২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

মৌলভীবাজারের চার রাজাকারের বিরুদ্ধে চূড়ান্ত রিপোর্টপ্রকাশ


স্টাফ রিপোর্টার ॥ একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলার চার রাজাকারের বিরুদ্ধে তদন্তের চূড়ান্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করেছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের তদন্ত সংস্থা। অন্যদিকে কক্সবাজারের মহেশখালী উপজেলার সালামত উল্লাহ খানসহ ১৯ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ আমলে নিয়েছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। সেই সঙ্গে মামলার পলাতক আসামিদের বিষয়ে প্রতিবেদন দিতে প্রসিকিউশনকে নির্দেশ দিয়েছেন। ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলার রিয়াজ উদ্দিন ফকিরের (৬০) বিরুদ্ধে অভিযোগ আমলে নিবেন কিনা সে বিষয়ে আদেশের জন্য ২৯ মার্চ দিন ধার্র্য করেছেন ট্রাইব্যুনাল। গ্রেফতারকৃত ময়মনসিংহ-৭ (ত্রিশাল) আসনের জাতীয় পাটির সংসদ সদস্য এম এ হান্নানসহ চারজনের বিরুদ্ধে অগ্রগতি প্রতিবেদন দাখিল করেছে প্রসিকিউশন পক্ষ। ২৪ মে ফরমাল চার্জ দাখিলের জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে। চেয়ারম্যান বিচারপতি আনোয়ারুল হকের নেতৃত্বে তিন সদস্য বিশিষ্ট আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ বুধবার এ আদেশগুলো প্রদান করেছে।

মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলার চারজনের বিরুদ্ধে তদন্তের চূড়ান্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করেছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের তদন্ত সংস্থা। আসামিরা হলেন- মোঃ আকমল আলী তালুকদার (৭৬), আব্দুন নুর তালুকদার ওরফে লাল মিয়া (৬২), মোঃ আনিছ মিয়া (৭৬) ও মোঃ আব্দুল মোছাব্বির মিয়া (৬৪)। চার আসামির মধ্যে গত বছরের ২৬ নবেম্বর গ্রেফতার হয়ে কারাগারে আছেন আকমল আলী তালুকদার। বাকি তিনজন পলাতক। আসামিদের বিরুদ্ধে হত্যা-গণহত্যা, ধর্ষণ, অপহরণ, আটক, নির্যাতন, মরদেহ গুম, লুণ্ঠন ও অগ্নিসংযোগসহ মানবতাবিরোধী অপরাধের দু’টি অভিযোগ আনা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে ৬১ জনকে হত্যা-গণহত্যা ও ৬ জনকে ধর্ষণের অভিযোগ। তারা একাত্তরের ৭ মে থেকে ২৪ নবেম্বর পর্যন্ত রাজনগর উপজেলার পাঁচগাঁও ও পশ্চিমভাগ গ্রামে এসব মানবতাবিরোধী অপরাধ সংঘটন করেছেন। বুধবার (২৩ মার্চ) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে তদন্ত সংস্থার ধানম-ির কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলার এ ৩৮তম চূড়ান্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়।

তদন্ত সংস্থার প্রধান সমন্বয়কারী আব্দুল হান্নান খান, জ্যেষ্ঠ সমন্বয়ক সানাউল হক ও তদন্তকারী কর্মকর্তা হরি দেবনাথ তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করে জানান, বুধবারই প্রতিবেদনটি প্রসিকিউশনের কাছে হস্তান্তর করা হবে। এর ভিত্তিতে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ (ফরমাল চার্জ) তৈরি করে ট্রাইব্যুনালে দাখিল করবেন প্রসিকিউশন। আব্দুল হান্নান খান জানান, ২০১৪ সালের ১২ অক্টোবর থেকে বুধবার পর্যন্ত মোট এক বছর ৫ মাস ১ দিনে আসামিদের বিরুদ্ধে তদন্ত সম্পন্ন করেছেন তদন্ত কর্মকর্তা হরি দেবনাথ। মোট ১৯৪ পৃষ্ঠার তদন্ত প্রতিবেদনের মধ্যে রয়েছে মূল তদন্ত প্রতিবেদন ৭৬ পৃষ্ঠা, জবানবন্দি ৬১ পৃষ্ঠা, জব্দ তালিকা ৪৫ পৃষ্ঠা এবং অন্যান্য ২২ পৃষ্ঠা। ৪০ জনের জবানবন্দি গ্রহণ করা হয়েছে, যারা ট্রাইব্যুনালে সাক্ষী দেবেন আসামিদের বিরুদ্ধে।

আসামিদের রাজনৈতিক পরিচয় সম্পর্কে সানাউল হক জানান, চারজনই মুক্তিযুদ্ধবিরোধী মুসলিম লীগের সমর্থক ছিলেন। মূল আসামি মোঃ আকমল আলী তালুকদার ছিলেন শান্তি কমিটির সদস্য। তিনি মৌলভীবাজার টাউন কামিল মাদ্রাসার অবসরপ্রাপ্ত ভাইস প্রিন্সিপাল। বর্তমানে কোন রাজনৈতিক কর্মকা-ে জড়িত নন। বাকি তিনজনই বর্তমানে জামায়াতের সক্রিয় কর্মী। আগামী ৫ এপ্রিল এ মামলার তদন্তের চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিলের দিন ধার্য রয়েছে ট্রাইব্যুনাল-১ এ। গত বছরের ২৬ নবেম্বর রাজনগরের চার আসামির বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির পর ওইদিনই উপজেলার পাঁচগাঁও এলাকার নিজ বাড়ি থেকে আকমল আলী তালুকদারকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

কক্সবাজারের ১৯ রাজাকার ॥ মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় কক্সবাজারের মহেশখালী উপজেলার সালামত উল্লাহ খানসহ ১৯ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ আমলে নিয়েছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। সেই সঙ্গে মামলার পলাতক আসামিদের বিষয়ে প্রতিবেদন দিতে প্রসিকিউশনকে নির্দেশ দিয়েছেন। একই সঙ্গে এ মামলার পরবর্তী আদেশের জন্য আগামী ২৫ মে দিন ধার্য করেছেন ট্রাইব্যুনাল। বুধবার ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান বিচারপতি আনোয়ারুল হকের নেতৃত্বে তিন সদস্যের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল এই আদেশ দেন। এসময় রাষ্ট্রপক্ষে উপস্থিত ছিলেন প্রসিকিউটর রানা দাশগুপ্ত। অপরদিকে আসামি সালামত উল্লাহর পক্ষে আইনজীবী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আইনজীবী আব্দুস সাত্তার পালোয়ান ও তারিকুল ইসলাম।

এ মামলার অন্য আসামিরা হলেন, মৌলভী জকরিয়া শিকদার (৭৮), মোঃ রশিদ মিয়া বিএ (৮৩), অলি আহমদ (৫৮), মোঃ জালাল উদ্দিন (৬৩) , মোলভী নুরুল ইসলাম (৬৩), মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম সাবুল (৬৩), মমতাজ আহম্মদ (৬০), হাবিবুর রহমান (৭০), মোলভী আমজাদ আলী (৭০), মৌলভী আব্দুল মজিদ (৮৫), বাদশা মিয়া (৭৩), ওসমান গণি (৬১), আব্দুল শুক্কুর (৬৫), মোলভী সামসুদ্দোহা (৮২), মোঃ জাকারিয়া (৫৮), মোঃ জিন্নাহ ওরফে জিন্নাত আলী (৫৮), মোলভী জালাল (৭৫) ও আব্দুল আজিজ (৬৮)।

ফুলবাড়িয়ার রিয়াজ ফকির ॥ মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলার রিয়াজ উদ্দিন ফকিরের (৬০) বিরুদ্ধে অভিযোগ আমলে নিবেন কিনা সে বিষয়ে আদেশের জন্য ২৯ মার্চ দিন ধার্য করেছেন ট্রাইব্যুনাল। বুধবার ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান বিচারপতি আনোয়ারুল হকের নেতৃত্বে তিন সদস্যের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল এ আদেশ দেন। শুনানিতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন প্রসিকিউটর হৃষিকেশ সাহা ও শেখ মুশফিক কবির। একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হওয়া দুই আসামিকে গত ১১ আগস্ট ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলা এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, রিয়াজ ফকির (৬০) ও আমজাদ হাজি (৮৫)।

হান্নানসহ ৪ রাজাকার

একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে গ্রেফতারকৃত ময়মনসিংহ-৭ (ত্রিশাল) আসনের জাতীয় পাটির সংসদ সদস্য এম এ হান্নানসহ চারজন রাজাকারের বিরুদ্ধে তদন্তের অগ্রগতি প্রতিবেদন দাখিল করেছে প্রসিকিউশন পক্ষ। আগামী ২৪ মে ফরমাল চার্জ দাখিলের জন্য দিন নির্ধারণ করা হয়েছে। চেয়ারম্যান বিচারপতি আনোয়ারুল হকের নেতৃত্বে তিন সদস্যবিশিষ্ট আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ এ আদেশ প্রদান করেছেন প্রসিকিউটর সুলতান মুহাম্মদ সিমন সময়ের আবেদন করলে ট্রাইব্যুনাল উক্ত দিন নির্ধারণ করেন।