২৩ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

সুপ্রীমকোর্ট আইনজীবী সমিতিতেও জিতল আওয়ামী লীগ


সুপ্রীমকোর্ট আইনজীবী সমিতিতেও জিতল আওয়ামী লীগ

স্টাফ রিপোর্টার॥ ছয় বছর পর সুপ্রীমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি পদে সরকার সমর্থক একজন প্রার্থীকে দায়িত্ব দিয়েছেন বারের সদস্যরা; সম্পাদক পদটি গেছে বিএনপি-জামায়াত সমর্থকদের হাতেই।

সুপ্রীমকোর্ট বারের এবারের নির্বাচনে ১৪টি পদের মধ্যে সভাপতিসহ আটটি পদে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন আইনজীবীদের মোর্চা সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের (সাদা প্যানেল) প্রার্থীরা জয়ী হয়েছেন।

অন্যদিকে সম্পাদকসহ ছয়টি পদ ধরে রাখতে পেরেছে বিএনপি-জামায়াতপন্থি জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য প্যানেল (নীল প্যানেল)।

সাদা প্যানেল থেকে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন ২ হাজার ৪৭ ভোট পেয়ে সমিতির নতুন সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন।

তার প্রতিদ্বন্দ্বী নীল প্যানেলের জয়নুল আবেদীন পেয়েছেন ১ হাজার ৭৭৯ ভোট। জয়নুল বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা।

সম্পাদক পদে এবারও বিজয়ী হয়েছেন নীল প্যানেলের প্রার্থী ব্যারিস্টার এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকন। তিনি পেয়েছেন ২ হাজার ৫৭ ভোট।

তার প্রতিদ্বন্দ্বী সাদা প্যানেলের মো. আজাহার উল্লাহ ভুঁইয়া পেয়েছেন ১ হাজার ৭৪৯ ভোট।

ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন ও মাহবুব উদ্দিন খোকনই ২০১৬-২০১৭ মেয়াদে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নেতৃত্ব দেবেন।

বুধ ও বৃহস্পতিবার ভোটগ্রহণ ও গণনা শেষে শুক্রবার সকাল পৌনে ৭টায় নির্বাচন পরিচালনা উপ-কমিটির আহ্বায়ক মো. হারুনর রশিদ এ ফল ঘোষণা করেন।

তিনি জানান সমিতির পাঁচ হাজার ২৩ জন ভোটারের মধ্যে তিন হাজার ৯২১ জন এবার ভোট দিয়েছেন। অর্থাৎ, ৭৮ শতাংশ ভোট বাক্সে পড়েছে।

সভাপতি ছাড়াও একটি সহ সভাপতি, কোষাধ্যক্ষ, দুটি সহ-সম্পাদক এবং তিনটি সদস্য পদে সাদা প্যানেলের প্রার্থীর জয়ী হয়েছেন।

অন্যদিকে একটি সহ সভাপতি, সম্পাদক ও চারটি সদস্য পদ পেয়েছেন নীল প্যানেলের প্রার্থীরা।

সর্বশেষ ২০০৯ সালের নির্বাচনে সভাপতি, সম্পাদকসহ ১৩ পদ জিতে নিয়ে বারে নিরঙ্কুশ বিজয় অর্জন করেছিলেন আওয়ামীসমর্থক আইনজীবীরা।

এর পরের প্রতিটি নির্বাচনে দুই শীর্ষ পদসহ অধিকাংশ পদ বিএনপি-জামায়াত জোট সমর্থকদের হাতে যাওয়ায় তারাই ছিলেন সংগঠনের কর্তৃত্বে।

বাংলাদেশে আইনজীবীদের সবচেয়ে বড় সংগঠন ঢাকা বারের সর্বশেষ নির্বাচনে বিএনপি-জামায়াতপন্থিদের ভরাডুবি হয়। ২৭টি পদের মধ্যে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ ২১টি পদেই জয় পান সাদা প্যানেলের প্রার্থীরা।

সাদা প্যানেলের বিজয়ীরা

সভাপতি: ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন

সহ-সভাপতি: মো. তাহেরুল ইসলাম

কোষাধ্যক্ষ: রমজান আলী শিকদার

সহ-সম্পাদক: এ কে এম রবিউল হাসান সুমন ও শেখ সিরাজুল ইসলাম সেরাজ

সদস্য: খান মোহাম্মদ শামীম আজিজ, মো. আব্দুল আজিজ মিয়া মিন্টু, নাসরীন সিদ্দিকা লিনা।

নীল প্যানেলের বিজয়ীরা

সম্পাদক: এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকন

সহ-সভাপতি: ফাহিমা নাসরীন মুন্নী

সদস্য: নাসির উদ্দিন আহমেদ অসীম, মো. নাসির উদ্দিন খান সম্রাট, রেজাউল করিম রেজা ও মো. কামাল হোসেন।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: