২১ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

শ্বশুরবাড়ির লোকজনের দেয়া আগুনে ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যু


স্টাফ রিপোর্টার ॥ শ্বশুর বাড়ির লোকজনের মারপিট ও তাদের দেয়া আগুনে দগ্ধ ভোলা চরফ্যাশনের ছাত্রলীগ নেতা মেহেদী হাসান (২৫) অবশেষে মারা গেছে। বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে। নিহত মেহেদী হাসানের বাবার নাম মাইনুদ্দিন মাস্টার। গ্রামের বাড়ি ভোলা জেলার চরফ্যাশনে। তিনি চরফ্যাশন পৌর ছাত্রলীগের যুগ্ম সম্পাদক ছিলেন। মেহেদীর বাবা মাইনুদ্দিন মাস্টার জানান, ৩ মাস আগে চরফ্যাশন উপজেলার জুয়েনা নামে এক মেয়ের সঙ্গে মেহেদীর বিয়ে হয়। এর কিছু দিন পর বাবার বাড়ি চলে যান জুয়েনা। চলতি বছরের ২০ মার্চ সকালে স্ত্রী (জুয়েনা) তাকে ফোন করে তাদের বাড়িতে ডেকে নিয়ে যায়। এদিন জুয়েনার ভাই খোকন ও তার বাবা মিলে মেহেদীকে মারপিট করে ও গায়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। তার চিৎকারে স্থানীয়রা প্রথমে মেহেদীকে অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল নেয়া হয়। সেখানে অবস্থা অবনতি হলে তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার সকালে তার মৃত্যু হয়। ঢামেক পুলিশ ক্যাম্প ইনচার্জ মোজাম্মেল হক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, মেহেদীর লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরী করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক মর্গে পাঠানো হয়েছে। দুপুরে তার লাশের ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের হাতে হস্তান্তর করা হয়েছে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: