মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২০ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৫ আশ্বিন ১৪২৪, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

মোজাম্বিকে পাওয়া ধ্বংসাবশেষ বিশ্লেষণের জন্য অস্ট্রেলিয়ায়

প্রকাশিত : ২২ মার্চ ২০১৬, ১১:৩৭ এ. এম.

অনলাইন ডেস্ক॥ মোজাম্বিবিকে পাওয়া ধ্বংসাবশেষের দু’টি টুকরা মালয়েশিয়া এয়ারলাইন্সের নিখোঁজ এমএইচ৩৭০ ফ্লাইটের বিমানের কিনা তা পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য অস্ট্রেলিয়ার বিশেষজ্ঞদের কাছে পৌঁছেছে। একজন সরকারি কর্মকর্তা একথা জানান।

বোয়িং ৭৭৭ বিমানটির সন্ধানে ব্যাপক তল্লাশি চালিয়েও এখন পর্যন্ত এটির কোন ধ্বংসাবশেষ পাওয়া যায়নি। যদিও বিমানের একটি পাখা গত বছর দূরবর্তী একটি দ্বীপে ভেসে আসে । ভারত মহাসাগরের দক্ষিণাঞ্চলে বিমানটি বিধ্বস্ত হয়েছে বলে ধারণা করা হয়।

মোজাম্বিকে ধ্বংসাবশেষের দুটি টুকরা পাওয়ার পর থেকেই বিষয়টি জানাজানি হয়। সমুদ্র সৈকতে পাওয়া এ দু’টি টুকরার একটির একপাশে ‘নো স্টেপ’ লেখা রয়েছে । তবে লেখাটি অস্পষ্ট। অপর ধাতব টুকরাটি এক মিটার লম্বা। দক্ষিণ আফ্রিকার এক পর্যটক গত ডিসেম্বর মাসে এ দুটি পান।

অস্ট্রেলিয়ার পরিবহন নিরাপত্তা ব্যুরোর মুখপাত্র সোমবার বলেন, ‘উভয় ধ্বংসাবশেষ টুকরা অস্ট্রেলিয়ায় পৌঁছানোর আগ পর্যন্ত আফ্রিকাতে ছিল।’

ধ্বংসাবশেষের টুকরা দু’টি আজ পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের ৮ মার্চ কুয়ালালামপুর থেকে বেইজিং যাওয়ার পথে এমএইচ৩৭০ ফ্লাইটটি রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ হয়। এতে ২৩৯ জন আরোহী ছিল। এদের বেশীর ভাগই চীন ও মালয়েশিয়ার নাগরিক।

গত বছর ভারত মহাসাগরের রিইউনিয়ন দ্বীপে পাওয়া একটি পাখা এমএইচ৩৭০ ফ্লাইটের হতে পারে বলে নিশ্চিত করা হয়।

প্রকাশিত : ২২ মার্চ ২০১৬, ১১:৩৭ এ. এম.

২২/০৩/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

বিদেশের খবর



শীর্ষ সংবাদ: