২৩ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

চুম্বনের সময় কেন চোখ বন্ধ থাকে?


চুম্বনের সময় কেন চোখ বন্ধ থাকে?

অনলাইন ডেস্ক॥ চুম্বনের সময় চোখ কেন বন্ধ হয়- এ প্রশ্ন আর হালকা করে দেখার উপায় নেই! চুমু খাওয়ার সময় অনেকেরই চোখ বন্ধ করতে দেখা যায়। কিন্তু ঠিক কী কারণে এ সময় চোখ বন্ধ হয়, তা জানা নেই মানুষের। তবে গবেষকরা এ বিষয়টি নিয়ে অনুসন্ধান শুরু করেছেন এবং বেশ কিছু সম্ভাব্য কারণ নির্ণয় করা সম্ভব হয়েছে। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে ফক্স নিউ।

চুমু খাওয়ার বিষয়টি নিয়ে যে গবেষকরা বেশ গুরুত্বের সঙ্গে অনুসন্ধান করছেন, তা জানা গেছে সাম্প্রতিক এক গবেষণা প্রতিবেদনে। বেশ কিছুদিন ধরে গবেষণার পর গবেষকরা এ বিষয়ে তাদের গবেষণার অগ্রগতি তুলে ধরেছেন জার্নাল অব এক্সপেরিমেন্টাল সাইকোলজি : হিউম্যান পারসেপশন অ্যাপন্ড পারফর্মেন্স-এ। এ গবেষণায় চুমু খাওয়ার সময় চোখ কেন বন্ধ হয়ে যায় সে বিষয়ে বেশ কিছু বিশ্লেষণ করা হয়েছে।

যুক্তরাজ্যের ইউনিভার্সিটি অব লন্ডনের গবেষকরা এ বিষয়টি অনুসন্ধানে ১৬ জন স্বেচ্ছাসেবক অন্তর্ভুক্ত করেন। এরপর তাদের বিভিন্ন প্রতিকূল পরিবেশে চুমু খাওয়ার কাজটি করতে বলা হয়। এছাড়া এ সময় তাদের ডান বা বাম হাত দিয়ে কিছু কাজ করতে দেওয়া হয়। এতে অংশগ্রহণকারীরা চোখের কাজ থাকার পরও চুমু খাওয়ার সময় চোখ বন্ধ করেন কি না, তা জানার চেষ্টা করা হয়।

এ বিষয়ে ইউনিভার্সিটি অব লন্ডনের পোস্টডক্টরাল সাইকোলজি রিসার্চ অ্যাসোসিয়েট ড. স্যান্ড্রা মারফি বলেন, ‘এটি ইতোমধ্যেই জানা গেছে যে, দৃষ্টিবিষয়ক কাজের চাহিদা থাকলে তা দৃষ্টি ও শ্রবণক্ষমতায় সাড়া দেওয়ার ক্ষমতা কমায়।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের গবেষণা এ বিষয়টিকে স্পর্শের ক্ষেত্রেও বিস্তৃত করেছে।’

গবেষণাপত্রটির লেখক পলি ড্যালটন ইউনিভার্সিটি অব লন্ডনের একজন সিনিয়র লেকচারার। তিনি বলেন, ‘তাদের গবেষণায় যেসব তথ্য পাওয়া গেছে, তা পরবর্তীতে ব্যাখ্যা করতে সাহায্য করবে যে- কেন আমরা চুমু খাওয়ার সময় চোখ বন্ধ করি।’

ড্যালটন আরও বলেন, ‘আমাদের গবেষণায় দেখা গেছে, ‘দৃষ্টিশক্তি ব্যবহৃত হয় এমন কাজে চাহিদা বৃদ্ধি পেলে স্পর্শানুভূতি কমে যায়।’

আর এ কারণেই মানুষ চোখ বন্ধ করে ফেলে। ফলে চোখ বন্ধ করলে অনুভূতি বৃদ্ধি পায় বলেই মনে করছেন গবেষকরা।

চোখ বন্ধ করলে বর্তমান কাজটিতে মানুষের মস্তিষ্কের অনুভূতি বৃদ্ধি পায়, যা তাদের বিষয়টি পরিপূর্ণভাবে উপভোগ করায় সহায়তা করে। এক্ষেত্রে চুমু খাওয়ার বিষয়টি যেহেতু অনুসন্ধান করা হচ্ছে, তাই এটি চুমুর অনুভূতি পরিপূর্ণভাবে মস্তিষ্কে স্থানান্তরে সহায়তা করে, এমনটাই মন গবেষকদের।