১৫ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

তনু হত্যার বিচার দাবিতে কুমিল্লা অভিমুখে আজ রোডমার্চ


বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার ॥ কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজের ছাত্রী সোহাগী জাহান তনু হত্যার প্রতিবাদ এবং জড়িতদের বিচারের দাবিতে আজ সকাল আটটায় শাহবাগ থেকে রোডমার্চ নিয়ে কুমিল্লা অভিমুখে রওনা হবে গণজাগরণ মঞ্চ। শনিবার বিকেলে পূর্বঘোষিত প্রতিবাদী সাংস্কৃতিক সমাবেশ থেকে এ মা, ভাই, চাচাত বোনসহ পরিবারের পাঁচ সদস্যকে র‌্যাব ও ডিবি কার্যালয়ে পৃথকভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। এদিকে সন্ধ্যায় নগরীতে সড়ক অবরোধ করে মোমবাতি প্রজ্বলনের মাধ্যমে প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে শিক্ষার্থী ও বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

জানা যায়, গত ২০ মার্চ রাতে কুমিল্লায় দুর্বৃত্তদের হাতে কলেজছাত্রী তনু খুনের ঘটনায় দেশব্যাপী প্রতিবাদ ও ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। মামলা তদন্তে মাঠে নামে র‌্যাব, পুলিশসহ একাধিক গোয়েন্দা সংস্থা। কিন্তু ছয়দিনেও তদন্তে দৃশ্যমান কোন অগ্রগতি নেই। শনিবারও তনুর সহপাঠী ও বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠনের ব্যানারে বিক্ষোভে উত্তাল ছিল কুমিল্লা নগরী। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকেও এ নিয়ে প্রতিবাদের ঝড় অব্যাহত রয়েছে। শুক্রবার গভীর রাতে চাঞ্চল্যকর এ হত্যাকা-ের তদন্তের জন্য জেলা গোয়েন্দা শাখায় (ডিবি) দায়িত্ব হস্তান্তর করা হয়। মামলাটি তদন্ত করছেন ডিবির ওসি একেএম মনজুর আলম। ডিবির পাশাপাশি র‌্যাবসহ উচ্চ পর্যায়ের একাধিক গোয়েন্দা সংস্থা হত্যার রহস্য উদঘাটনে শুক্রবার রাত থেকে শনিবার সন্ধ্যায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত দফায় দফায় তনুর বাবা ইয়ার হোসেন, মা আনোয়ারা বেগম, বড় ভাই ও চাচাত বোনসহ পরিবারের অন্তত পাঁচ সদস্যকে জিজ্ঞাসাবাদ করে বক্তব্য রেকর্ড ও তথ্য যাচাই-বাছাই অব্যাহত রেখেছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

কুমিল্লার পুলিশ সুপার মোঃ শাহ আবিদ হোসেন জানান, শুক্রবার রাতে মামলাটি ডিবিতে হস্তান্তর করা হয়েছে, এর পাশাপাশি জেলা পুলিশ, র‌্যাব ও উচ্চপর্যায়ের একাধিক তদন্ত সংস্থা রহস্য উদঘাটনে নিহতের পরিবারের সদস্যদের জিজ্ঞাসাবাদ অব্যাহত রেখেছে।

এদিকে শনিবার দুপুরে কুমিল্লা কান্দিরপাড়ে টাউন হলের সামনে বাংলাদেশ কবি ফোরাম (বাকফ) তনু হত্যার প্রতিবাদে বিশাল মানববন্ধন করে। সংগঠনের সভাপতি বাপ্পি মজুমদার ইউনুসের সভাপতিত্বে এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ লেবার পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম মহাসচিব মহসীন ভূইয়া, নবাব ফয়জুন্নেছা ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আজাদ সরকার লিটন, আনোয়ার হোসেন, কবি দীপ্র আজাদ কাজল, বাকফের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাইফুল ইসলাম রুবেল, কবি ফাইজা ফারজানা, কবি তাকলিমা আক্তার হৃদি, কবি তাসলিমা সরকার লিয়া, কবি ফারহানা রিমা, ভিক্টোরিয়া কলেজ সাংবাদিক সমিতির আহ্বায়ক তৈয়বুর রহমান সোহেল, বাকফ কুমিল্লা শাখার সভাপতি আজিম উল্লাহ হানিফ, সহ-সভাপতি এমদাদুল হক ইয়াছিন, সাধারণ সম্পাদক ডাঃ খাইরুল ইসলাম সুমন, কবি আবদুল কাইয়ুম আশিক, ইফতেখার আলম কৌশিক, এম বিল্লাল হোসেন, তছবির খান, ডাঃ ফাহমিদা নাহিদ নিপা মনি, তমাল, নোমান প্রমুখ।

বিকেলে সত্য স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন, কুমিল্লাস্থ বেরনাইয়া উচ্চ বিদ্যালয় ছাত্র কল্যাণ ফোরাম, বাংলাদেশ কবি ফোরাম, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারী কলেজের গণিত বিভাগ ও বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ নগরীর কান্দিরপাড়ে মানববন্ধন, প্রতিবাদ সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল করে। সন্ধ্যায় নগরীর টমসন ব্রিজ এলাকায় টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করা হয়। পরে মোমবাতি প্রজ্বলন করে প্রতিবাদ জানায় নগরীর টমসন ব্রিজ শাখা ছাত্রলীগ। এ সময় তারা তনু হত্যাকারীদের অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবি জানায়।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: