মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১১ আশ্বিন ১৪২৪, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

‘ম্যাচটা বাংলাদেশের জেতা উচিত ছিল’

প্রকাশিত : ২৪ মার্চ ২০১৬, ১১:২১ এ. এম.
‘ম্যাচটা বাংলাদেশের জেতা উচিত ছিল’

অনলাইন ডেস্ক ॥ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে শ্বাসরুদ্ধকর এক ম্যাচে বাংলাদেশের বিপক্ষে এক রানে জিতেছে ভারত।

ভারতের করা ১৪৬ রানের জবাবে কুড়িতম ওভারের শেষ তিন বলে তিনটি উইকেট হারিয়ে হেরে যায় বাংলাদেশ।

হেরে যাবার পর বাংলাদেশের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা বলেছেন একটু ‘সেন্সিবল’ খেললেই ম্যাচটি বাংলাদেশের হতে পারতো।

ম্যাচ প্রসঙ্গে ক্রিকেট বিশ্লেষক বোরিয়া মজুমদার বলেছেন, “শেষ মুহুর্তে মুশফিক দুটো বাউন্ডারি মারার পর একটা সিঙ্গেল নিয়ে নিলেই ম্যাচটা টাই হয়ে যায়। মুশফিক বড় শট খেললো, মাহমুদুল্লাহ খেললো। আমি বারবার ক্যাপ্টেন্সির কথা বলছি। ওই সময় মাশরাফির ম্যাসেজ পাঠানো দরকার ছিল-একটা মেসেজ-তোমরা সিঙ্গেল নাও, কোনও বড় শট খেলার দরকার নেই, আমরা ম্যাচটা বের করে নিয়েছি। আমরা জিতে যাবো”।

“এক্সপেরিয়েন্স এবং টেম্পারমেন্টের অভাবে বাংলাদেশ এ ম্যাচটা হেরে গেল। ভারত এটাকে ভাগ্য বা ভগবানের হাত যাই বলুকনা কেন। কিন্তু বাংলাদেশের এই ম্যাচটা একশোভাগের একশো ভাগ জেতা উচিত ছিল”-বলেন মি: মজুমদার।

বড় ম্যাচগুলোতে যখন এমন টানটান উত্তেজনা তৈরি হয় সেটাকে নিয়ন্ত্রণ করার জন্য খেলোয়াড়দের নিজেদের স্নায়ুকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে হয়-বলছিলেন বোরিয়া মজুমদার।

মি: মজুমদার বলছিরেন, “এই স্নায়ুকে কন্ট্রোলে রাখাটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। মুশফিক যে চার মারলেন-দারুণ শট খেললেন কিন্তু এরপর তিনি উচ্ছ্বাস দেখানো শুরু করলেন! তখনোতো জেতেননি। আরও কিছু রানতো বাকী ছিল। আগে সেটা করুন-তারপর উচ্ছ্বাস”!

“এই যে জেতার আগেই উচ্ছ্বাসটা –এটা ছিল প্রিম্যাচিউর। লাস্ট মোমেন্টে এসে জেতা এটা কিন্তু খুবই স্নায়ুচাপের বিষয়”।

“জেতাতা একটা হ্যাবিট। বড় দলগুলোকে যতদিননা অভ্যাসের মতো হারাতে পারবেন ততদিন স্নায়ু কন্ট্রোলে আসেনা”-বলেন মি: মজুমদার।

কিন্তু পুরো ম্যাচে দারুণ পারফরম্যান্স ছিল বাংলাদেশের। বোলিং, ফিল্ডিং-সব মিলিয়ে ভারতের মাঠে ভারতকে ১৪৬ রানে আটকে ফেলা দারুণ খেলারই ফল বলে উল্লেখ করেন বোরিয়া মজুমদার।

সূত্র : বিবিসি বাংলা

প্রকাশিত : ২৪ মার্চ ২০১৬, ১১:২১ এ. এম.

২৪/০৩/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ:
রোহিঙ্গা সমস্যার সৃষ্টি মিয়ানমারের ॥ সমাধান ওদের হাতে || বাবার ফেরার অপেক্ষায় পিতৃহারা অবোধ রোহিঙ্গা শিশুরা || বছরে রফতানি আয় বাড়ছে ৩ থেকে ৪ বিলিয়ন ডলার || চালের বাজারে স্বস্তি প্রতিদিন দাম কমছে || বিদ্যুতের পাইকারি দর ১১.৭৮ ভাগ বৃদ্ধির সুপারিশ || মিয়ানমারে গণহত্যা বন্ধ নির্ভর করছে নিরাপত্তা পরিষদের ওপর || রোহিঙ্গা শরণার্থীদের স্বাস্থ্য সেবায় ২৫ কোটি ডলার চেয়েছে বাংলাদেশ || আরও মোবাইল ব্যাংকিং কোম্পানির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক || অপকৌশলে রোগীদের সঙ্গে প্রতারণা, বিপুল অর্থ আদায় || জেলে মাদক ও মোবাইল ফোন ব্যবহার ॥ সারাদেশে দুই শতাধিক কারারক্ষী গোয়েন্দা নজরদারিতে ||