২৫ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

সিলেটে মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় নির্মাণে জায়গার খোঁজে প্রশাসন


স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট ॥ দেশের ৮টি মেডিক্যাল কলেজের মধ্যে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ অন্যতম। এই কলেজকে বিশ্ববিদ্যালয় করার জন্য সিলেটবাসী দীর্ঘদিন থেকে দাবি জানিয়ে আসছে। ইতোমধ্যে সিলেটবাসীর দাবি পূরণ করতে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি আশ্বাস দিয়েছেন সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজকে বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তর করা হবে। সেই আশ্বাসে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বিশ্ববিদ্যালয় করার জন্য জায়গা দেখার জন্য নিদের্শনা দিয়েছেন। আর সেই নিদের্শনা পাওয়ার পর থেকে জায়গা খোঁজা শুরু করেছেন মেডিক্যাল কলেজ কর্তৃপক্ষ। এমন তথ্য জানিয়েছেন সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যক্ষ ডাঃ মোর্শেদ আহমদ চৌধুরী।

তিনি জানান, সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজকে বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তর করা সিলেটবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি। আর সেই দাবির প্রেক্ষিতেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ওসমানী মেডিক্যাল কলেজকে বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তর করার আশ্বাস দিয়েছেন। সেই আশ্বাসের প্রেক্ষিতে ওসমানী মেডিক্যাল কলেজকে বিশ্ববিদ্যালয়ে উন্নীত করার জন্য অর্থমন্ত্রী মৌখিকভাবে জমি খোঁজার নির্দেশনা দিয়েছেন। সেই নিদের্শনা পাওয়ার পর তিনি জেলা প্রশাসকে জমি খোঁজার জন্য একটি ঠিটি দিয়েছেন। সেই চিঠির জবাবও দিয়েছেন জেলা প্রশাসক জয়নাল আবেদীন।

এ ব্যাপারে সিলেটের জেলা প্রশাসক জয়নাল আবেদীন বলেন, অর্থমন্ত্রীর নির্দেশনা পাওয়ার পর আমরা জায়গা খোঁজছি। তবে ওসমানী মেডিক্যাল কলেজের আশপাশে কিছু সরকারি জমি রয়েছে। সেই জমিগুলো ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য জেলা প্রশাসন থেকে উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। বিষয়টি মেডিক্যাল কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে বলে জানান ডিসি।

এ ব্যাপারে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ ডাঃ মোর্শেদ আহমদ চৌধুরী বলেন, নগরীর শেখঘাট এলাকায় ৩ একর জায়গার কথা চিঠি দিয়ে জেলা প্রশাসক আমাদের জানিয়েছেন। তবে ওই তিন একরে বিশ্ববিদ্যালয় করা সম্ভব নয়। বিশ্ববিদ্যালয় করতে ৫ একর জায়গা লাগবে। এ ব্যাপারে আরও কিছু জায়গা দেয়ার জন্য দুই-একদিনের মধ্যে জেলা প্রশাসকের কাছে একটি চিঠি দেয়া হবে।

প্রসঙ্গত, ১৯৪৮ সালে সিলেট নগরীর চৌহাট্টায় সিলেট মেডিক্যাল স্কুল প্রতিষ্ঠা করা হয়। পরবর্তীতে সিলেটবাসীর দাবির প্রেক্ষিতে স্কুলটিকে কলেজে রূপান্তর করা হয়। ১৯৬২ সালে সিলেট মেডিক্যাল কলেজে উন্নীত করার পর ১৯৬৮-৬৯ সালে সম্প্রসারণ করা হয় কলেজ ক্যাম্পাস। ১৯৭১-৭২ সালে ক্যাম্পাসটি কাজলশাহ এলাকায় স্থানান্তর করা হয়। ১৯৮৬ সালে মুক্তিযুদ্ধের সর্বাধিনায়ক মুহাম্মদ আতাউল গণি ওসমানীর নামানুসারে কলেজটির নামকরণ করা হয় ‘সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ’।

পরবর্তীতে ওসমানী মেডিক্যাল কলেজকে বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তর করার দাবি তুলেন সিলেটবাসী। সেই দাবির প্রেক্ষিতে গত ২১ জানুয়ারি সিলেট আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে স্থানীয় আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ওসমানী মেডিক্যাল কলেজকে বিশ্ববিদ্যালয় করার আশ্বাস প্রদান করেন। সেই আশ্বাসের পর অর্থমন্ত্রী ওসমানী মেডিক্যাল কলেজকে বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তর করার জন্য জায়গা খোঁজার নিদের্শনা দিয়েছেন। অর্থমন্ত্রীর তৎপরতায় শীঘ্রই বিশ্ববিদ্যালয়ে উন্নীত হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। আর ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তর করা হলে সিলেটবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি পূরণ হবে।