২৪ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৬ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

সীমান্তে বেড়েছে অস্ত্র চালান


মামুন-অর-রশিদ, রাজশাহী ॥ রাজশাহী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, নওগাঁ ও নাটোর রুটে বেড়েছে ক্ষুদ্রাস্ত্র পাচার। প্রায় প্রতিদিনই এ রুটের কোথাও না কোথাও র‌্যাব-পুলিশের অভিযানে ধরা পড়ছে বিভিন্ন ধরনের ক্ষুদ্রাস্ত্র। বিশেষ করে পিস্তল, রিভলবার ম্যাগজিন ও গুলি উদ্ধারের খবর আসছে প্রতিদিনই। উত্তরের এ চার জেলার মধ্য সবচেয়ে অস্ত্রের নিরাপদ রুট এখন চাঁপাইনবাবগঞ্জ। সেখান থেকে রাজশাহী হয়ে হাতবদল হচ্ছে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে। এসব ক্ষুদ্রাস্ত্র বেশিরভাগ সীমান্ত গলিয়ে দেশে প্রবেশ করছে চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ সীমান্ত দিয়ে। এছাড়া রাজশাহীর গোদাগাড়ী সীমান্ত গলিয়েও ওপার (ভারত) থেকে সহজেই নিয়ে আসা হচ্ছে অস্ত্র ও গুলি। সাম্প্রতিক এসব ক্ষুদ্রাস্ত্র পাচারের ব্যাপকতা আশঙ্কাজনকহারে বৃদ্ধি পেয়েছে। নওগাঁ ও নাটোরেও ধরা পড়ছে এসব ক্ষুদ্রাস্ত্র।

রাজশাহী অঞ্চলের মোট অস্ত্র চোরাচালানের মধ্যে ৯০ ভাগই আসছে চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ সীমান্ত পেরিয়ে। সাধারণত মাদক ব্যবসায়ীরাই এসব অস্ত্র ব্যবসার সঙ্গে জড়িয়ে পড়েছেন। মাদক আমদানির পাশাপাশি তারা বিদেশী পিস্তল, রিভলবারসহ নানা ধরনের মরণাস্ত্র সীমান্তের ওপার থেকে নিয়ে আসছে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী বিশেষ করে র‌্যাব এসব বিষয়ে তটস্থ থাকলেও কমছে না অস্ত্রের চোরাচালান। গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর দাবি দিন দিন বেড়েই চলেছে ছোট অস্ত্র আমদানির হার। রাজশাহী ও চাঁপাইনবাবগঞ্জের বিভিন্ন থানার দেয়া সূত্র মতে, গত এক বছরে এ দুটি জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে শুধু র‌্যাব রাজশাহীর সদস্যরা ৯৪টি অস্ত্র উদ্ধার করেছে। এর মধ্যে ৬০টিই চাঁপাইনবাবগঞ্জ এলাকা থেকে। অস্ত্রগুলোর মধ্যে বিদেশী পিস্তল ৬৪, রিভলবার ১৩, সুটারগান ১৩, পাইপগান একটি এবং এলজি তিনটি। এছাড়া গুলি ও ম্যাগজিন তো রয়েছেই।

চলতি বছরের সাড়ে তিন মাসে র‌্যাব সদস্যরা ৩৮টি অস্ত্র উদ্ধার করেছে। যার মধ্যে ২৬টিই উদ্ধার করা হয়েছে চাঁপাইনবাবগঞ্জ এলাকা থেকে। এসবের মধ্যে পিস্তল ২৯টি, রিভালবার ১টি, সুটারগান একটি, এসএমজি একটি, রাইফেল দুটি, ব্যাজএমটি এয়ার ক্রাফট গান এতটি, হেভি মেশিন দুটি এবং পাইপ গান একটি।

সর্বশেষ ১৩ মার্চ সকালে ৮টি বিদেশী পিস্তল, ১৬টি ম্যাগজিন ও ১৪০ রাউন্ড গুলিসহ আলাউদ্দিন (৫০) নামে এক অস্ত্র ব্যবসায়ীকে আটক করে র‌্যাব। তিনি শিবগঞ্জের ভারতীয় সীমান্ত সংলগ্ন গ্রাম চাঁপাটিলার বাসিন্দা। অস্ত্রগুলো নিয়ে বাইসাইকেলে চেপে আলাউদ্দিন সোনামসজিদ-চাঁপাইনবাবগঞ্জ সড়ক অতিক্রমের সময় র‌্যাব তাকে আটক করে। র‌্যাব রাজশাহীর চাঁপাইনবাবগঞ্জের ক্যাম্প কমান্ডার মেজর আব্দুস সালাম জানান, রাজশাহী অঞ্চলে যেসব অস্ত্র তারা উদ্ধার করেছেন সেগুলোর অধিকাংশই চাঁপাইনবাবগঞ্জ এলাকায়। শিবগঞ্জ থানা সূত্র মতে, গত বছর শুধু শিবগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে র‌্যাব, বিজিবি ও পুলিশ মোট ৬১টি অস্ত্র উদ্ধার করে। এর মধ্যে অধিকাংশই বিদেশী পিস্তল। চলতি বছর এরই মধ্যে ২৩টি অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে শিবগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে। একাধিক গোয়েন্দা সংস্থার সূত্রমতে রাজশাহী অঞ্চলে সাম্প্রতিক যেসব অস্ত্রের চালান ধরা পড়ছে, তার সবগুলোই ভারতীয় সীমান্ত হয়ে বাংলাদেশে আসার পথে। চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ ও রাজশাহীর গোদাগাড়ী সীমান্ত হয়ে সেগুলো আসছে। সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্র জানায়, সীমান্ত পেরিয়ে এসব অস্ত্র পণ্যবাহী ট্রাকে ও কাঁটাতারের বেড়া গলিয়ে দেশে প্রবেশ করছে।

রাজশাহীর গোদাগাড়ী থানার ওসি আবু ফরহাদ বলেন, সীমান্তের ওপার থেকে কিছু অস্ত্র আসছে।

এগুলো উদ্ধারে পুলিশ চেষ্টা চালাচ্ছে। অস্ত্রসহ বাবসায়ীদের আটকও করা হচ্ছে। শিবগঞ্জ থানার ওসি বলেন, পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে চোরাকারবারিরা ভারত থেকে বাংলাদেশে অস্ত্র নিয়ে আসছে। হঠাৎ করে এই সীমান্তপথটি ব্যবহার করে চোরাচালানিরা বেশি সক্রিয় হয়ে উঠেছে। তবে পুলিশ আগের চেয়েও তাদের তৎপরতা বাড়িয়েছে বলে দাবি তার।