২০ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ২ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

চেয়ারম্যান হলেন যারা


জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে প্রথম দফার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন। উৎসবমুখর পরিবেশে দীর্ঘলাইনে দাঁড়িয়ে ভোট দিয়েছেন ভোটাররা। নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ীরা হলেন-

বগুড়া

সারিয়াকান্দি উপজেলার ফুলবাড়ি ইউনিয়নে আনোয়ারুত তারিক, হাটশেরপুরে মতিয়ার রহমান, নারচিতে আলতাফ হোসেন, ভেলাবাড়িতে রুবেল উদ্দিন, কামালপুরে হেদায়েতুল ইসলাম ও কর্নিবাড়িতে আজাহার আলী- তারা সবাই আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়া সারিয়াকান্দি সদরে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আব্দুল কাফি বিজয়ী হয়েছেন।

কুতুবপুরে ইমরান আলী, বোহাইলে আব্দুল মজিদ চন্দবাইশায় বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী শাহাদত হোসেন দুলাল নির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়া চালুয়াবাড়ি ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুল কুদ্দুস নির্বাচিত হয়েছেন। দুপচাঁচিয়া উপজেলার তালোরা ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী মেহেরুল ইসলাম নির্বাচিত হয়েছেন।

গলাচিপায় আওয়ামী লীগের বিজয়ীরা হচ্ছেন- আমখোলা ইউনিয়নে মোঃ কামরুজ্জামান মনির, গোলখালী ইউনিয়নে মুঃ নাসিরউদ্দিন, পানপট্টি ইউনিয়নে আবুল কালাম, রতনদী-তালতলী ইউনিয়নে গোলাম মোস্তফা খান, ডাকুয়া ইউনিয়নে মোঃ বদরুল ইসলাম বাদল খান, চিকনিকান্দী ইউনিয়নে এরশাদ হোসেন বাদল, গজালিয়া ইউনিয়নে খালিদুল ইসলাম স্বপন, বকুলবাড়িয়া ইউনিয়নে আবু জাফর খান, কলাগাছিয়া ইউনিয়নে দুলাল চৌধুরী, চরকাজল ইউনিয়নে সাইদুর রহমান রুবেল। গলাচিপা সদর ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাদি। এছাড়া রাঙ্গাবালী সদর ইউনিয়নে সাইদুজ্জামান মামুন খান, ছোটবাইশদিয়া ইউনিয়নে এবিএম আব্দুল মান্নান, চালিতাবুনিয়া ইউনিয়নে ফজলুর রহমান হাওলাদার ও চরমোন্তাজ ইউনিয়নে মোঃ হানিফ মিয়া নির্বাচিত হয়েছেন।

বাগেরহাট

বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলার সাউথখালী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মোজাম্মেল হোসেন, ধানসাগর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মইনুল হোসেন, খোন্তাকাটা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের জাকির হোসেন খান মহিউদ্দিন ও রায়েন্দা ইউনিয়নে আসাদুজ্জামান মিলন।

রামপাল উপজেলার বাইনতলা ইউনিয়নে আব্দুল্লাহ ফকির আওয়ামী লীগ, বাঁশতলী ইউনিয়নে শেখ মোহাম্মদ আলী আওয়ামী লীগ, পেড়িখালী ইউনিয়নে রফিকুল ইসলাম বাবুল, রাজনগর ইউনিয়নে সরদার আ. হান্নান আওয়ামী লীগ, রামপাল সদর ইউনিয়নে এস এম জামিল হাসান আওয়ামী লীগ, ভোজপাতিয়া ইউনিয়নে নুরুল আমিন আওয়ামী লীগ, গৌরম্ভা ইউনিয়নে গিয়াস উদ্দিন গাজী আওয়ামী লীগ, উজলকুড় ইউনিয়নে গাজী আক্তারুজ্জামান আওয়ামী লীগ, হুড়কা ইউনিয়নে তপন কুমার গোলদার আওয়ামী লীগ।

ফকিরহাট উপজেলার লকপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের আবুল হোসেন, পিলজঙ্গ ইউনিয়নে খান শামীম জামান পলাশ আওয়ামী লীগ, বাহিরদিয়া মানসা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের রেজাউল করিম ফকির, বেতাগা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের স্বপন কুমার দাস, শুভদিয়া ইউনিয়নে শাহীদুল ইসলাম, নলধা-মৌভোগ ইউনিয়নে কাজী মুহম্মদ মহসীন আওয়ামী লীগ।

মংলা উপজেলার মিঠাখালী ইউনিয়নে ইস্রাফিল হাওলাদার আওয়ামী লীগ, চাঁদপাই ইউনিয়নে মোল্লা তরিকুল ইসলাম আওয়ামী লীগ, বুড়িরডাঙ্গা ইউনিয়নে নিখিল চন্দ্র রায় আওয়ামী লীগ, সুন্দরবন ইউনিয়নে শেখ কবির উদ্দিন আওয়ামী লীগ, চিলা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের গাজী আকবর হোসেন। কচুয়া উপজেলার গোপালপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের এস এম আবুবক্কর সিদ্দিক, রাঢ়ীপাড়া ইউনিয়নে মা-ছেলের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রাথী তাছলিমা বেগম, মঘিয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের পংকজ কান্তি অধিকারী।

সদর উপজেলার ষাটগম্বুজ ইউনিয়নে শেখ আক্তারুজ্জামান বাচ্চু আওয়ামী লীগ। মোড়েলগঞ্জ উপজেলার মোড়েলগঞ্জ সদর ইউনিয়নে মাহমুদ আলী হাওলাদার আওয়ামী লীগ, বারুইখালী ইউনিয়নে শফিকুর রহমান লাল আওয়ামী লীগ, নিশানবাড়ীয়া ইউনিয়নে আব্দুর রহিম হাওলাদার আওয়ামী লীগ, হোগলাবুনিয়া ইউনিয়নে আকরামুজ্জামান স্বতন্ত্র, বহরবুনিয়া ইউনিয়নে টিএম রিপন আওয়ামী লীগ, বলইবুনিয়া ইউনিয়নে মোঃ শাহজাহান আলী খান আওয়ামী লীগ, হোগলাপাশা ইউনিয়নে রেজাউল ইসলাম (নান্না) আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী, খাউলিয়া ইউনিয়নে আবুল খায়ের হাওলদার আওয়ামী লীগ, রামচন্দ্রপুর ইউনিয়নে এইচ এম মিজানুর রহমান আওয়ামী লীগ দৈবজ্ঞহাটী ইউনিয়নে শহীদুল ইসলাম ফকির আওয়ামী লীগ, পুটিখালী ইউনিয়নে মোঃ শাহচান মিয়া শামীম আওয়ামী লীগ, বনগ্রাম ইউনিয়নে রিপন চন্দ্র দাস আওয়ামী লীগ, জিউধরা ইউনিয়নে জাহাঙ্গীর বাদশা আওয়ামী লীগ।

সাতক্ষীরা

সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ধুলিহর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মিজানুর রহমান, ঝাউডাঙ্গা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের আজমল উদ্দিন, ফিংড়ি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের শামসুর রহমান, বৈকারী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের আসাদুজ্জামান অসলে, বাশদাহ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মোশারফ হোসেন, ঘোনা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের ফজলুর রহমান, বল্লী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বজলুর রহমান, কুশখালী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী শফিকুল ইসলাম, আগড়দাড়ি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী মজনুর রহমান, ভোমরা ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী ইসরাইল গাজী, লাবসা ইউনিয়নে বিএনপির প্রার্থী আব্দুল আলিম, শিবপুর ইউনিয়নে বিএনপির আব্দুল মজিদ, ব্রহ্মরাজপুর ইউনিয়নে বিএনপির প্রার্থী শহীদুল ইসলাম নির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়া আলিপুর ইউনিয়নের চারটি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত থাকায় ফলাফল ঘোষণা হয়নি।

তালা উপজেলার ধানদিয়া ইউনিয়নে বিএনপির প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম, তালা সদর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের জাকির হোসেন, খলিসখালী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মোজাফফর রহমান, নগরঘাটা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের কামরুজ্জামান লিপু, খেশরা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের রাজীব হোসেন রাজু, সরুলিয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মতিয়ার রহমান, জালালপুরে ইউনিয়নে বিএনপির মফিদুল হক লিটু, ইসলামকাটি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের সুভাষ সেন, তেঁতুলিয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের রফিকুল ইসলাম, মাগুরা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের গণেশ দেবনাথ, খলিলনগরে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী এস এম আজিজুর রহমান নির্বাচিত হয়েছে। এছাড়া কুমিরা ইউনিয়নের তিনটি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত থাকায় ফলাফল ঘোষণা হয়নি।

শ্যামনগরের সদর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থী জহুরুল হায়দার, আটুলিয়ায় ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী আবু ছালেহ বাবু, বুড়িগোয়ালিনি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ভবতোষ কুমার ম-ল, ঈশ্বরীপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের শোকর আলী, গাবুরা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের আলী আজম টিটু, রমজাননগর ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী শেখ আল মাসুদ, নুরনগর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বখতিয়ার হোসেন, ভুরুলিয়া ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী মাওলানা ফারুক হোসেন, পদ্মপুকুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের আতাউর রহমান, মুন্সীগঞ্জে ইউনিয়নে বিএনপির কাশেম মোড়ল ও কাশিমাড়ি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আব্দুর রউফ নির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়া কৈখালী ইউনিয়নের তিনটি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত থাকায় ফলাফল ঘোষণা হয়নি।

আশাশুনি উপজেলার বুধহাটা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আ ব ম মোছাদ্দেক, শ্রীউলা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের আবু হেনা সাকিল, বড়দল ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের আব্দুল আলীম মোল্যা, কাদাকাটি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের দীপংকর কুমার সরকার, কুল্যা ইউনিয়নে বিএনপির এস এম রফিকুল ইসলাম, আনুলিয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের আলমগীর আলম লিটন, খাজরা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের শাহনেওয়াজ ডালিম, প্রতাপনগর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের জাকির হোসেন, শোভনালী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মোনায়েম হোসেন, দরগাহপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের শেখ মিরাজ আলী, আশাশুনি সদর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী স ম সেলিম রেজা মিলন নির্বাচিত হয়েছেন।

কলারোয়া উপজেলার বিজয়ীরা হলেনÑ যুগিখালি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থী রবিউল হাসান, লাঙ্গলঝাড়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী নুরুল ইসলাম, জয়নগর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের সামসুদ্দিন আল মাসুদ, কেড়াগাছি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী আফজাল হোসেন, চন্দনপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মনিরুল ইসলাম মনি, হেলাতলা ইউনিয়নে বিএনপির বিদ্রোহী মোয়াজ্জেম হোসেন, দেয়াড়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মাহবুবুর রহমান, সোনাবাড়িয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মনিরুল ইসলাম, জালালাবাদ ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী শওকত আলী, কয়লা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী শেখ ইমরান হোসেন নির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়া কুশোডাঙ্গা ও কেরালকাতা ইউনিয়নের ৩টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত থাকায় ফলাফল ঘোষণা হয়নি।

কালীগঞ্জ উপজেলায় নির্বাচিতরা হলেনÑ ধলবাড়িয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থী গাজী শওকত হোসেন, চাম্পাফুলে আওয়ামী লীগের মোজাম্মেল হক, কৃষ্ণনগরে জাতীয় পার্টির মোশারফ হোসেন, মৌতলা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের সাইদ মেহেদী, মথুরেশপুরে স্বতন্ত্র প্রার্থী মিজানুর রহমান, দক্ষিণ শ্রীপুরে আওয়ামী লীগের প্রশান্ত কুমার, নলতায় ইউনিয়নে বিএনপির আজিজুর রহমান পাড়, বিষ্ণুপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের শেখ রিয়াজ উদ্দিন, কুশলিয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের শেখ মেহেদী হাসান, রতনপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের আশরাফুল হোসেন, ভাড়াশিমলা ইউনিয়নে বিএনপির নুর মোহাম্মদ ও তারালী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের এনামুল হক নির্বাচিত হয়েছেন।

দেবহাটা সদর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আবুবকর গাজী, কুলিয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী ইমাদুল ইসলাম, নওয়াপাড়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মুজিবর রহমান, সখীপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের শেখ ফারুক হোসেন রতন নির্বাচিত হয়েছেন। পারুলিয়া ইউনিয়নের একটি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত থাকায় ফলাফল ঘোষণা হয়নি।

খুলনা

খুলনার বটিয়াঘাটা উপজেলার জলমা ইউনিয়নে আশিকুজ্জামান আশিক (বিএনপি), বটিয়াঘাটা সদর ইউনিয়নে মনোরঞ্জন ম-ল (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী), গঙ্গারামপুর ইউনিয়নে শেখ হাদীউজ্জামান হাদী (আওয়ামী লীগ), সুরখালী ইউনিয়নে আব্দুল হাদী সরদার (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী), ৫নং ভান্ডারকোট ইউনিয়নে ইসমাইল হোসেন বাবু (আওয়মী লীগের বিদ্রোহী), ৬নং বালিয়াডাঙ্গায় স্বতন্ত্র প্রার্থী গোলাম হোসেন ও আমীরপুর ইউনিয়নে জিএম মিজানুর রহমান (আওয়ামী লীগ)।

পাইকগাছা উপজেলার হরিঢালী ইউনিয়নে আবু জাফর সিদ্দিকী রাজু (স্বতন্ত্র), কপিলমুনি ইউনিয়নে কওসার আলী জোয়াদ্দার (আওয়ামী লীগ), লতা ইউনিয়নে দিবাকর বিশ্বাস (আওয়ামী লীগ), দেলুটি ইউনিয়নে রিপন কুমার ম-ল (আওয়ামী লীগ), সোলাদানা ইউনিয়নে এসএম এনামুল হক (বিএনপি), লস্কর ইউনিয়নে কেএম আরিফুজ্জামান তুহিন (আওয়ামী লীগ), গদাইপুর ইউনিয়নে গাজী জুনায়েদুর রহমান (স্বতন্ত্র), রাড়ুলী ইউনিয়নে আব্দুল মজিদ গোলদার (আওয়ামী লীগ), চাঁদখালী ইউনিয়নে জোয়াদুর রসুল বাবু (বিএনপি) ও গড়ইখালী ইউনিয়নে রুহুল আমিন বিশ্বাস (আওয়ামী লীগ)।

রূপসা উপজেলার আইচগাতী ইউনিয়নে আশরাফুজ্জামান বাবুল (আওয়ামী লীগ), শ্রীফলতলা ইউনিয়নে আলহাজ ইসহাক সরদার (আওয়ামী লীগ), নৈহাটি ইউনিয়নে কামাল হোসেন বুলবুল (আওয়ামী লীগ) ও টিএস বাহিরদিয়া ইউনিয়নে মোঃ জাহাঙ্গীর শেখ (আওয়ামী লীগ)।

দাকোপ উপজেলার পানখালী ইউনিয়নে শেখ আব্দুল কাদের (আওয়মী লীগ), দাকোপ ইউনিয়নে বিনয় কৃষ্ণ রায় (আওয়ামী লীগ), কৈলাশগঞ্জ ইউনিয়নে মিহির কুমার ম-ল (আওয়ামী লীগ), সুতারখালী ইউনিয়নে মাসুম আলী ফকির (আওয়ামী লীগ), কামারখোলা ইউনিয়নে পঞ্চানন ম-ল (আওয়ামী লীগ), তিলডাঙ্গা ইউনিয়নে রণজিত কুমার ম-ল (আওয়ামী লীগ), বাজুয়া ইউনিয়নে রঘুনাথ রায় (আওয়ামী লীগ), বানিশান্তা ইউনিয়নে সুদেব রায় (আওয়ামী লীগ) ও লাউডোব ইউনিয়নে সরোজিৎ কুমার রায় (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী)।

ডুমুরিয়া উপজেলার ধামালিয়া ইউনিয়নে রেজওয়ান হোসেন মোল্লা (আওয়ামী লীগ), রঘুনাথপুরে খান শাফুর আহম্মেদ (আওয়ামী লীগ), রুদাঘরায়ে মোস্তফা কামাল খোকন (আওয়ামী লীগ), খর্ণিয়া ইউনিয়নে শেখ দিদারুল হোসেন দিদার (বিএনপি), আটলিয়া ইউনিয়নে স ম আব্দুল কাইয়ুম (আওয়ামী লীগ), মাগুরাঘোনায় শেখ আবুল হোসেন (আওয়ামী লীগ), শোভনায় সুরঞ্জিৎ কুমার বৈদ্য (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী), শরাফপুরে শেখ রবিউল ইসলাম (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী), সাহস ইউনিয়নে শেখ জয়নাল আবেদীন (বিএনপির বিদ্রোহী), ভা-ারপাড়ায় হিমাশু বিশ্বাস (আওয়ামী লীগ), ডুমুরিয়া সদরে হুমায়ুন কবির বুলু (আওয়ামী লীগ), রংপুর ইউনিয়নে রামপ্রসাদ (আওয়ামী লীগ), গুটুদিয়ায় মোস্তফা সরোয়ার (আওয়ামী লীগ) ও মাগুরখালী ইউনিয়নে বিমল সানা (আওয়ামী লীগ)।

দিঘলিয়া উপজেলার দিঘলিয়া সদর ইউনিয়নে মোঃ ফিরোজ মোল্লা (আওয়ামী লীগ), সেনহাটী ইউনিয়নে জিয়াউর রহমান জিয়া গাজী (আওয়ামী লীগ), বারাকপুর ইউনিয়নে গাজী জাকির হোসেন (আওয়ামী লীগ), গাজীরহাট ইউনিয়নে কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী হেলাল (আওয়ামী লীগ), আড়ংঘাটায় মফিজুর রহমান জিবলু মোড়ল (আওয়ামী লীগ)। এছাড়া যোগীপোল ইউনিয়নের দুটি কেন্দ্রের ভোট স্থগিত হওয়ায় এ ইউনিয়নে ফল ঘোষণা হয়নি।

তেরখাদা উপজেলার আজগড়া ইউনিয়নে কৃষ্ণ মেনন রায় (আওয়ামী লীগ), বারাসাত ইউনিয়নে কেএম আলমগীর (আওয়ামী লীগ), মধুপুরে মোঃ মোহসিন (আওয়ামী লীগ), ছাগলাদাহে দীন ইসলাম (আওয়ামী লীগ), সাচিয়াদহে উকিল উদ্দিন লস্কর (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী) এবং তেরখাদা সদরে এফ এম অহিদুজ্জামান (আওয়ামী লীগ) বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন।

ফুলতলা উপজেলার আটরা গিলাতলা ইউনিয়নে শেখ মনিরুল ইসলাম (আওয়ামী লীগ), দামোদর ইউনিয়নে শরীফ মোহাম্মদ ভূঁইয়া শিপলু (আওয়ামী লীগ), জামিরা ইউনিয়ন পরিষদে মাওলানা সাইফুল হাসান (স্বতন্ত্র, জামায়াত) এবং ফুলতলা ইউনিয়নে শেখ আবুল বাশার (বিএনপি)। কয়রা উপজেলার কয়রা সদরে শফিকুল ইসলাম (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী), মহারাজপুরে আব্দুল্লাহ আল মামুন (আওয়ামী লীগ) আমাদি ইউনিয়নে আমীর আলী গাইন (আওয়ামী লীগ), বাগালী ইউপিতে আব্দুস সাত্তার পাড় (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী), মহেশ্বরীপুর ইউপিতে বিজয় কুমার সরদার (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী), উত্তর বেদকাশীতে নূরুল ইসলাম কোম্পানী (আওয়ামী লীগ) ও দক্ষিণ বেদকাশীতে কবি সামছুর রহমান (আওয়ামী লীগ)।

ময়মনসিংহ

ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলার বওলা ইউনিয়নে হারুন অর রশীদ (আওয়ামী লীগ), রহিমগঞ্জে আবু সাইদ সরকার (আওয়ামী লীগ), ভাইটকান্দিতে আলাউদ্দিন আহম্মেদ (আওয়ামী লীগ), ছনধরা ইউনিয়নে উবায়দুল হক (আওয়ামী লীগ), বালিয়া ইউনিয়নে আজাহারুল মুজাহিদ সরকার (বিএনপি), রূপসী ইউনিয়নে আবুল কালাম (বিএনপি), পয়ারীতে মফিজুল ইসলাম (বিএনপি), রামভদ্রপুরে রুকোনুজ্জামান রুকন (বিএনপি), ফুলপুরে জাহাঙ্গীর আলম (বিএনপি বিদ্রোহী)।

কক্সবাজার

কক্সবাজার জেলার ১৬টি ইউপি নির্বাচনে বড় মহেশখালি ইউনিয়নের ফলাফল স্থগিত থাকলেও ১১টিতে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বেসরকারীভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়া বিএনপির ৩টি, জামায়াত নেতা স্বতন্ত্র প্রার্থী একটিতে বেসরকারীভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

দিনাজপুর

হাকিমপুর উপজেলার খট্টামাধবপাড়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মোঃ মোকলেসার রহমান, বোয়ালদার ইউনিয়নে বিএনপির মেফতাহুল জান্নাত, ঘোড়াঘাট উপজেলার বুলাকিপুর ইউনিয়নে বিএনপির মাহফুজার রহমান, সিংড়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের আব্দুল মান্নান মন্ডল, ঘোড়াঘাট ইউনিয়নে বিএনপির মোঃ তৌহিদুল ইসলাম।

চরফ্যাশন

হাজারীগঞ্জ ইউনিয়নে মোঃ সেলিম হাওলাদার, ঢালচর ইউনিয়নে মোঃ ছালাম হাওলাদার, নজরুল নগর ইউনিয়নে রুহুল আমিন হাওলাদার, জাহানপুরে ইউনুছ (নসু হাজী), চর মাদ্রাজ ইউনিয়নে মোজ্জাম্মেল হক জমাদ্দার, এওয়াজপুরে মাহাবুবুর রহমান খোকন।

নেত্রকোনা

মেন্দিপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের লোকমান হেকিম, চাকুয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের আবুল কালাম আজাদ, খালিয়াজুরি সদর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী (স্বতন্ত্র) ছানায়ারুজ্জামান জুসেফ, নগর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের হরিধন সরকার, কৃষ্ণপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের নাজিম উদ্দিন সরকার, গাজীপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের আতাউর রহমান।

কলাপাড়া

চাকামইয়া ইউনিয়নে হুমায়ুন কবির কেরামত হাওলাদার টিয়াখালীতে মশিউর রহমান শিমু এবং নীলগঞ্জে এ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন মাহমুদ, চাকামইয়া ইউনিয়নের একটি কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হলেও ভোটের ব্যবধানে হুমায়ুন কবির কেরামত ওই কেন্দ্রের চেয়ে বেশি এগিয়ে থাকায় বেসরকারীভাবে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়েছে।

বরিশাল

১০ উপজেলার ৭৪টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে ৫টি ইউনিয়নের ফলাফল স্থগিত রয়েছে। বাকি ৬৯টি ইউনিয়নের ফলাফলে আ’লীগ মনোনীত নৌকা মার্কার ৬২ জন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনোনীত হাতপাখা একটি, জাতীয় পার্টির লাঙ্গল একটি, ওয়ার্কার্স পার্টির হাতুড়ী একটি ও চারজন স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী নির্বাচিত হয়েছেন। তবে ফলাফল প্রকাশ হওয়া ইউনিয়গুলোর মধ্যে বিএনপি মনোনীত ধানের শীষ প্রতীক নেয়া কোন প্রার্থী নির্বাচিত হতে পারেননি।

পাবনা

পাবনার বেড়া উপজেলার পুরান ভারেঙ্গা ইউনিয়নে এ এম রফিক উল্লাহ, কৈটলায় শওকত হোসেন, ঢালারচর ইউনিয়নে কোরবান আলী সরদার, চাকলায় ফারুক হোসেন, মাসুমদিয়া ইউনিয়নে মিরোজ হোসেন, হাটুরিয়া নাকালিয়ায় মোস্তাফিজুর রহমান, রূপপুরে আবুল হাশেম উজ্জ্বল, নতুন ভারেঙ্গায় আমজাদ হোসেন ও জাতসাখিনী ইউনিয়নে রেজাউল হক বাবু বেসরকারীভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

মাদারীপুর

বাঁশকান্দিতে আবুল বাশার মিয়া, পাঁচ্চরে মোঃ দেলোয়ার হোসেন হাওলাদার, চরজানাজাতে বজলুর রহমান সরকার, দ্বিতীয়াখ-ে মাহফুজুল করিম তালুকদার (মাসুম), শিবচরে রাজন মাদবর, কাঁঠালবাড়িতে মোহসেনউদ্দিন সোহেল বেপারী। ইতোপূর্বে উপজেলার ১০ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।

গোপালগঞ্জ

গোপালগঞ্জের কুশলী ইউনিয়নে মোহাম্মদ খালিদ হোসেন, বর্ণি ইউনিয়নে শফিকুল ইসলাম বাদশা মুন্সি ও পাটগাতী ইউনিয়নে মিলন মোল্লা। এছাড়া গোপালপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের সুষেণ সেন এবং ডুমুরিয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থী কবির আলম তালুকদার।

সিলেট

সিলেট সদর উপজেলার ৮ ইউনিয়নের মধ্যে ২টিতে আওয়ামী লীগ মনোনীত ও ৩টিতে আলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী, বিএনপি মনোনীত ২টি, বিএনপি বিদ্রোহী ১টিতে বিজয়ী হয়েছেন। একাধিক ইউনিয়নে জাতীয় পার্টি ও জামায়াত সমর্থিত প্রার্থী নির্বাচনী লড়াইয়ে অবতীর্ণ হলেও তাদের কেউ বিজয়ী হতে পারেননি। বিজয়ী প্রার্থীদের মধ্যে কান্দিগাঁও ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের নিজাম উদ্দিন, মোগলগাঁও ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের হীরণ মিয়া, খাদিমপাড়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রাথী এ্যাডভোকেট আফসর, টুলটিকর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী এস এম আলী হোসেন। জালালাবাদ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মনফর আলী, টুকেরবাজার ইউনিয়নে বিএনপি মনোনীত শহীদ আহমদ, হাটখোলা ইউনিয়নে বিএনপির আজির উদ্দিন এবং খাদিমনগর ইউনিয়নে বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী দেলওয়ার হোসেন।

বরগুনা

সদরে বদরখালী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের শরীফ ইলিয়াস উদ্দীন আহমেদ। গৌরিচন্না ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী মনিরুল ইসলাম। ফুলঝুড়ি ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী গোলাম কিবরিয়া। কেওড়াবুনিয়া ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী মোঃ আবু হানিফ মাদবর। আয়লা-পাতাকাটা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থী খন্দকার আশশাকুর রহমান। বুড়িরচর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মোঃ ছিদ্দিকুর রহমান। ঢলুয়া ইউনিয়নে বিএনপির আবু হেনা মোস্তফা কামাল। বরগুনা সদর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মোঃ গোলাম আহাম সোহাগ। এম বালীয়াতলীতে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মোঃ শাহ নেওয়াজ। নলটোনা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হুমায়ুন কবির।

পাথরঘাটা উপজেলায় কালমেঘা ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী আকন মোঃ সহিদ। পাথরঘাটা সদর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মোঃ আসাদুজ্জামান। নাচনাপাড়ায় এখানে আওয়ামী লীগের ফরিদ মিয়া। চরদুয়ানী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মোঃ হাফিজ উদ্দীন আহমেদ। রায়হানপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মোঃ মিজানুর রহমান। কাকচিড়া আওয়ামী লীগের মোঃ আলাউদ্দিন পল্টু। কাঁঠালতলী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মোঃ শহিদুল ইসলাম।

বামনা উপজেলায় বামনা সদর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের চৌধুরী কামরুজ্জামান সগির। রামনা ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী খালেক জোমাদ্দার। ডৌয়াতলায় স্বতন্ত্র প্রার্থী মিজানুর রহমান। বুকাবুনিয়া ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী সাইদুর রহমান সবুজ।

বেতাগী উপজেলায় বুড়ামজুমদার ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের সৈয়দ গোলাম বর। মোকামিয়া ইউনিয়নে বিএনপির মোঃ মাহবুব আলম। হোসনাবাদ আওয়ামী লীগের মোঃ মাকসুদুর রহমান ফোরকান। বেতাগী সদর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মোঃ নজরুল ইসলাম। বিবিচিনি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মোঃ নওয়ার হোসেন। কাজিরাবাদ আওয়ামী লীগের মোঃ মোশাররফ হোসেন। সরিষামুড়ি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের ইমাম হাসান শিপর।

আমতলী উপজেলার আরপাঙ্গাশিয়া ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী একেএম নুরুল হক। চাওড়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মোঃ আখতারুজ্জামান খান। হলদিয়ায় এখানে আওয়ামী লীগের মোঃ সহিদুল ইসলাম মৃধা। আঠারগাছিয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মোঃ হারুন অর রশিদ। কুকুয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বোরহান উদ্দিন আহমেদ। গুলিশাখালী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মোঃ নুরুল ইসলাম।