২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট পূর্বের ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

ওয়াল স্ট্রিটের কর্মচারীদের বার্ষিক বোনাস ২৫ বিলিয়ন ডলার!


ওয়াল স্ট্রিটের কর্মচারীদের বার্ষিক বোনাস ২৫ বিলিয়ন ডলার!

অনলাইন ডেস্ক॥ শুধু নিউ ইয়র্ক সিটিতেই কর্মরত ওয়াল স্ট্রিটের এক লাখ ৭২ হাজার কর্মচারীকে গত বছর বোনাস হিসেবে প্রদান করা হয়েছে ২৫ বিলিয়ন ডলার। যা সারা আমেরিকায় ন্যুনতম মজুরিতে কর্মরতদের সারা বছরের মোট বেতনের দ্বিগুণ। নিউ ইয়র্ক স্টেট কম্পট্রোলার টমাস ডি ডিনাপলি এ চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রকাশ করেছেন।

পর্যালোচনামূলক এক প্রতিবেদনে স্টেট কম্পট্রোলার উল্লেখ করেন, ফেডারেল ন্যুনতম মজুরি ঘণ্টায় ৭.২৫ ডলার। এ বেতনে ২০১৪ সালে সপ্তাহে গড়ে ৩৫ ঘণ্টা করে কাজ করেন আট লাখ ৯৫ হাজার শ্রমিক। তারা ওই বছর বেতন বাবদ পেয়েছেন ১২ বিলিয়ন ডলার। ইন্সটিটিউট ফর পলিসি স্টাডিজের উদ্ধৃতি দিয়ে স্টেট কম্পট্রোলার উপরোক্ত তথ্য প্রকাশ করেছেন।

প্রেসিডেন্ট মনোনয়ন লাভে থাকা দলীয় প্রার্থীরা যখন যুক্তরাষ্ট্রের পরিশ্রমী মানুষদের মধ্যে অর্থনৈতিক বৈষম্যের লাগামহীন ব্যবধানের অভিযোগ উত্থাপন করছেন, ঠিক সেই সময় ওয়াল স্ট্রিটের বেতন-বোনাসের সুনির্দিষ্ট তথ্য জাতির সামনে উপস্থাপন করা হলো যা যুক্তরাষ্ট্রের সমাজে বিদ্যমান বৈষম্যেরও একটি নগ্ন চিত্র বলে মনে করছেন সুধীজন।

অপরদিকে, ন্যাশনাল এমপ্লয়মেন্ট ল প্রজেক্টের পক্ষ থেকে ২০১২ সাল থেকে স্লোগান উঠেছে দ্রব্যমূল্যের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে ন্যুনতম মজুরি ঘণ্টা ১৫ ডলারে বৃদ্ধির জন্যে। এর পরিপ্রেক্ষিতে ফাস্ট ফুড রেস্টুরেন্টের শ্রমিকরা রাজপথে নেমেছিলেন। এসব সত্ত্বেও এখন পর্যন্ত শ্রমিক-কর্মচারীরা ৪২ ঘণ্টায় গড়ে ১৫ ডলারের কম বেতন পাচ্ছেন। ম্যাকডোনাল্ড, ডানকিন ডোনাট, সাবওয়ে স্যান্ডইচসহ ফাস্ট ফুড রেস্টুরেন্টে কর্মচারীর সংখ্যা হচ্ছে ২৬ লাখ।

ইন্সটিটিউট ফর পলিসি স্টাডিজের পক্ষ থেকে আরো বলা হয়েছে, সারা আমেরিকায় হোম কেয়ার এইডের সংখ্যা হচ্ছে ১৬ লাখ। যে ২৫ বিলিয়ন ডলারের বোনাস নিয়েছে ওয়ালস্ট্রিটের কর্মচারীরা, তা দিয়ে এই ১৬ লাখেরও ন্যুনতম মজুরি ঘণ্টা ১৫ ডলারে বৃদ্ধি করা সম্ভব ছিল। ওয়ালস্ট্রিটের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বোনাস দিয়ে জাতিগতভাবে যুক্তরাষ্ট্রের কোনো উন্নতি ঘটেনি। সে স্থলে ওই অর্থ যদি খেটে খাওয়া মানুষদের জন্য ব্যয় করা হতো, তাহলে সামগ্রিক অর্থনীতিতে এর সুফল আসতো খুব সহজে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: