মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৩ আগস্ট ২০১৭, ৮ ভাদ্র ১৪২৪, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

টিকে থাকার যুদ্ধ

প্রকাশিত : ২৪ মার্চ ২০১৬

শাইলিন উডলি। যার প্রিয় রং কালো, যার প্রিয় খাবার তালিকায় পোকামাকড়। তিনি এসেছেন , নতুন ছবি ‘এ্যালিগেন্ট’ নিয়ে। টিকে থাকার এ এক নতুন সংগ্রাম! ছবিটি নিয়ে লিখেছেন রোকো শ্রাবণ

শাইলিন উডলি, এ প্রজন্মের কাছে খুবই জনপ্রিয় নাম। ‘ডাইভারজেন্ট’ ও ‘ফল্ট ইন আওয়ার স্টারস’ ছবি দুটি নিয়ে হলিউডে প্রবেশ তার। দুটিই হিট হয়, এবং সেসঙ্গে তিনি উঠে আসেন জনপ্রিয়তার তালিকায়। গত বছরের ডাইভারজেন্ট সিরিজের ‘ইনসার্জেন্ট’-এর পর এবার তিনি এসেছেন সিরিজের পরের ছবি ‘এ্যালিগেন্ট’ নিয়ে। এতে শাইলিন উডলি বেট্রিস (ট্রিস) চরিত্রে অভিনয় করেছেন, তার সঙ্গে দেখা যাবে থিও জেমসকে, টবিয়াস (ফোর) চরিত্রে।

চলচ্চিত্র ‘এ্যালিগেন্ট’ মূলত ভেরনিনা রথ-এর বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনী অবলম্বনে নির্মিত হয়েছে। ২০১৫ সালে মুক্তি পাওয়া ‘ইনসার্জেন্ট’-এর ঘটনাক্রমের সঙ্গে সংযোগ রক্ষা করেই নির্মিত হয়েছে এটি। বেঁচে থাকার জন্য ট্রিসকে সাহসিকতা, আনুগত্য আর ত্যাগের এক অসম্ভব চয়েসের মুখোমুখি হতে বাধ্য হতে হয় চলচ্চিত্রটিতে। অন্য এক খবর অনুযায়ী, এ ছবির মাধ্যমে থিও জেমস ফিরছেন। জেমসের প্রেমিকার চরিত্র রূপায়ন করছেন উডলি। গুজব শোনা যাচ্ছে যে, ‘এ্যালিগেন্ট’-এর শূটিং করতে গিয়ে এ জুটির মাঝে অনস্ক্রিন কেমিস্ট্রির পাশাপাশি অফস্ক্রিন কেমিস্ট্রিও গড়ে উঠেছে।

নতুন মুক্তি পাওয়া ট্রেলারে তাদের একসঙ্গে শাওয়ার নিতে দেখা যাচ্ছে। জেমস বলছেন, ‘আমরা একসঙ্গে ঘোরাঘুরি করি। এটা মজার। এমনকি আমরা সবাই একই এ্যাপার্টমেন্টে ছিলাম। সবাই একই বিছানা শেয়ার করেছি। উডলিকে আমি প্রতিরাতেই জড়িয়ে ধরে ঘুমিয়েছি।’ এদিকে জোর গুজব, জেমসের দীর্ঘদিনের প্রেমিকা রুথ কেনির সঙ্গে জেমসের বিচ্ছেদ ঘটেছে।

‘এ্যালিগেন্ট’ ছবির পরিচালক রবার্ট শেন্টক। ১৮ মার্চ মুক্তি পেয়েছে ছবিটি। উডলিকে নিয়ে মজার একটি তথ্য জেনে নেয়া যাক, তার প্রিয় খাবার কি জানেন? অনুমান করুন তো! পোকামাকড়! এ নিয়ে উডলি বলছেনও, ‘জীবনে প্রচুর পিঁপড়া খেয়েছি। দারুণ স্বাদ! জুন বাগ (এক ধরনের গুবরে পোকা) তো অসাধারণ! আমার তো মনে হয়, খাবারের ভবিষ্যত লুকানো আছে এসব পোকামাকড়ের মধ্যেই।’ ভাবা যায়?

প্রকাশিত : ২৪ মার্চ ২০১৬

২৪/০৩/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: