাচ শেষে ইংল্যান্ডকে জয়ের জন্য কৃতিত্ব দিলেও জার্মানির কোচ জোয়াকিম লো বলেন, আমরা ২-০ গোলে এগিয়ে গিয়েও ইংল্যান্ডকে অনেক সুযোগ করে দিয়েছি। আমাদের দলের জন্য এটা ভাল একটি শিক্ষা। ম্যাচে ইংল্যান্ড যোগ্যতর হিসেবেই জিতেছে বলে দাবি করেন কোচ রয় হডসন। তিনি বলেন, আমরা জার্মানির চেয়ে ভাল সুযোগ সৃষ্টি করেছি। ঘুরে দাঁড়িয়ে তিন গোল করাটা অসাধারণ। তিনি আরও বলেন, ইংল্যান্ডের অন্যতম সেরা জয় এটি। জার্মান তারকা গোমেজ নিজেকে দুর্ভাগা ভাবতে পারেন। কেননা প্রথমার্ধে তার আরেকটা গোল অফসাইডের জন্য বাতিল হয়ে যায়। যদিও রিপ্লে দেখে মনে হয়েছে সেটা অফসাইড ছিল না। কে জানত এই গোলটার জন্য পরে আপসোস করতে হবে। জোয়াকিম লো তাই বলতে বাধ্য হয়েছেন, দুই গোলে এগিয়ে যাওয়ার পর এভাবে হেরে যাওয়া খুবই লজ্জাজনক। তবে এটা আমাদের প্রাপ্য ছিল। আমরা খেলা নিজেদের নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারিনি।

এদিকে বুলগেরিয়ার বিরুদ্ধে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর গোল না পাওয়া নিয়ে মোটেই চিন্তিত নন দলটির কোচ ফার্নান্ডো স্যান্টোস। তারকা এই ফরোয়ার্ড ইউরোর মূল পর্বের জন্য গোল জমিয়ে রাখছেন বলে জানিয়েছেন তিনি। স্যান্টোস বলেন, জাতীয় দল আর ক্লাবের যেখানেই খেলুক, সব সময়ই সে (রোনাল্ডো) প্রতি মৌসুমে ৪০, ৫০ গোল করার উদাহরণ রেখে আসছে। বুলগেরিয়ার বিরুদ্ধে সে গোল করেনি। কিন্তু সে ইউরোর জন্য তার গোল জমাচ্ছে। উল্লেখ্য, ইউরো ২০১৬’র মূল পর্ব শুরু হবে আগামী ১০ জুন।

প্রকাশিত : ২৮ মার্চ ২০১৬

২৮/০৩/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



শীর্ষ সংবাদ: