২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

চলনে-বলনে মসৃণ রোবট


ওয়েবে তথ্য খোঁজার ওয়েবসাইট গুগল যে রোবট তৈরিতে হাত দিয়েছে, সে খবর পুরনো। বোস্টন ডায়নামিকস নামের সামরিক রোবট তৈরির প্রতিষ্ঠান কিনে নেয়ার মাধ্যমে শুরু হয়েছিল রোবটে তাদের বিনিয়োগ। কিন্তু এই রোবটগুলো যে রীতিমতো চমক দেখিয়ে মানুষের মতো কাজ শুরু করবে, তা এতদিন অজানাই ছিল। সম্প্রতি প্রতিষ্ঠানটি ইউটিউবে একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে, যেখানে দেখা যায় কোন রোবট মাটি খুঁড়ছে তো কোনটা ভারি বস্তু তুলে অন্য কোথাও রেখে আসছে, ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিলেও গা ঝাড়া দিয়ে ঠিকই উঠে দাঁড়াচ্ছে। উঁচুনিচু ভূমিতেও ঠিকঠাক তাল মিলিয়ে মানুষের মতোই হেঁটে যাচ্ছে, এমনটাও দেখা গিয়েছে। ‘এ্যাটলাস’ নামের এ রোবট মারভেলের কমিক চরিত্রের চেয়েও যেন এক কাঠি সরেস! ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়া বার্কলির রোবটবিজ্ঞানের অধ্যাপক কেন গোল্ডবার্গ অন্তত তাই মনে করেন। রোবটটি সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘এটি রীতিমতো আপনাকে হাঁ করে দেবে। চলনে-বলনে অনেক মসৃণ হয়েছে এটি।’ এর আগে এ্যাটলাসের আরেকটি ভিডিও প্রকাশ করা হলেও তখন রোবটটি তারের সঙ্গে যুক্ত অবস্থায় কাজ করত। এই সংস্করণটি আগের চেয়ে হালকা, ব্যাটারিচালিত, চলাফেরায় শব্দ কম, কিন্তু আগের চেয়ে অনেক বেশি কর্মপটু। তবে এই কেন গোল্ডবার্গ রোবটটি সম্পর্কে খুব বেশিকিছু জানাতে পারেননি, অনুমাননির্ভর কিছু বলতেও রাজি হননি। যা জানার, তা ভিডিও চিত্র দেখেই জানা গিয়েছে। লম্বায় পাঁচ ফুট নয় ইঞ্চির রোবটটির ওজন ১৮০ পাউন্ড। মাথার অংশে যুক্ত লাইডার এবং স্টিরিও সেন্সর কাজে লাগিয়ে চলাফেরা করে। নিশ্চয় আরও অনেক সেন্সর ও যন্ত্রপাতি বসানো হয়েছে। তা না হলে বরফ আবৃত ভূমিতে পড়তে পড়তেও উঠে দাঁড়াত কীভাবে? কিংবা হাতের বস্তুটি পড়ে গেলে তা খুঁজে নিয়ে আবার আগের জায়গায় রেখে দিয়ে আসত না। বাক্সের ওপর লেখা ঠিকঠাক পড়তেও পারে এটি।