মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১১ আশ্বিন ১৪২৪, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

প্লাস্টিক পাত্রে খাবার খেলে ...

প্রকাশিত : ২৮ মার্চ ২০১৬

আমাদের দৈনন্দিন জীবনে প্লাস্টিকের জিনিস ব্যবহার ক্রমেই বাড়ছে। তবে এই প্লাস্টিক দ্রব্য ব্যবহারের বিরুদ্ধে কড়া হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন বিজ্ঞানীরা। তারা বলছেন, প্লাস্টিকের বাটি অথবা প্লাস্টিকে মোড়ানো কোন জিনিসে খাবার গ্রহণ করলে নারীরা অপরিণত শিশু জন্ম দিতে পারে। পাশাপাশি

ওই শিশুর মধ্যে স্নায়বিক দৌর্বল্য দেখা দিতে পারে। শুধু তাই নয় এতে নারীদের হরমোন সমস্যাও দেখা দিতে পারে। আবার নারীদের শরীরে জ্বালা-যন্ত্রণার উপক্রম হতে পারে।

টেক্সাস বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক দীর্ঘ গবেষণার পর এই তথ্য জানিয়েছে। গবেষণাটি সম্প্রতি প্রখ্যাত মার্কিন জার্নাল ম্যাটারনাল ফেটাল এ্যান্ড নিউনাটাল মেডিসিনে প্রকাশিত হয়েছে।

তারা বলেছেন, প্লাস্টিকের পাত্রে ‘বিপিএ’ নামক এক ধরনের রাসায়নিক মিশ্রিত থাকে। এই রাসায়নিকে সন্তান সম্ভবা নারীরা ৩৭ সপ্তাহের আগেই সন্তান জন্ম দিতে পারে। আর এভাবে জন্ম নেয়া শিশুদের দীর্ঘ স্নায়বিক সমস্যা দেখা দিতে পারে।

গবেষণা দলের প্রধান ডক্টর রামকুমার মেনন বলেছেন, মহিলারা বিভিন্ন উপায়ে প্লাস্টিকের বিপিএ রাসায়নিকে আক্রান্ত হয়। বিভিন্ন অবকাঠামোতে ব্যবহৃত প্লাস্টিক অথবা খাবারের পাত্রে ব্যবহৃত প্লাস্টিকের মোড়কে ব্যবহৃত বিপিএ মাইক্রোওয়েভ অথবা অন্যান্য উপায়ে মহিলাদের শরীরে প্রবেশ করতে পারে। আর এই রাসায়নিকই অপরিণত শিশুর জন্ম দেয়।

যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টার্স ফর ডিজিজেস কন্ট্রোল এ্যান্ড প্রিভেনশন কেন্দ্র জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি ১০টি শিশুর মধ্যে অন্তত একটি অকাল প্রসবের মাধ্যমে জন্ম নেয়। আর মোট ৭ শতাংশ ব্রিটিশ শিশুর জন্ম হয় অপরিণত বয়সে। বিজ্ঞানীরা গর্ভবতী মহিলাদের শরীর থেকে রক্ত নিয়ে তা পরীক্ষার পর এতে উচ্চমাত্রায় বিপিএ’র উপস্থিতি লক্ষ্য করেন।

তিনি আরও বলেন, যেসব নারী দৈনন্দিন জীবনে বিপিএ মিশ্রিত পাত্র ব্যবহার করেছে তাদের মধ্যে অকালে জন্ম দেয়ার হার বেশি। ডেইলি মেইল অবলম্বনে।

প্রকাশিত : ২৮ মার্চ ২০১৬

২৮/০৩/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



শীর্ষ সংবাদ: