১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

গাইবান্ধায় গৃহবধূকে গণধর্ষণ ॥ গ্রেফতার দুই


নিজস্ব সংবাদদাতা, গাইবান্ধা, ২০ মার্চ ॥ সদর উপজেলার মালিবাড়ি ইউনিয়নের খোর্দ্দ মালিবাড়ি গ্রামের এক গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোগে মানিক মিয়া (২৭) ও আলমগীর হোসেন (২৯) নামে দুই বখাটে যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে। ওই ঘটনার সঙ্গে জড়িত অপর ৪ যুবক এখনও গ্রেফতার হয়নি। রবিবার গাইবান্ধা সদর থানায় ধর্ষিত গৃহবধূর স্বামী মামলা দায়ের করেন। অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে শুক্রবার রাত ১০টায় ওই গৃহবধূ পরিবারের লোকজনের সঙ্গে রাগারাগি করে একটি অটোরিক্সাযোগে বাড়ি থেকে ঢাকায় যাওয়ার উদ্দেশ্যে গাইবান্ধা বাস টার্মিনালের দিকে যাচ্ছিলেন। পথি শোলাগাড়ি বিল এলাকায় স্থানীয় বখাটে মানিক মিয়াসহ তার অপর ৪ সহযোগী অস্ত্রের মুখে অটোরিক্সা থামিয়ে জোর করে নামিয়ে নিয়ে ওই গৃহবধূকে শোলাগাড়ি বিলের দিকে নিয়ে যায়। সেখানে তারা ৫ জন মিলে গৃহবধূকে গণ ধর্ষণ করে। পরে তাকে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে পার্শ্ববর্তী বাড়ইপাড়া গ্রামের আলমগীর হোসেনের বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে রাতযাপনের জন্য রেখে দেয়। পরে ওই গৃহবধূকে গভীর রাতে আলমগীর হোসেনও ধর্ষণ করে।

নওগাঁয় বুদ্ধি প্রতিবন্ধী

নিজস্ব সংবাদদাতা, নওগাঁ থেকে জানান, মান্দায় বুদ্ধি প্রতিবন্ধী এক নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। ধর্ষক রফিকুল ইসলামকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয়রা। আটক রফিকুল ইসলাম উপজেলার ছুটিপুর গ্রামের জিল্লুর রহমানের ছেলে। শনিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে দেলুয়াবাড়ি-চৌবাড়িয়া রাস্তার চেয়ারম্যানের মোড় নামকস্থানে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা জানান, ধর্ষিতা ওই নারী ভিক্ষাবৃত্তি করে জীবিকা নির্বাহ করেন। শনিবার সন্ধ্যার দিকে তিনি দেলুয়াবাড়ি বাজার থেকে নিজ বাড়ি হোসেনপুর গ্রামে ফিরছিলেন। উল্লিখিত স্থানে একা পেয়ে রফিকুল ইসলাম রাস্তার নিচে টেনে নিয়ে তাকে ধর্ষন করে। এসময় লোকজন টের পেয়ে ধর্ষক রফিকুল ইসলামকে আটক করে।