২৫ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

পিটিয়ে আহত করে চলন্ত গাড়ির নিচে চাপা দিয়ে যাত্রীকে মারলো পরিবহন শ্রমিকেরা


স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার চরবাউশিয়া এলাকায় পরিবহন শ্রমিকেরা আব্দুল আউয়াল সরকার (৩৪) নামে এক যাত্রীকে পিটিয়ে আহত করে গাড়িচাপা দিয়ে হত্যা করেছে। এসময় নিহতের সহযাত্রী তার ছোট ভাই আল আমিন, বোন ফরিদা আক্তার, ভগ্নিপতি সাইদুল ইসলাম ও ফুফাতো বোন কুলসুম বেগমকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। রবিবার বিকেলে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের গজারিয়া উপজেলা চরবাউশিয়া এলাকায় এই পৈচাশিক ঘটনাটি ঘটেছে। গজারিয়া থানার এস আই মো‍ঃ ইয়াসিন মুন্সী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

আহত আল আমিন ও ফরিদা জানায়, আমরা দাদীর জানাজায় অংশ নিতে ঢাকার সায়েদাবাদ থেকে রওয়ানা দিয়ে মেঘনা সেতুর পার হওয়ার পর গাড়ির চালক ঘনঘন যাত্রী উঠাচ্ছিল। এতে আমার ভাই প্রতিবাদ করায় চালক ও সহকারী ফোন করে তাদের গ্রাম চরবাউশিয়া এলাকায় বিশ পচিঁশজন লোক জড়ো করে এবং অন্য যাত্রীদের লোহার রড লাঠির ভয় দেখিয়ে গাড়ি থেকে নামতে না করে। এরপর গাড়ি থেকে নামিয়ে দিয়ে আমাদের পেটানো শুরু করে। পিটিয়ে আহত করার পর আমাদের ভাই আউয়ালকে ধাক্কা দিয়ে অন্য একটি গাড়ির নীচে ফেলে হত্যা করে পালিয়ে যায় তারা।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে গজারিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার দায়িত্বে থাকা এস আই মোঃ ইয়াসিন মুন্সী জানান, মরদেহ পুলিশ হেফাজতে রয়েছে। আমরা হত্যাকান্ডে অংশগ্রহনকারী দুবৃর্ত্তদের নাম ঠিকানা জানতে পেরেছি। মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

আব্দুল আউয়াল সরকার কুমিল্লার মুরাদনগর থানার কৃষ্ণনগর গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা হুমায়ন কবিরের ছেলে। তিনি ঢাকার মুগদা ৫’শ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালের এ্যাম্বুলেন্স চালক হিসেবে কর্মরত ছিল।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: