মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৮ আশ্বিন ১৪২৪, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

আরও বিধ্বংসী হয়ে ফিরবেন তাসকিন

প্রকাশিত : ২৬ মার্চ ২০১৬

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ মাত্র ১৪ ওয়ানডে আর ১৩ টি২০ ম্যাচেই বিরতি পড়ল ক্যারিয়ারে! যদিও বিরতিটা কতখানি দীর্ঘায়িত হবে তার পুরোপুরি নির্ভর করছে নিজের পরিশ্রমের ওপর। যে ত্রুটি শনাক্ত করে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে সাময়িক নিষিদ্ধ করা হয়েছে সেটা শুধরে নিতে হবে তাসকিন আহমেদকে। অবশ্য বোলিং এ্যাকশন সন্দেহজনন হওয়া এবং পরবর্তীতে আইসিসি অনুমোদিত পরীক্ষাগারে পরীক্ষা দিয়ে নিষিদ্ধ হওয়ার পরও জাতীয় দলের সঙ্গে ভারতেই অবস্থান করছিলেন। কারণ, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের জন্য রিভিউ আবেদন করা হয়েছিল। সেটাও খারিজ হয়ে যাওয়ার পর এবার নতুন চ্যালেঞ্জ ২০ বছর বয়সী এ গতিধর বোলারের। যত দ্রুত সম্ভব নিজেকে শুধরে নিয়ে ফিরতে হবে। শুক্রবার সকালে কলকাতা থেকে ঢাকায় ফিরে অবশ্য আরও ভয়ঙ্কর রূপে ফেরার প্রত্যয় জানিয়েছেন তাসকিন।

প্রায় দুই বছর আগে এমন আরেকটি ধাক্কা এসেছিল বাংলাদেশ দলে। তরুণ উদীয়মান পেসার আল আমিন হোসেনের বোলিং এ্যাকশনে ত্রুটি ধরা হয়েছিল ২০১৪ সালের আগস্টে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে। সেই ত্রুটি কাটিয়ে আবার ফেরেন আল আমিন মাত্র আড়াই মাসের মধ্যেই। এমনকি গত বছরের শুরুতে অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপ স্কোয়াডেও ঠাঁই করে নেন। বর্তমানে বাংলাদেশ দলের পেস আক্রমণের অন্যতম নির্ভরযোগ্য বোলার তিনি। নিজেকে শুধরে ফেরার পর অনেক বোলারই খেই হারিয়ে ফেলেছেন। সেটার প্রকৃষ্ট উদাহরণ পাকিস্তানী অফস্পিনার সাঈদ আজমল। বোলিং এ্যাকশন শুধরে আর নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরে। হারিয়ে গেছেন। তবে আল আমিনের ক্ষেত্রে হয়েছে উল্টোটা। ধারাবাহিকভাবে দুর্দান্ত বোলিং করে তিনি বর্তমানে টি২০ র‌্যাঙ্কিংয়ে বিশ্বের ৬ নম্বর বোলার! ফিরে যেন আরও ভয়ঙ্কর হয়ে উঠেছেন আল আমিন। নিজ দলের সতীর্থই অনেক বড় উদাহরণ হয়ে জ্বলজ্বল করছেন। তাই হতাশার কিছুই নেই তাসকিনের। তিনি নিজেও অবশ্য যথেষ্ট আত্মবিশ্বাসী দ্রুতই ফিরে আসার বিষয়ে এবং সেই ফেরাটা আরও ভয়ানক রূপেই হবে সেই প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন তাসকিন। তিনি সকালে ঢাকায় ফিরে বিমানবন্দরেই প্রতিক্রিয়ায় বলেন, ‘যেটা হয়ে গেছে সেটা হয়েই গেছে। একটাই লক্ষ্য, পরীক্ষাটা আবার দিয়ে ভালামতো খেলায় ফিরে আসা। সবার দোয়া থাকলে আল্লাহর রহমতে সব ঠিক হয়ে যাবে। বাবা-মা’র সঙ্গে সবসময় কথা হয়েছে। তারা হতাশ। তাদের মুখে হাসি ফিরিয়ে আনব, ইনশাআল্লাহ। আল্লাহ যদি চায় এমনও হতে পারে আমি জীবনে যা হতাম এই বাধাটা আমাকে তার চেয়ে দুই ধাপ উপরেও নিয়ে যেতে পারে।’

হ্যাঁ, সাময়িক নিষেধাজ্ঞা পাওয়ার পর অনেক সমর্থন পেয়েছেন তাসকিন। বাংলাদেশের ক্রিকেট ভক্ত-সমর্থকরা সোচ্চার হয়েছেন, মানববন্ধন করেছেন নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের জন্য। বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে আইসিসির সমালোচনা করেছেন সবাই। এমনকি অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা অন্যায় করা হয়েছে এমনটা সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করেন। তিনি সে সময় অশ্রু ঝরিয়ে ন্যায় বিচারের দাবিও জানান। বাংলাদেশ প্রধান কোচ চান্দিকা হাতুরাসিংহে, বোলিং কোচ হিথ স্ট্রিক এবং বিসিবি থেকে দারুণ সমর্থন পেয়েছেন তিনি। সামনে আবার নিজেকে ত্রুটিমুক্ত প্রমাণ করার চ্যালেঞ্জ। কঠিন এ সময়েও একটি বিষয় তাসকিনকে অভিভূত করে। যা নিয়ে গবর্বোধই করছেন এ পেসার। তিনি বলেন, ‘দেশবাসী যে পরিমাণ সাপোর্ট দিচ্ছে, যে পরিমাণ ভালবাসা দেখলাম আর বিসিবি যেভাবে আমাকে সাপোর্ট দিচ্ছে- এ জন্য বাংলাদেশ টিমের একজন ক্রিকেটার হতে পেরে আমি গর্বিত।’

প্রকাশিত : ২৬ মার্চ ২০১৬

২৬/০৩/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



শীর্ষ সংবাদ: