১৯ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

হলমার্কের নয় মামলায় তানভীরসহ ২৫ জনের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন


হলমার্কের নয় মামলায় তানভীরসহ ২৫ জনের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন

কোর্ট রিপোর্টার ॥ এবার অর্থপাচারের নয় মামলায় হলমার্ক গ্রুপের মালিক তানভীর মাহমুদসহ ২৫ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন হয়েছে। রবিবার ঢাকা মহানগর দায়রা জজ মোঃ কামরুল হোসেন মোল্লা চার্জ গঠনের আদেশ দেন। আগামী ২১ এপ্রিল সাক্ষ্যগ্রহণের দিন ধার্য করে আদালত। একই সঙ্গে আদালত সাক্ষ্যগ্রহণ শুরুর জন্য ঢাকার ১ নম্বর বিশেষ জজ আদালতে মামলাগুলো বদলির আদেশ দেয়। এ নিয়ে ১১ মামলার সবগুলোতেই অভিযোগ গঠিত হলো। রবিবার আসামিপক্ষে এ্যাডভোকেট এহসানুল হক সমাজী, ব্যারিস্টার ফখরুল ইসলাম ও এ্যাডভোকেট মোঃ শফিকুল ইসলাম আসামিদের অব্যাহতির আবেদন করে শুনানি করেন। তবে আদালত আবেদন নাকচ করে দেয়।

বহুল আলোচিত অর্থ কেলেঙ্কারির ঘটনায় এর আগে দুই মামলায় গত ১৭ ফেব্রুয়ারি প্রতিষ্ঠানটির মালিক তানভীর মাহমুদসহ ২৫ জনের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করে আদালত।

চার্জ গঠনকৃত অপর আসামিরা হলেনÑ হলমার্কের চেয়ারম্যান জেসমিন ইসলাম, সোনালী ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ের জিএম মীর মহিদুর রহমান, দুই উপ-মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) শেখ আলতাফ হোসেন (সাময়িক বরখাস্ত) ও মোঃ সফিজউদ্দিন আহমেদ, ডিএমডি আতিকুর রহমান (বর্তমানে ওএসডি), হলমার্ক গ্রুপের সহযোগী প্রতিষ্ঠান এ্যাপারেল এন্টারপ্রাইজের মালিক মোঃ শহিদুল ইসলাম, স্টার স্পিনিং মিলসের মালিক মোঃ আব্দুল বাছির, টি এ্যান্ড ব্রাদার্সের পরিচালক তসলিম হাসান, ম্যাক্স স্পিনিং মিলসের মালিক মীর জাকারিয়া, সেঞ্চুরি ইন্টারন্যাশনালের মালিক মোঃ জিয়াাউর রহমান, আনোয়ারা স্পিনিং মিলসের মালিক মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, প্যারাগন গ্রুপের এমডি সাইফুল ইসলাম রাজা, নকশী নিটের এমডি মোঃ আবদুল মালেক ও সাভারের হেমায়েতপুরের তেঁতুলঝোড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ জামাল উদ্দিন সরকার, সোনালী ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ের জিএম ননী গোপাল নাথ (বর্তমানে ওএসডি), প্রধান কার্যালয়ের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক হুমায়ুন কবির, ডিএমডি মাইনুল হক (বর্তমানে ওএসডি), দুই এজিএম মোঃ কামরুল হোসেন খান (সাময়িক বরখাস্ত) ও এজাজ আহম্মেদ, সহকারী উপ-মহাব্যবস্থাপক মোঃ সাইফুল হাসান, নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুল মতিন ও সোনালী ব্যাংক ধানম-ি শাখার বর্তমান জ্যেষ্ঠ নির্বাহী কর্মকর্তা মেহেরুন্নেসা মেরি।

আসামিদের মধ্যে তানভীর মাহমুদ, মীর মহিদুর রহমান, শেখ আলতাফ হোসেন ও মোঃ সফিজউদ্দিন আহমেদ কারাগারে আছেন। জামিনে আছেন জেসমিন ইসলাম ও আতিকুর রহমান।

২০১৪ সালের ১৩ নবেম্বর একই আদালত পলাতক ১৭ আসামির বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে। ২০১২ সালের ৪ অক্টোবর রাজধানীর রমনা থানায় তানভীর মাহমুদসহ ২৭ জনের বিরুদ্ধে ১১টি মামলা করে দুদক। মামলায় তাদের বিরুদ্ধে দুই হাজার ৬৮৬ কোটি ১৪ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয়েছে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: