২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

তারেকের বক্তব্য প্রচারে আইনি লড়াইয়ের ঘোষণা : ফখরুল


তারেকের বক্তব্য প্রচারে আইনি লড়াইয়ের ঘোষণা : ফখরুল

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বক্তব্য প্রচারে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারে আইনি লড়াই চালানোর ঘোষণা দিয়েছে বিএনপি।

বিভিন্ন মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা নিয়ে আট বছর ধরে লন্ডনে বসবাসরত তারেকের বিরুদ্ধে ইন্টারপোলের আন্তর্জাতিক গ্রেপ্তারি পরোয়ানা ‘প্রত্যাহার’ করা হয়েছে দাবি করে এ ঘোষণা দেন দলের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

রোববার এক সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘এ নিয়ে আমাদের আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে, কিন্তু বিভিন্ন কারণে সেটা আসেনি। আমরা এবার চেষ্টা করব- ইন্টারপোলের এই ফাইন্ডিংসের পরে আমরা নতুন করে এই বিষয়ে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করব। তার বক্তব্য যাতে প্রচার করা যায়, সে বিষয়ে আমরা আইনের আশ্রয় নেব।’

তারেক রহমানকে পলাতক দেখিয়ে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে পুলিশ যেসব তথ্য পাঠায় ইন্টারপোল তার ‘সত্যতা খুঁজে পায়নি’ বলে দাবি করেন ফখরুল।

তিনি বলেন, “ইন্টারপোল তাদের নিজস্ব পদ্ধতিতে জনাব তারেক রহমান সম্পর্কে বাংলাদেশ সরকারের সরবরাহ করা তথ্য যাচাই করার পর কোনো সত্যতা না পাওয়ায় এবং বিষয়টি তাদের আর্টিকেল ৩ ধারার রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত হওয়ায় রেড নোটিস প্রত্যাহার করে নিয়েছে।

২০১৪ সালে লন্ডনে কয়েকটি দলীয় সভায় বাংলাদেশের স্বাধীনতা আন্দোলন ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে বিভিন্ন বিতর্কিত বক্তব্যে সমালোচনার মুখে পড়েন তারেক রহমান। এ প্রেক্ষাপটে এক রিট আবেদনে সাড়া দিয়ে ২০১৫ সালের জানুয়ারিতে পলাতক থাকা অবস্থায় তারেকের বক্তব্য বিবৃতি সংবাদ মাধ্যম, সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম বা অন্য কোনো মাধ্যমে প্রচার বা প্রকাশের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেয় হাইকোর্ট।

তারেক রহমান কবে দেশে ফিরবেন জানতে চাইলে ফখরুল বলেন, ‘এটা নির্ভর করবে তার স্বাস্থ্যের ওপর। তারেক রহমান সুস্থ হলে অবশ্যই তিনি দেশে ফিরে আসবেন। এখানে কোনো রাজনৈতিক বিষয় নেই। তিনি রাজনৈতিক নেতা তার চিকিৎসকরা যখনই বলবেন- তিনি ফিট, তখনই তিনি দেশে ফিরে আসবেন।‘

সংবাদ সম্মেলনে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ভাইস চেয়ারম্যান চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ, আবদুল্লাহ আল নোমান, আলতাফ হোসেন চৌধুরী, সেলিমা রহমান ও চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা শামসুজ্জামান দুদু উপস্থিত ছিলেন।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: