২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

পুঁজিবাজারে লেনদেন বেড়েছে ২১ দশমিক ৭৪ শতাংশ


অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ গত সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন বাড়লেও কমেছে সব ধরনের মূল্যসূচক। আলোচিত সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ২১ দশমিক ৭৪ শতাংশ। তবে প্রধান সূচক কমেছে ১ দশমিক ৭০ শতাংশ। পাঁচ কার্যদিবসের মধ্যে মাত্র এক কার্যদিবসে সূচক কিছুটা বেড়েছিল। বাকি চার কার্যদিবসেই সূচক কমেছিল। তবে সূচকে আহামরি কোন পতন ঘটেনি। বাজার সংশ্লিষ্টদের মতে, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের রিজার্ভ থেকে টাকা চুরির ঘটনার পরে নিয়ন্ত্রক সংস্থাটির নেতৃত্ব পর্যায়ে পরিবর্তন আসলেও পুঁজিবাজারে বিনিয়োগকারীদের তেমন আশান্বিত করতে পারেনি। কারণ নতুন নেতৃত্ব এখন পর্যন্ত রিজার্ভ চুরির ঘটনাতেই নিজেদের নিয়োজিত রাখতে চাচ্ছে। এতে বাজারে কিছুটা স্থিতিবস্থা চলছে। তবে শেয়ার কেনা-বেচা কিছুটা আগের তুলনায় বেড়েছে।

জানা গেছে, আগের সপ্তাহের চেয়ে ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ৩২৮ কোটি টাকার। আলোচিত সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ৮৩৮ কোটি ৭৪ লাখ টাকার। আর আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ৫১০ কোটি ৩৯ লাখ টাকার।

সমাপ্ত সপ্তাহে ‘এ’ ক্যাটাগরির কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে ৯১ দশমিক ৯৬ শতাংশ। ‘বি’ ক্যাটাগরির কোম্পানির লেনদেন হয়েছে ২ দশমিক ২০ শতাংশ। ‘এন’ ক্যাটাগরির কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে ৫ দশমিক ০৬ শতাংশ। ‘জেড’ ক্যাটাগরির লেনদেন হয়েছে দশমিক ৭৮ শতাংশ।

এদিকে, ডিএসইর সার্বিক সূচক বা ডিএসইএক্স সূচক কমেছে ১ দশমিক ৭০ শতাংশ বা ৭৫ দশমিক ৭৯ পয়েন্ট। সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসই৩০ সূচক কমেছে ২ দশমিক ২৪ শতাংশ বা ৩৭ দশমিক ৮৫ পয়েন্ট। অপরদিকে, শরীয়াহ বা ডিএসইএস সূচক কমেছে ১ দশমিক ৯২ শতাংশ বা ২০ দশমিক ৭৪ পয়েন্টে।

সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে তালিকাভুক্ত মোট ৩৩১টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৮০টি কোম্পানির। আর দর কমেছে ২২১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৫টির। আর লেনদেন হয়নি ৫টি কোম্পানির শেয়ার।

সাপ্তাহিক লেনদেনের সেরা কোম্পানিগুলো হলো : কেয়া কসমেটিকস, বিএসআরএম লিমিটেড, স্কয়ার ফার্মা, এমারেল্ড ওয়েল, এএফসি এ্যাগ্রো, আমান ফিড মিলস লিমিটেড, ড্রাগন সোয়েটার, বেক্সিমকো ফার্মা, লঙ্কা বাংলা ফাইন্যান্স ও ওরিয়ন ইনফিউশন।

দর বৃদ্ধির সেরা কোম্পানিগুলো হলো : কেয়া কসমেটিকস, লিব্রা ইনফিউশন, বিএসআরএম লিমিটেড, ইস্টার্ন লুব্রিক্যান্টস, ডেল্টা ব্র্যাক, জেমিনি সী ফুড, এমারেল্ড অয়েল, ন্যাশনাল ফিড মিলস লিমিটেড, আমান ফিড ও ফু-ওয়াং ফুড।

দর হারানোর সেরা কোম্পানিগুলো হলো : ওয়ান ব্যাংক লিমিটেড, ঝিল বাংলা সুগার মিলস, সামিট এলায়েন্স পোর্ট মিলস লিমিটেড, সামিট পূর্বাঞ্চল পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড, বিআইএফসি, ট্রাস্ট ব্যাংক ও স্ট্যান্ডার্ড ইন্স্যুরেন্স।

সপ্তাহজুড়ে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) লেনদেন হয়েছে ১২২ কোটি ৮৬ লাখ টাকার শেয়ার। তালিকাভুক্ত মোট ২৭০টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৭৬টি কোম্পানির। আর দর কমেছে ১৮০টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৪টির।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: