মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৮ আশ্বিন ১৪২৪, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

নিউজিল্যান্ডের সেমি নিশ্চিতের লড়াই

প্রকাশিত : ২২ মার্চ ২০১৬
  • প্রতিপক্ষ আজ পাকিস্তান

শাকিল আহমেদ মিরাজ ॥ টি২০ বিশ্বকাপে আজকের একমাত্র ম্যাচে মুখোমুখি হচ্ছে পাকিস্তান ও নিউজিল্যান্ড। একদিকে টানা দুই জয়ে সেমির পথে অনেকদূর এগিয়ে থাকা কিউইরা। অন্যদিকে বাংলাদেশকে উড়িয়ে দিয়ে আসর শুরু করলেও চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের কাছে হেরে কোনঠাসা পাকিরা। মাঠ ও মাঠের বাইরে চাপের মুখে শহীদ আফ্রিদির দল। সেমির আশা জিইয়ে রাখতে হঠাৎ করে ‘ভয়ঙ্কর’ হয়ে ওঠা ব্ল্যাক-ক্যাপসদের সামনে ‘আনপ্রেডিক্টেবল’ পাকিস্তান কি করে সেটিই দেখার বিষয়। মোহালিতে খেলা শুরু বাংলাদেশ সময় রাত আটটায়। নিউজিল্যান্ডের কথা বিশেষ করে বলতে হয়। উপমহাদেশে এবারের আয়োজনে দলটি মোটেই ফেবারিট ছিল না। কিন্তু মাঠের লড়াই শুরু হতেই সমীকরণ বদলে দেয় উইলিয়ামসন-বাহনী।

শুরুটা স্বাগতিকদের হারিয়ে। নাগপুরে কেবল ভারত নয়, অনেকটা ক্রিকেট বিশ্বকেই ভড়কে দেয় কিউইরা। কারণ বিশ্বকাপ শুরুর আগে অস্ট্রেলিয়ায় গিয়ে অস্ট্রেলিয়াকে ‘হোয়াইটওয়াশ’ করে মহেন্দ্র সিং ধোনির দল ঘরের মাটিতে শ্রীলঙ্কাকে ধরাশায়ী করে র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষস্থান পুনরুদ্ধার করে তারা। এরপর বাংলাদেশ থেকে একতরফা দাপট দেখিয়ে এশিয়া কাপ টি২০’র শিরোপা জয় করে ফেরে ধোনি-বাহিনী। ঘরের মাটিতে ছোট্ট ফরমেটের বিশ্বকাপে তাই ভারতই ছিল নিশ্চিত ফেবারিট। সেই দলটিকে নিয়ে রীতিমতো ছেলেখেলা করে নিউজিল্যান্ড! ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ১২৬ রানের পুঁজি নিয়েও ৪৭ রানের বড় ব্যবধানে স্বাগতিকদের উড়িয়ে দেয় উইলিয়ামসন-বাহিনী। ১৮.১ ওভারে ৭৯ রানে অলআউট ভারত! মাত্র ১১ রানের বিনিময়ে ৪ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরা স্পিনার মিচেল স্যান্টনার। অবাক বিষয় যে ভারতীয়রা স্পিনের বিপক্ষে ভাল, সেই তাদের ৯ ব্যাটসম্যানকেই সাজঘরে ফেরান কিউই স্পিনাররা! ইশ সোধি ৩ ও নাথান ম্যাককুলাম নেন ২টি করে উইকেট।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচে কিউইদের ৮ রানের জয়টা ছিল আরও আকর্ষণীয়। ধর্মশালায় সেদিন ৮ উইকেটে ১৪২ রান করেন উইলিয়ামসনরা। ৯ উইকেটে ১৩৪-এ থেমে যায় অসিদের ইনিংস। ১৭ রানের বিনিময়ে ৩ উইকেট নিয়ে ‘নায়ক’ পেসার মিচেল ম্যাকক্লেনঘান। গ্রেট মার্টিন ক্রোর মৃত্যু শোক, বড় তারকা ব্রেন্ডন ম্যাককুলামের অবসর, সর্বোপরি ভারতের কন্ডিশনে কেউই নিউজিল্যান্ডকে নিয়ে অতটা আশাবাদী ছিলেন না। টি২০ এমন ধরনের ক্রিকেট, দ্ইু ম্যাচ শেষে আজ ফেবারিট সেই কিউইরা। অন্যদিকে ‘আনপ্রেডিক্টেবল’ পাকিস্তান যথারীতি নিজ কক্ষপথে। এশিয়া কাপে যে বাংলাদেশের কাছে হেরে অশ্রুচোখে বিদায় নিতে হয়েছিল, এবার গ্রুপ পর্বের প্রথম ম্যাচে তার বদলা নিয়ে শুরু আফ্রিদিদের। কলকাতায় আহমেদ শেহজাদ, মোহাম্মদ হাফিজ ও আফ্রিদির দুরন্ত ব্যাটিংয়ে ৫ উইকেটে ২০১ রানের পাহাড় গড়ে পাকিস্তান। এরপর বাংলাদেশকে ১৪৬-এ থামিয়ে দিয়ে ৫৫ রানের বড় জয়।

তবে আলোচনায় ছিল ভারতের বিপক্ষে ম্যাচটি। বিশ্বকাপ শুরুর দীর্ঘদিন আগে থেকেই ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ ছিল আলোচনায়। প্রথমে যেটির ভেন্যু ছিল ধর্মশালায়। কিন্তু সন্ত্রাসী হুমকি ও স্থানীয় রাজ্য সরকার নিরাপত্তা দিতে অপারগতার প্রেক্ষিতে অনেক অনেক নাটকীয়তার পর ম্যাচটি কলকাতায় সরিয়ে আনা হয়। বাইরে উত্তাপ ছড়ানো ম্যাচটি মাঠে ছিল একেবারেই নিরুত্তাপ। চিরশত্রু পাকিস্তানকে ৬ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারিয়ে নিউজিল্যান্ড ধাক্কা সামাল দেয় স্বাগতিক ভারত। মাত্র ১১৮ রানের পুঁজি নিয়ে এমন লজ্জায় ডোবার পর নতুন করে সমালোচনার মুখে পড়েন অধিনায়ক আফ্রিদি। পাকিস্তানী সংবাদ মাধ্যমে এমনও খবর, বিশ্বকাপ শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই তাকে নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দেয়া হতে পারে। চাকরি যেতে পারে কোচ ওয়াকার ইউনুসেরও। অবশ্য পাকিস্তান ক্রিকেটে এসব আলোচনা নতুন নয়। কোনকিছু নিশ্চিতও নয়। যেমন নিশ্চিত নয় মাঠের পারফর্মেন্স। তবে নিউজিল্যান্ডকে হারানোর মতো যথেষ্ট রসদ দলটিতে রয়েছে।

পাকিস্তানের বোলিং আক্রমণ বিশ্বসেরা। যেখানে সবার আগে থাকবেন মোহাম্মদ আমির। নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে দীর্ঘ সাড়ে পাঁচ বছর পর জাতীয় দলে ফিরে যেন আরও ভয়ঙ্কর হয়ে উঠেছেন বাঁহাতি এই পেসার। গতির দৌড়ে তিনি সঙ্গী হিসেবে পাচ্ছেন দীর্ঘদেহী মোহাম্মদ ইরফানকে। ভারতীয় কন্ডিশনে স্পিনে অধিনায়ক আফ্রিদি আরও দুরন্ত হয়ে উঠতে পারেন, যেমনটা দেখা গেছে বাংলাদেশের বিপক্ষে। আছেন শোয়েব মালিক, ইমাদ ওয়াসিম। ব্যাটিংয়ে দৃশ্যপট বদলে দেয়ার সামর্থ্য রাখেন হাফিজ, শেহজাদ, উমর আকমল, আফ্রিদি। জবাব দিতে নিউজিল্যান্ডের হাতেও অস্ত্র কম নয়। আছেন মার্টিন গাপটিল, কলিন মুনরো, কোরি এ্যান্ডারসনের মতো ভয়ঙ্কর সব ব্যাটসম্যান এবং অবশ্যই অধিনায়ক উইলিয়ামসন।

প্রকাশিত : ২২ মার্চ ২০১৬

২২/০৩/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: