২২ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট পূর্বের ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

বিতর্কিত মন্তব্যের পর চাপে জোকোভিচ


বিতর্কিত মন্তব্যের পর চাপে জোকোভিচ

অনলাইন ডেস্ক॥ ইন্ডিয়ান ওয়েলস টেনিস টুর্নামেন্ট চলাকালীন নোভাক জোকোভিচ জানিয়েছিলেন, পুরুষ খেলোয়াড়দের পুরস্কারমূল্য মহিলাদের তুলনায় বেশি হওয়া উচিৎ। তার মতে পুরুষদের টেনিস অনেক বেশি জনপ্রিয়। তবে বিশ্ব টেনিসের এক নম্বর তারকার বিপক্ষে এক হাত নিলেন নারী টেনিসের সাবেক কিংবদন্তি মার্টিনা নাভ্রাতিলোভা।

জোকোভিচের মন্তব্যেও হতাশ মার্টিনা বলেন, ‘আমি জোকোভিচেরও খেলার ভক্ত। কিন্তু বুঝলাম না কীভাবে ও এরকম মন্তব্য করলো। আরও যোগ করেন, ‘যে টুর্নামেন্টগুলোতে ছেলে ও মেয়েরা একসঙ্গে খেলে সেখানে পুরস্কারমূল্য সমানই হবে। আর এই সমস্যার সমাধান কয়েক বছর আগেই করেছিলাম।’

এদিকে ইন্ডিয়ান ওয়েলসের চিফ এগজিকিউটিভ অফিসারের (সিইও) পদ থেকে সরে যেতে বাধ্য হলেন রেমন্ড মুর। সোমবার মহিলা টেনিস খেলোয়াড়দের উদ্দেশে তার মন্তব্যে ঝড় উঠেছিল টেনিস বিশ্বে। তিনি বলেছিলেন, ‘পুরুষ খেলোয়াড়দের সাফল্যেই এগিয়ে চলেছে টেনিস। আমি মহিলা খেলোয়াড় হলে হাঁটু গেড়ে প্রত্যেকদিন ঈশ্বরকে ধন্যবাদ জানাতাম রজার ফেদেরার আর রাফায়েল নাদালকে এই পৃথিবীতে পাঠানোর জন্য।’

ইন্ডিয়ান ওয়েলসের মহিলা সিঙ্গলস ফাইনাল শুরু হওয়ার আগে এই মন্তব্য করেছিলেন ৬৯ বছর বয়সী সিইও। ফাইনাল শেষ হওয়ার পরই মুরের মন্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ করেন দুই ফাইনালিস্ট, সেরেনা উইলিয়ামস ও ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কা। তাদের পাশে দাঁড়িয়ে টুইটারে সরব হয়েছিলেন ক্রিস এভার্ট লয়েড। কড়া প্রতিক্রিয়া ছিল বিলি জিন কিংগেরও। এই তালিকায় সংযোজন হলেন মার্টিনাও

মঙ্গলবার তিনি বলেন, ‘এই লোকটা ইন্ডিয়ান ওয়েলসের সঙ্গে যুক্ত থাকলে ভবিষ্যতে মহিলা খেলোয়াড়রা ওই টুর্নামেন্টে নাও খেলতে পারে। মুরের মন্তব্য অত্যন্ত হতাশজনক, পক্ষপাতিত্বমূলক।’

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: