মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৩ জুলাই ২০১৭, ৮ শ্রাবণ ১৪২৪, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

মান্দায় সংখ্যালঘু এক বিধবাকে উচ্ছেদ করে বসতবাড়ি দখল করে নিল সন্ত্রাসীরা!

প্রকাশিত : ১৯ মার্চ ২০১৬, ০৮:১৬ পি. এম.

নিজস্ব সংবাদদাতা, নওগাঁ ॥ শনিবার দুপুরে নওগাঁর মান্দায় সনাতন ধর্মাবলম্বী অসহায় এক বিধবার বসতবাড়ি জবরদখল করে নিয়েছে ভূমিদস্যুরা। ঘটনায় থানায় অভিযোগ করায় ওই বিধবার ৪ প্রতিবেশিকে পিটিয়ে জখম করা হয়েছে। উপজেলার চকরাজাপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

আহতদের মান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স্রে ভর্তি করা হয়েছে। তারা হলেন, চঞ্চল কবিরাজ (৩৫), তার স্ত্রী চন্দনা রানী কবিরাজ (২৬), সুনীল কবিরাজ (৫০) ও নগেন কবিরাজ (৫৮)। ভুক্তভোগী বিধবা সূর্যবালা কবিরাজ জানান, তার কোনো ছেলে সন্তান নেই। স্বামী মনমোহন কবিরাজের মৃত্যুর পর ৪ শতক জমির কিছু অংশে বসতঘর নির্মাণ করে তিনি বসবাস করছেন। ওই সম্পত্তি দখলের জন্য দীর্ঘদিন ধরে পাঁয়তারা চালিয়ে আসছিলেন একই এলাকার ভূমিদস্যু মজিবর রহমান, আব্দুস সালাম ও তার সহযোগীরা। জের ধরে ভূমিদস্যুরা সংঘবদ্ধ হয়ে তার বসতবাড়িসহ পুরো সম্পত্তিই দখল করে নেয়।

সূর্যবালা কবিরাজ আরো জানান, চক্রটি তার সামান্য জমিটুকু দখলের জন্য একাধিকবার চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হয়। এনিয়ে স্থানীয় মাতবরদের উপস্থিতিতে মান্দা থানায় একাধিকবার বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে সম্পত্তির কাগজপত্র সঠিক থাকায় তার পক্ষে মতামত দেন মাতবররা। থানা পুলিশের সহায়তায় ২০১৪ সালের ১৭ জানুয়ারির বৈঠকে উভয়পক্ষের মধ্যে সমঝোতা করে দেয়া হয়। এসময় ওই সম্পত্তিতে কোনো দিন যাবে না মর্মে ভূমিদস্যু মজিবর রহমান স্ট্যাম্পে অঙ্গীকারনামা লিখে দিয়েছিলেন।

সূর্যবালা অভিযোগ করে বলেন, ভূমিদস্যু মজিবর রহমান বসতভিটা থেকে উচ্ছেদে তাকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে আসছিলেন। শনিবার সকালে টেনে হেঁচড়ে বাড়ি থেকে তাকে বের করে দিয়ে পুরো বসতবাড়ি দখল করে নেন মজিবর রহমান ও তার লোকজন। ঘটনায় থানা পুলিশের স্মরণাপন্ন হওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে প্রতিবেশিদের পিটিয়ে জখম করা হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন। থানার ইন্সপেক্টর তদন্ত কামরুল ইসলাম জানান, সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। ঘটনায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।

প্রকাশিত : ১৯ মার্চ ২০১৬, ০৮:১৬ পি. এম.

১৯/০৩/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



শীর্ষ সংবাদ: