২৪ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ভোলা ও দৌলতখানের ২ চেয়ারম্যান প্রার্থী নির্বাচন থেকে সড়ে দাঁড়ালেন


নিজস্ব সংবাদদাতা, ভোলা ॥ প্রথম পর্যায়ের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে শেষ মুহুর্তে ভোলা সদরে বিএনপির ও দৌলতখানে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী নির্বাচন থেকে সরে দরিয়েছেন। সোমবার দুপুরে আবহাওয়া সড়কে ভোলা উত্তর দিঘলদী ইউনিয়নে বিএনপির চেয়ারম্যান প্রার্থী আলহাজ্ব রাইসুল আলম সাংবাদিক সম্মেলন করে বলেন, ধানের শীর্ষের প্রতিক নিয়ে নির্বাচনে শত বাধা অতিক্রম করে নির্বাচন শুরু থেকে পরিচালনা করে আসছি। কিন্ত গতকাল বিকাল থেকে গভির রাত পর্যন্ত আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী লিয়াকত হোসেন মনছুর ও তার কর্মী সমর্থকরা আগ্নে অস্ত্রসহ লাঠিসোটা নিয়ে মটরসাইকেল যোগে তার ভোটারদের উপর হামলা চালায় । এসময় গুলি ছুড়ে বিএনপির নির্বাচনী অফিস ভাংচুর করে অসংখ্যা মানুষকে কুপিয়ে ও পিটয়ে জখম করে। এ ছাড়া বিএনপির কর্মী সমর্থকদের ভোট কেন্দ্রে না যাওয়ার জন্য হুমকি দেয়। এসব ঘটনা নির্বাচন কমিশনে, পুলিশ সুপার, জেলা প্রশাসনকে অসংখ্যবার জানানোর পরও তারা কোন ব্যবস্থা না নেওয়ায় বর্তমান পরিস্থিতিতে ভোটার ও সাধারন মানুষের নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে নির্বাচন থেকে বিএনপির প্রার্থী রাইসুল আলম সরে দাঁড়িয়েছেন বলে ঘোষনা দেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, দক্ষিন দিঘলদী ইউনিয়নের বিএনপির সিনিয়ন সহ সভাপতি শাখাওয়াত হোসেন গজনবী, বিএনপির সম্পাদক আবু বকর মোল্লা প্রমুখ। তবে এ হামলার কথা অস্বীকার করেন উত্তর দিঘলদী ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী লিয়াকত হোসেন মনছুর।

অপর দিকে দৌলতখান উপজেলার মদনপুর ইউনিয়নের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী আলহাজ্ব জামাল উদ্দিন চকেট আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়ন মূলক সরকারি কর্মকান্ডে সমর্থন করে নৌকা প্রতিকে সমর্থন দিয়ে নির্বাচন থেকে সরে দাড়িয়েছেন বলে তার বাড়ি সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: