২৫ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৬ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

ওমান রুটে রিজেন্টের যাত্রা শুরু ৭ এপ্রিল


স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ বেসরকারী বিমান সংস্থা রিজেন্ট এয়ারওয়েজের নতুন রুট হতে যাচ্ছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ওমান। আগামী ৭ এপ্রিল ঢাকা ও চট্টগ্রাম থেকে ওমানের রাজধানী মাসকাটের উদ্দেশে যাত্রা করবে প্রথম ফ্লাইট। রবিবার বিমান সংস্থাটির পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

রিজেন্ট এয়ারওয়েজের হেড অব কার্গো এ্যান্ড হলিডেজ আনিসুল আলম চৌধুরী জানান, প্রাথমিকভাবে সপ্তাহে ৪ দিন ঢাকা-চট্টগ্রাম-মাসকাট রুটে ফ্লাইট চলাচল করবে। প্রতি মঙ্গল, বৃহস্পতি, শুক্র ও রবিবার সন্ধ্যা সোয়া ৭টায় ঢাকা থেকে ছেড়ে প্রথমে চট্টগ্রাম এবং সেখান থেকে রাত সাড়ে ৮টায় ছেড়ে রাত পৌনে ১২ টায় (স্থানীয় সময়) মাসকাট পৌছবে।

মাসকাট থেকে মধ্যরাত পৌনে একটায় ছেড়ে সকাল সাড়ে ৭টায় চট্টগ্রাম এবং পৌনে ৯টায় ঢাকা এসে পৌঁছবে। বহরে সদ্যযুক্ত হওয়া ১৮৩ আসনের অত্যাধুনিক বোয়িং উড়োজাহাজ রিজেন্টের ৫ম এই আন্তর্জাতিক রুটে চলাচল করবে।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, সব ধরনের করসহ ঢাকা-মাসকাট সর্বনিম্ন ভাড়া ওয়ানওয়ে ২০ হাজার ৫৬৫ টাকা এবং রিটার্ন ৩৯ হাজার ৪৭৮ টাকা, চট্টগ্রাম-মাসকাট ওয়ানওয়ে ১৯ হাজার টাকা এবং রিটার্ন ৩৯ হাজার ২৪৪ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। অন্যদিকে মাসকাট থেকে ঢাকা সর্বনিম্ন ভাড়া ওয়ানওয়ে ৫০ ওমানী রিয়াল ও রিটার্ন ১৩০ রিয়াল এবং মাসকাট-চট্টগ্রাম ওয়ানওয়ে ৬০ রিয়াল ও রিটার্ন ১৩৫ রিয়াল নির্ধারণ করা হয়েছে। প্রত্যেক যাত্রী দেশ থেকে যাওয়ার সময় ২০ কেজি এবং ওমান থেকে আসার সময় ৪৫ কেজি ফ্রি ব্যাগেজের সুবিধা পাবেন।

নতুন রুটের বিষয়ে রিজেন্ট এয়ারওয়েজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাশরুফ হাবিব বলেন, আমাদের অন্যতম লক্ষ্য ও স্বপ্ন সারাবিশ্বের প্রবাসী বাংলাদেশীদের যাতায়াতের সহযোগী হওয়া এবং আকাশপথে যাতায়াত সহজ ও সাশ্রয়ী করা।

এর মধ্যেই মালয়েশিয়া ও সিঙ্গাপুরের বিপুলসংখ্যক প্রবাসীর কাছে রিজেন্ট আকাশপথে আস্থার বাহন হয়ে উঠতে সক্ষম হয়েছে, অর্জন করেছে অনেক সুনাম। সাফল্যের সেই ধারাবাহিকতায় এবার যাত্রা শুরু মধ্যপ্রাচ্যে। প্রসঙ্গত, ২০১০ সালের ১০ নবেম্বর যাত্রা শুরু করা রিজেন্ট এয়ারওয়েজ বর্তমানে ঢাকা থেকে কুয়ালালামপুর, সিঙ্গাপুর, ব্যাঙ্কক, কলকাতা এবং চট্টগ্রাম থেকে ব্যাঙ্কক ও কলকাতা আন্তর্জাতিক রুটে চলাচল করছে। আর অভ্যন্তরীণ রুটে চলাচল করছে ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারে।