২৩ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

নাম বিভ্রাট ॥ আসামি বাইরে, জেল খাটলেন অন্যজন


স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ দুই জনের নাম দুলাল হোসেন। এদের একজন আসামি হলেও অন্যজনের বিরুদ্ধে কোন মামলা নেই। অথচ শুধু নাম বিভ্রাটের কারণে জেল খাটলেন নিরীহজন আর বাইরে থেকে গেলেন মূল আসামি।

রাজশাহীর বাঘায় একই নাম হওয়া ও পুলিশের ভুলের কারণে আসামি দুলাল হোসেনের স্থলে সাজা খেটেছেন অন্য দুলাল। তিনি উপজেলা সদরের একজন লেদ ব্যবসায়ী। বৃহস্পতিবার জামিনে বেরিয়ে এসে শনিবার দুপুরে স্থানীয় সাংবাদিকদের কাছে সাজা ভোগ করা নিরপরাধ দুলাল এ অভিযোগ করেন। দুলাল হোসেনের বাড়ি উপজেলার মিলিক বাঘা গ্রামে। তার পিতার নাম আমির উদ্দিন সরকার। নিরপরাধ দুলাল জানান, ১২ মার্চ বিকেলে বাঘা থানা পুলিশ ব্যবসায়ী দুলাল হোসেনের নামে ওয়ারেন্ট আছে বলে মিলিক বাঘা গ্রামে তার নিজ বাড়ি থেকে তাকে আটক করে। এরপর থানায় এনে কোন কথা বলার সুযোগ না দিয়ে তাকে জেলহাজতে পাঠিয়ে দেয় পুলিশ। এ ঘটনার একদিন পর জামিনে মুক্ত হয় দুলাল। তিনি খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন, মামলায় দুলালকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে ওই মামলার কোন আসামিই নন তিনি। ব্যবসায়ী দুলাল হোসেনকে একটি নারী নির্যাতন মামলায় গ্রেফতার করা হয়েছিল। ওই মামলার বাদীর নাম লতিফা খাতুন।

এ বিষয়ে বাদী লতিফা খাতুনের বলেন, আমার অভিযোগের ভিত্তিতে যে দুলাল হোসেনকে আটক করা হয়েছে আমি তার বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ করিনি। আমি অভিযোগ করেছি আমার স্বামী দুলালের বিরুদ্ধে। তার নামও দুলাল হোসেন। বাড়ি উপজেলার চকনারায়নপুর গ্রামে। এদিকে হাজত থেকে এসে দুলাল হোসেন সাংবাদিকদের বাঘা থানা পুলিশের বিরুদ্ধে-তাকে হয়রানি করাসহ আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করার অভিযোগ করেন। একই সঙ্গে বিষয়টি তদন্ত করারও দাবি জানান। বাঘা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আলী মাহামুদ জানান, এ বিষয়ে তিনি কিছুই জানেন না। যদি সত্যিই এমনটি হয়েই থাকে তো সেটা অনাকাক্সিক্ষত ভুল বলে স্বীকার করেন তিনি। তিনি বলেন, গ্রেফতারের পর দুলাল হোসেন থানায় যদি বিষয়টা অবগত করতেন তাহলে হয়ত এমনটি হতো না।

পুরস্কার বিতরণী উৎসব

নিজস্ব সংবাদদাতা, দৌলতপুর, ১৯ মার্চ ॥ দৌলতপুর উপজেলার আল্লারদর্গা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বার্ষিক পুরস্কার বিতরণী উৎসব ও সাংকৃতিক অনুষ্ঠান শনিবার বেলা ১১টায় অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদ সভাপতি আসাদুজ্জামান লোটন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সংসদ সদস্য আলহাজ রেজাউল হক চৌধুরী, বিশেষ অতিথি ছিলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান ফিরোজ আল-মামুন।

সড়ক সংস্কার উদ্বোধন

নিজস্ব সংবাদদাতা, লক্ষ্মীপুর, ১৯ মার্চ ॥ অবশেষে রামগতি- বিবিরহাট সড়কের ৮ কিলোমিটার সংস্কার কাজ শুরু হয়েছে। স্থানীয় সংসদ সদস্য আবদুল্লাহ আল মামুন শনিবার খানা-খন্দে ভরা বেহাল এ সড়কের কাজ উদ্বোধন করেন। এ উপলক্ষে রামগতি উপজেলার বড়খেঁড়ি ইউনিয়ন পরিষদের সম্মেলন কক্ষে এদিন দুপুরে আয়োজিত আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য আবদুল্লাহ আল মামুন এমপি।