মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৬ আশ্বিন ১৪২৪, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

ব্রাসেলস হামলায় ফুটবলারদের প্রতিবাদ

প্রকাশিত : ২৩ মার্চ ২০১৬, ১২:০৬ পি. এম.
ব্রাসেলস হামলায় ফুটবলারদের প্রতিবাদ

অনলাইন ডেস্ক॥ বেলজিয়ামের রাজধানী ব্রাসেলসের বিমানবন্দর এবং মেট্রো স্টেশনে সন্ত্রাসবাদীদের হামলায় স্থগিত হয়ে গেল জাতীয় ফুটবল দলের অনুশীলন। রয়্যাল বেলজিয়ান ফুটবল সংস্থা এক বিবৃতিতে জানিয়ে দিয়েছে, ‘সন্ত্রাসবাদী হামলায় নিহত মানুষদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানোই এই মুহূর্তে আমাদের কাছে প্রধান কাজ’।

এর আগে পর পর তিনটি বিস্ফোরণের ঘটনায় কমপক্ষে ৩৪ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছেন আরও ২ শতাধিক। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার সকালে ব্রাসেলসের যাভেনতেম আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আমেরিকান এয়ারলাইন্স ও এসএন ব্রাসেলস এয়ারলাইন্সের চেক-ইন ডেস্ক সংলগ্ন বিস্ফোরণ দু’টি ঘটে। এতে কমপক্ষে ১৪জন নিহত হন।

আগামী ২৯ মার্চ ব্রাসেলসে পর্তুগালের বিপক্ষে ফিফা ফ্রেন্ডলি ম্যাচ খেলার কথা ছিল বেলজিয়াম দলের। তবে বাতিল করে দেওয়া হয়েছে সেই ম্যাচও। পাশাপাশি আগামী শনিবার সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষেও যে ফিফা ফ্রেন্ডলি ম্যাচ খেলার কথা ছিল জাতীয় দলের, সেখানেও দল পাঠানো হবে কি না, তা নিয়ে কোনও সিদ্ধান্তে পৌঁছতে পারেনি বেলজিয়াম ফুটবল সংস্থা। বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, ‘পরিস্থিতির দিকে নজর রেখে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে’।

এদিকে চার মাসের ব্যবধান আরও একটি হামলা দেলখো বিশ্ব। গত বছরের নভেম্বরে সন্ত্রাসবাদী হামলায় যখন ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিস কেঁপে উঠেছিল, সেই সময় ফিফা ফ্রেন্ডলি ম্যাচে ব্যস্ত ছিলেন ফ্রান্স এবং জার্মানি দলের ফুটবলাররা। তবে বেলজিয়ামের ফুটবল সংস্থা ঘটনার আকস্মিকতায় এতই আতঙ্ক তৈরি হয়েছে যে, ফুটবল নিয়ে তারা কোনও পদক্ষেপেই রাজি নয়। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘আজ আমাদের কাছে ফুটবল গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নয়। জাতীয় দলের সমস্ত ধরনের অনুশীলন বাতিল করা হয়েছে’।

ব্রাসেলস বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, আপাতত দেশের সবকটি বিমানবন্দরের কাজকর্ম বন্ধ রাখা হয়েছে। সেখান থেকে কোনও বিমান যেমন উড়বে না, তেমনই কোনও বিমানকে অবতরণের অনুমতিও দেওয়া হবে না। যার অর্থ আগামী শনিবারও সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে খেলতে যাবে না বেলজিয়াম দল।

টেলিভিশনে নিজের দেশের পরিস্থিতি দেখে আতঙ্কে কেঁপে উঠেছেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ফুটবলার অ্যাডনান ইয়ানুজাই। তিনি টুইট করেছেন, ‘ব্রাসেলসে যা চলছে তা দেখে ভয়ে আঁতকে উঠছি’। একই মন্তব্য বেলজিয়াম ও ম্যানচেস্টার সিটি অধিনায়ক ভিনসেন্ট কোম্পানিরও। তিনি টুইট করেছেন, ‘আতঙ্কে শিউরে উঠলেও এই ঘটনার প্রতিবাদও করছি। সন্ত্রাসবাদীদের হাতে আবারও নিরীহ সাধারণ মানুষকে প্রাণ দিতে হল। যাঁরা এই ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন, তাঁদের পরিবারের প্রতি জানাই গভীর সমবেদনা’।

পরে টুইট করে কোম্পানি আরও বলেছেন, ‘আশা করি এই সংকট কাটিয়ে ব্রাসেলস আবার উঠে দাঁড়াবে। আমরা প্রত্যেকে মর্মাহত। আমরা সন্ত্রাসবাদকে ঘৃণা করি’।

‌এদিকে ভয়ঙ্কর এই ঘটনার মধ্যেই অল্পের জন্য প্রাণে বাঁচলেন নরউইচ সিটির স্ট্রাইকার দিউমারসি এমবোকানি। ব্রাসেলসের জাভেনটেম বিমানবন্দরে বিস্ফোরণের সময় তিনিও উপস্থিত ছিলেন। ৩০ বছরের ফুটবলার আফ্রিকান নেশন্‌স কাপের বাছাই পর্বের ম্যাচ খেলতে কঙ্গোতে ফিরছিলেন।

কঙ্গো জাতীয় ফুটবল দল টুইটারে এমবোকানির ছবি পোস্ট করে বলেছে, ‘ঘটনায় ও খানিকটা ঘাবড়ে গেলেও অক্ষতই রয়েছে’। পরে নরউইচ সিটি ক্লাবের ওয়েবসাইটেও সেই খবরের সত্যতা স্বীকার করে বলা হয়েছে, ‘আমাদের সঙ্গে এমবোকানির কথা হয়েছে। ও সুস্থ অবস্থাতেই দেশে ফিরে পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাচ্ছে’।

প্রকাশিত : ২৩ মার্চ ২০১৬, ১২:০৬ পি. এম.

২৩/০৩/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলা



শীর্ষ সংবাদ: