মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৯ আশ্বিন ১৪২৪, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

বাংলাদেশ না ভারত, জিতবে কে?

প্রকাশিত : ২৩ মার্চ ২০১৬
বাংলাদেশ না ভারত, জিতবে কে?

মিথুন আশরাফ, ব্যাঙ্গালুরু থেকে ॥ তাসকিন, তাসকিন এবং তাসকিন। সবার মুখে শুধু তাসকিন। এ এক ক্রিকেটার যেন পুরো ভারতের ক্রিকেটপ্রেমীদের মুখ দখল করে নিয়েছে। আর বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীরাতো তাসকিনকে নিয়ে এখন উত্তাল! সবাই শুধু তাসকিনকে নিয়ে সর্বশেষ খবর জানতে চান। তবে ভারত ক্রিকেটাররা কিন্তু তাসকিনকে নিয়ে নয়, মুস্তাফিজুর রহমানকে নিয়ে ভাবনায় আছেন। তাসকিন খেলবেন না। তাই ধোনি, কোহলিরা তাকে নিয়ে ভাবনা করবেনও না, এটাই স্বাভাবিক। তবে খেলবেন মুস্তাফিজ। যিনি গত বছর ভারতকে সিরিজে হারিয়ে দিয়েছেন। ব্যাঙ্গালুরুর চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে আজ বাংলাদেশ সময় রাত আটটায় শুরু হতে যাওয়া বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচে সেই ‘কাটার মাস্টার’ মুস্তাফিজকে নিয়েই চিন্তায় ভারত। সেই চিন্তায় যদি ভুল করে বসে ভারত ব্যাটসম্যানরা তাহলেই বাংলাদেশের বাজিমাত!

তা কী এ মুহূর্তে সম্ভব? তাসকিনকে নিষিদ্ধ করায় বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটারদের মনোবল দুর্বল হয়ে পড়েছে। তবে জেদও তৈরি হয়েছে। দেখিয়ে দেয়ার জেদ। যে জেদে আসলে ‘হিতে-বিপরীত’ হওয়ারও সম্ভাবনা থাকে। তাসকিনকে হারানোর সঙ্গে তামিম ইকবাল যদি আজও না খেলেন, তাহলে বিপদ তো শুরু থেকেই ঘিরে ধরবে বাংলাদেশকে। তখন ব্যাটিংয়েও দুর্বল হয়ে পড়বে মাশরাফিবাহিনী। সবসময়ই ভারতের বিপক্ষে শুরুটা ভাল করে দেন তামিম। সেই শুরুর আত্মবিশ্বাসে চাঙ্গা হয়ে ওঠে দল। তাতে জয়ও মিলে। আর বোলিংয়ে এখন আছেন মুস্তাফিজ। যার ‘কাটারে’ কেমন বিধ্বস্ত হয়েছে ভারত, তা গত বছর তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ হারেই বুঝে গেছে সবাই। আজও যদি মুস্তাফিজ সেই রকম জৌলুস নিয়েই নিজেকে উপস্থাপন করতে পারেন, তখন ভারত ব্যাটিং লাইনআপ যতই শক্তিশালী হোক; ব্যাঙ্গালুরুতে বাংলাদেশ নিজেদের শেষ ম্যাচটিতে চমকই দেখাবে।

ভারত কী ছেড়ে কথা বলবে? ভারত পেসার আশিষ নেহরা বাংলাদেশকে সমীহ করেই কথা বলেছেন। জানিয়েছেন, ‘বাংলাদেশ এখন অনেক ভাল দল। কোনভাবেই তাদের সহজভাবে নেয়ার সুযোগ নেই।’ নেহরার কথাতেই বোঝা যাচ্ছে বাংলাদেশকে নিয়ে যে ভয় পাচ্ছে ভারত। সেই ভয়ের কারণও আছে। খেলাটি টি২০। এই খেলা মুহূর্তেই শেষ হয়ে যায়। অল্প সময়ে যে দল সঠিক সিদ্ধান্তগুলো নিতে পারে, তারাই জিতে। সেই সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে ভারত যদি ভুল করে বসে, তাহলেই স্বাগতিকদের সেমিফাইনালে খেলার স্বপ্নও ধূলিস্মাত হয়ে যেতে পারে। জিতলে বাংলাদেশ যে সেমিফাইনালে উঠে যাবে এমন নয়। এরই মধ্যে ২ ম্যাচ হেরেছে বাংলাদেশ। ভারতের বিপক্ষে ম্যাচটি শেষে গ্রুপ পর্বে আর একটি ম্যাচ থাকবে। সেটি নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে। সেই ম্যাচেও যদি বাংলাদেশ জিতে, তাহলেও শেষ চারে খেলা নিশ্চিত নয় বাংলাদেশের। এ জন্য সেই পথে হাঁটতেই রাজি নয় মাশরাফিরা। এখন বাংলাদেশের লক্ষ্য একটাই। দলের যে অবস্থা, এমন অবস্থায় যদি কোনভাবে একটি ম্যাচ জেতা যায়, তাহলেই মনে রাখার মতো কিছু ঘটবে। ২০০৭ সালের টি২০ বিশ্বকাপের পর থেকে যে এখনও কোন টেস্ট খেলুড়ে দলের বিপক্ষে বিশ্বকাপে জিতেনি বাংলাদেশ, সেই অর্জনও মিলবে। সাকিব আল হাসান সেই রকম কিছুই করতে চান। বলেছেন, ‘মনে রাখার মতো কিছু করতে চাই।’ নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে জিতলে যতটানা মনে রাখার মতো কিছু হবে, ভারতের বিপক্ষে জিতলে তা চিরকাল মনে রাখা হবে। সেটি কী আজ বাংলাদেশ করতে পারবে?

বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচ এখন এমন একটি পর্যায়ে চলে গেছে যেন ‘যুদ্ধ-যুদ্ধ’ ভাব এসে পড়েছে। সবাই শুধু এ ম্যাচকে সামনে রেখে ‘যুদ্ধ-যুদ্ধ’ করছেন। এক সাংবাদিক যেমন সাকিবকে প্রশ্ন করে বসলেন, বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচ এখন এমন একটা পর্যায়ে চলে গেছে, সবকিছু মিলিয়ে যেন যুদ্ধ যুদ্ধ ভাব তৈরি হয়ে গেছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এখন এ দুই দলের মধ্যকার ম্যাচ নিয়ে অনেক আলোচনা হয়। সব স্থানেই আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে থাকে। ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ নিয়েও এখন এতটা আলোচনা হয় না। আপনি কি মনে করেন? সাকিব জানালেন, ‘এসব নিয়ে আমরা আসলে চিন্তা করি না। আর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম নিয়েও আমাদের ভেতর তেমন চিন্তা নেই। আমরা খেলা নিয়েই আছি।’ সেই খেলা নিয়ে থাকাটাই ভাল। না হলে ‘তাসকিনের হাতে ধোনির মাথা’ এ নিয়ে যে ‘মওকা-মওকা’ সেøাগানে একটি ভিডিও ছাড়া হলো, সেটি বড্ড অপমানজনকই হলো। সেখানে যে উপস্থাপন করা হলো, হাতে ধোনির মাথা নিয়ে জেতা যায় না, তা নিজের মাথায় লাগাতে হয়।

বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচ হবে। অথচ এখনও সেই তাসকিন নিয়েই পড়ে থাকল ভারত। সেখানে ভারতের মাথায় আরেকটি চাপ আজকে যুক্ত হতে চলেছে। মুস্তাফিজুর রহমান নামক সেই চাপে ভারত আবারও ল-ভ- হয়ে যেতে পারে। তা হলে বাংলাদেশ যে মনে রাখার মতো কিছু করতে চায়, সেই চাওয়া পূরণ হয়ে যাবে। সেই চাওয়া এখন পূরণ করতে হলে তামিম ইকবালকেও খেলতে হবে। মঙ্গলবার রাত পর্যন্ত তামিমের বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে পেটের পীড়া কমেছে। খেলা আজ রাতে। তাই দুপুর পর্যন্ত দেখার সুযোগ আছে। এ সময়ের মধ্যে তামিম পুরোপুরি ভাল হয়ে গেলেই হয়। ব্যাটিংয়ে দুর্দান্ত শুরুটা তামিম ও বোলিংয়ে মুস্তাফিজ করে দিতে পারলেই হয়ে যায় এখন। বাংলাদেশের হাতেই জয় ধরা দেবে। এর বিপরীত ঘটলেই জিতবে ভারত। ভারত জিতলে বাংলাদেশের বিদায় ঘণ্টাও বেজে যাবে।

প্রকাশিত : ২৩ মার্চ ২০১৬

২৩/০৩/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



শীর্ষ সংবাদ: