১৭ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

তাসকিনের প্রতি অবিচার করেছে আইসিসি ॥ পাপন


স্পোর্টস রিপোর্টার, কলকাতা থেকে ॥ বাংলাদেশ পেসার তাসকিন আহমেদ দেশে ফিরে গেছেন। অথচ ভারতে রেখে গেছেন তার পদচিহ্ন। তাসকিনকে নিয়ে টি২০ বিশ্বকাপে যত আলোচনা হয়েছে, অন্য কোন ক্রিকেটার নিয়ে এমন উত্তেজনা তৈরি হয়নি। তাসকিনকে আইসিসি অবৈধ বোলিং এ্যাকশনের জন্য নিষিদ্ধ করেছে। যে নিষিদ্ধ হওয়া এখনও কেউই মেনে নিতে পারছে না। এমনকি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনও মেনে নিতে নারাজ। তাই তো শুক্রবার বিকেলে কলকাতায় যে হোটেলে উঠেছেন পাপন, সেই দ্য ওবেরোয় গ্র্যান্ড হোটেলে পাপন বলেন, ‘তাসকিনের প্রতি অবিচার করেছে আইসিসি।’ যখন বিসিবির সর্বোচ্চ পর্যায় থেকেই এমনটি বলা হয়, তখন তো বোঝাই যায় এখানে আইসিসিরই ভুল আছে। যতই আইসিসি সংবাদ বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানিয়ে দেক তাসকিন অবৈধ। শুধু তাসকিনের প্রতি অবিচারের কথাই বলেননি পাপন, বাংলাদেশ দলকে যে বৈরী আবহাওয়াতেই খেলতে হবে; তাও জানিয়ে দেন। এ আবহাওয়া একেকটি স্থানে কন্ডিশনকে বোঝানো হয়নি। এখানে বোঝানো হয়েছে আইসিসির রোষানলে যে পড়ছে বাংলাদেশ, সেটিকে।

আজ বাংলাদেশ গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচ খেলবে। এরপর চলে যাবে বাংলাদেশ। কিন্তু ভারতের মাটিতে খেলে প্রতি স্থানেই নিজেদের প্রতি অবিচার হওয়ার চিহ্ন রেখে যাবে। সেই শুরু থেকেই ভুগছে বাংলাদেশ দল। টেস্ট খেলুড়ে দল হয়েও বাছাইপর্ব খেলতে হয়েছে। র‌্যাঙ্কিংয়ের ৮ নম্বরে না থাকাতে বাছাইপর্ব খেলেছে বাংলাদেশ। অথচ দলটি এশিয়া কাপের ফাইনালেও খেলেছে। পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কার মতো দলকে পেছনে ফেলে ভারতের বিপক্ষে ফাইনালে খেলেছে। এরপর যখন বাছাইপর্বের প্রথম ম্যাচ খেলতে নামল হল্যান্ডের বিপক্ষে, এরপরই জানিয়ে দেয়া হলো তাসকিন ও আরাফাত সানির বোলিংয়ে সমস্যা আছে। বৈধ বোলিং করেন না তারা। স্বাভাবিকভাবেই এখন পরীক্ষা দিতে হবে। সানি ও তাসকিন দুইজনই পরীক্ষা দিলেন। দুইজনই অবৈধ হলেন। সানির বোলিং অবৈধ হয়েছে এবং নিষিদ্ধও হয়েছেন, এ নিয়ে যত না চিন্তা কাজ করেছে, তাসকিনকে সবদিক থেকেই বৈধ মনে হওয়ার পরও কেন অবৈধ ঘোষণা করা হলো। এ চিন্তাই সবার ভেতর কাজ করে। শেষে বিসিবির আইনজীবীর মাধ্যমে আপীলও করেন তাসকিন। বিসিবির উচ্চপদস্থ সব কর্মকর্তারা আইসিসির সঙ্গে এ নিয়ে তর্কেও জড়িত হন। তাতেও কাজ হয়নি। তাসকিনকে অবৈধই ঘোষণা করে আইসিসি। তাতে বেজায় চটেছেন বিসিবি সভাপতিও। শেষপর্যন্ত না পেরে বলেই দিলেন, ‘তাসকিনের প্রতি অবিচার করেছে আইসিসি।’

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: